• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ৭ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ; ২০ জানুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

ঘূর্ণিঝড়ে বোয়ালিয়া ছায়াবীথি মৎস্যজীবী সমিতির লোকসানের আশংকা


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: রবিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১০:১৭ পিএম
ছায়াবীথি মৎস্যজীবী সমিতি লিমিটেডের সদস্য
ছোট বোয়ালিয়া বড় বোয়ালিয়া বিল

মনিরুজ্জামান মনির, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি:  প্রাকৃতিক দুর্যোগে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ভাদুঘর ছায়াবীথি মৎস্যজীবি সমবায় সমিতি লিমিটেডের ছোট বোয়ালিয়া  বড় বোয়ালিয়া বিলের ছয় বছরের হিসেবে নেওয়া বার্ষিক ইজারার মৎস্য খামারের সব মাছ অতিবৃষ্টিতে ভেসে যাওয়ায়  চরম ক্ষতির মুখে পড়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায় চলতি মাসের ৪, ৫ ও ৬ ডিসেম্বর টানা তিনদিনের  ভারীবর্ষণে  তিতাস নদীর পানি দুই থেকে আড়াই ফুট বেড়ে যাওয়ায় ছায়াবীথি মৎস্য খামারের সব মাছ বাঁশের তৈরি চাচি বেড়া সীমানার ওপর দিয়ে বেরিয়ে যায়।

জানা যায় প্রতিবছর সরকারি কোষাগারে ২০ লক্ষ ৩৪ হাজার ৪৫ টাকা ২০পয়সা হারে জমা দিয়ে চলতি বছরের জুলাই মাসে নিজস্ব অর্থায়নে মাছের পোনা অবমুক্ত করেন, মাছ সংরক্ষণ করার জন্য মুলিবাঁশের চাচি ও  মুলি বাঁশ দিয়ে নির্ধারিত সীমানা বেড়া দেয়া হয়ে থাকে।

এই বেড়া দিতে গিয়ে ও  শ্রমিক দ্বারা মাছের খাবার দেওয়া দেখাশোনায় প্রতি বছরে  আনুমানিক  খরচ হয় ১ কোটি ৪৯ লক্ষ  টাকা।

ছায়াবীথি মৎস্য খামারের সভাপতি নুরুল হক ও সাধারণ সম্পাদক হানিফ মিয়া বলেন আমরা  চেষ্টা করেছিলাম মাছ আটকানোর জন্য কিন্তু মাত্রা অতিরিক্ত পানি বৃদ্ধি ও স্রোত থাকার কারণে  কোনোভাবেই অতিরিক্ত বেড়া  চাচি  ও নেটদিয়েও আটকাতে পারিনি।

আমাদের প্রতিবছর সর্বমোট ১কোটি ৪৯ লাখ টাকা খরচ হয়।

ছায়াবীথি মৎস্যজীবী সমিতি লিমিটেডের সদস্য  রুস্মত আলি শ্রমিক শাহ আলম সভাপতি সাধারণ সম্পাদক জানায় সব মাছ ভেসে  যাওয়ায় আমরা  নিঃস্ব হয়ে গেছি। আমাদের আর কিছুই রইল না। এই লোকসান আমরা কোনভাবেই পুষিয়ে উঠতে পারবনা ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক ও সরকারের কাছে আমাদের দাবি ভাদুঘর ছায়াবীথি মৎস্য জীবি সমিতির ক্ষতি হওয়ার বিষয়টির প্রতি সুদৃষ্টি দেওয়া না হলে  বাঁচার কোন উপায় নেই । কিভাবে আমরা শ্রমিকের টাকা দেব কিভাবে আমরা এ লোকসান কাটিয়ে উঠব।

ঢাকানিউজ২৪.কম /

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image