• ঢাকা
  • শনিবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ০১ অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

৭৫ বয়সে এসেও ভাত খান না বৃদ্ধা জাহানারা


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বুধবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৪:৪৯ পিএম
৭৫ বয়স
ভাত খান না বৃদ্ধা জাহানারা

গৌতম চন্দ্র বর্মন, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: ৭৫ বছর বয়সেও ভাতের পরিবর্তে রুটি, বিস্কুটসহ অন্যান্য খাবার খেয়ে বেঁচে দিন যাপন করছেন। দুই সন্তানের মা জাহানারা বেগম ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা গোবিন্দ নগর মুন্সির হাট এলাকার বাসিন্দা। তিনি ওই এলাকার হাফিজুর রহমানের স্ত্রী।

এলাকাবাসী ও পরিবার বলছে, মাত্র ১১ বছর বয়সে জাহানারা বেগমের বিয়ে হয় একই এলাকার হাফিজুর রহমানের সঙ্গে। বিয়ের বছরখানেকের মধ্যেই জন্ম নেয় প্রথম সন্তান। দুই বছর পর আরও একজন। দুই সন্তান নিয়ে বেশ সুখে চলছিল তাদের দাম্পত্য জীবন। হঠাৎ একদিন পারিবারিক কলহ বাঁধে এই দম্পতির। কলহের একপর্যায়ের স্বামী হাফিজুর রাগান্বিত হয়ে তাকে বলেন, ‘তুই যদি আমার বাড়ির ভাত খাস তাহলে তোর দুই সন্তানের মাথা খাবি’। পরবর্তীতে বিবাদ মিটে গেলেও সেদিনের পর থেকে জাহানারা বেগম আর কখনো ভাত মুখে তোলেননি। ৬ বছর আগে স্বামী হাফিজুর রহমানের বার্ধক্যজনিত কারণে মৃত্যু হয়। তবে স্বামীর প্রতি নেই ক্ষোভ, অভিমান।

জাহানরা বেগম বলেন, স্বামীর কসম দেওয়ার পর ভয়ে ছিলাম এই ভেবে যে, ভাত খেলে সন্তানদের যদি বড় কোনো বিপদ হয় বা ক্ষতি হয়। ঘটনার ওই দিনের পর থেকে বিস্কুট, চা, রুটি এ সব খেয়ে থাকি। সংসার জীবনে তো অনেক কিছুই হয়। মানুষটার (স্বামী) জন্য এখন খুব কষ্ট হয়। আমাকে একা রেখে চলে গেল!’

জাহানারা বেগমের বড় ছেলে সিদ্দিকুল ইসলাম বলেন, ‘পরিবারের সবাই অনেক চেষ্টা করেও মাকে ভাত খাওয়াতে পারিনি। বাসায় বিভিন্ন সময় অনুষ্ঠানে আয়োজন হয়, সেখানে মাকে ছাড়া খেতে কষ্ট হয়।

প্রতিবেশী অজিফা বেগম বলেন, ওই ঘটনার পর তার স্বামীসহ আমরা অনেক চেষ্টা করেও তাঁকে খাওয়াতে পারিনি। তাঁর বিশ্বাস সে যদি ভাত খায় তাহলে তাঁর সন্তান ও তার নিজের ক্ষতি হতে পারে। এ কারণে সে আর কোনো দিন ভাত খাননি।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image