• ঢাকা
  • রবিবার, ১০ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ; ২৩ জানুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

শ্রীমঙ্গলে ৩টি হিন্দু বাড়ির খড়ের গাদায় অগ্নিসংযোগের অভিযোগ


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শুক্রবার, ২২ অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ০২:১২ পিএম
কৃষক অমর দাশের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে
অগ্নিসংযোগকৃত বাড়ি

মো: জহিরুল ইসলাম, মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি: রাতের আঁধারে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনের তিনটি বাড়ির খড়ের গাদায় অগ্নিসংযোগ করে দুর্বৃত্তরা।

গত বুধবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে উপজেলার ভুনবীর ইউনিয়নের ভীমসী গ্রামের বাবুবাজার সংলগ্ন এলাকায় শিক্ষক অমর দাশ, সাবেক ইউপি সদস্য মৃত অরুর রায় ও কৃষক অমর দাশের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

আগুনে তিনটি বাড়ির খড়ের গাদায় থাকা পৌনে তিন একরের বেশি জমির ধানের খড় ও বাঁশ পুড়ে গেছে। বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশ, জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

অমর দাশের ছেলে টিপু দাশ জানিয়ে বলেন, গত বুধবার রাতে আমরা প্রতিদিনের মতো ঘুমিয়ে পড়ি, রাত আনুমানিক দুইটার দিকে এলাকার স্থানীয় পাহারাদাররা আমাদের ঘুম থেকে ডেকে তোলেন। ঘুম থেকে উঠে দেখি, বাড়িতে গরুর জন্য রাখা ধানের খড়ে আগুন জ্বলছে। স্থানীয় লোকজন সবাই মিলে পানি ঢেলে আগুন নিভাই। আগুনে খড় ও বাঁশ পুড়ে গেছে।

রাত দুইটার দিকে এলাকার স্থানীয় পাহারাদাররা আমাদের ঘুম থেকে ডেকে তোলেন। ঘুম থেকে উঠে দেখি, বাড়িতে গরুর জন্য রাখা ধানের খড়ে আগুন জ্বলছে।

টিপু দাশ আরও বলেন, একটি বাড়ি থেকে অন্য বাড়ির দূরত্ব  প্রায় ১০০ থেকে ২০০ গজ হবে। তাই একটি গাদা থেকে আরেকটিতে আগুন লেগেছে বলা যায় না। একই সময়ে কেউ এই আগুন লাগিয়ে দিয়েছেন। এ ঘটনায় কৃষক অমর দাশের বাড়িতে ৯০ শতাংশ জমির খড়, অরুণ রায়ের বাড়িতে ১৮০ শতাংশ জমির খড় এবং শিক্ষক অমর দাশের বাড়িতে ১৫ শতাংশ জমির খড় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

ভুনবীর ইউপি চেয়ারম্যান আবদুর রশীদ বলেন, ভুনবীর ইউনিয়নে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার জন্য কেউ উদ্দেশ্যমূলকভাবে এই আগুন লাগিয়েছে। আমরা চাইব এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতরা ধরা পড়ুক।

বাংলাদেশ পূজা উদ্‌যাপন পরিষদ শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সুশীল শীল বলেন, হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষের তিনটি বাড়ির খড়ের গাদায় একসঙ্গে আগুন লাগানোর ঘটনাটি আমরা উদ্দেশ্যমূলক বলে মনে করছি। প্রশাসনের কাছে অনুরোধ, দ্রুত ব্যবস্থা নিয়ে তাদের আটক করা হউক।

শ্রীমঙ্গল থানার পরিদর্শক (অপারেশন) নয়ন কারকুন  বলেন, কেউ এখানে আগুন লাগিয়েছে বলেই আমরা ধারণা করছি। আমরা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের খুঁজে বের করার জন্য তদন্ত করছি।

ঢাকানিউজ২৪.কম / মো: জহিরুল ইসলাম

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image