• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ০৮ ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

সমাবেশ প্রশ্নে সরকারের সংবিধান লঙ্ঘন :আ স ম রব 


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: রবিবার, ২০ নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০১:০৭ পিএম
সমাবেশ প্রশ্নে সরকারের সংবিধান লঙ্ঘন
জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব

নিউজ ডেস্ক : জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব বলেন, সংবিধান সমাবেশের স্বাধীনতা দিলেও সরকার নিজের ক্ষমতা দীর্ঘায়িত করার স্বার্থে বিরোধী দলের সমাবেশে নাশকতার অভিযোগ তুলে তল্লাশি, বাধাপ্রদান এবং হুমকির মাধ্যমে অহরহ সংবিধান লঙ্ঘন করে যাচ্ছে। শুধু তাই নয় প্রচ্ছন্ন ইঙ্গিতে সরকার পরিবহন ধর্মঘট করে সমাবেশে বাধাগ্রস্ত করছে। 

অন্যদিকে নিজ দলীয় সমাবেশে তল্লাশি বিহীন ধর্মঘটবিহীন বিভিন্ন ধরনের সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করছে। তাছাড়া সরকারি কর্মচারী এবং বেকার যুবকদের জোরপূর্বক তাদের সমাবেশস্থলে নিয়ে এসেছে। ইন্টারনেটের গতি কমিয়েও সমাবেশের প্রচার বাধাগ্রস্ত করা হয়।নৈতিকভাবে অধঃপতিত সরকারের পক্ষেই এসব সাজে। 

তল্লাশীর নামে, ধর্মঘটের নামে ও জিজ্ঞাসাবাদের নামে সরকার আজ জনগণের দুর্ভোগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এযাবত বিরোধীদলের  অনুষ্ঠিত সমাবেশসমূহের কোনটিতে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটলেও সরকার বাধা সৃষ্টি করতে পিছপা হয়নি। সমাবেশের ঘোষিত সময়সূচীর তিন চার দিন পূর্ব থেকেই পরিবহন ধর্মঘট, লঞ্চ ধর্মঘট ইত্যাদি করে শুধুমাত্র সমাবেশ বাধাগ্রস্ত করায় সংশ্লিষ্ট অঞ্চলের গণমানুষ ব্যাপক দুর্ভোগের শিকার হয়।

এসব কারণে সরকারের কর্তৃত্ববাদী শাসন ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। অপশাসন,  দুঃশাসন, দুর্নীতি, অপচয়, ব্যাপক অর্থপাচার, অবাধ লুণ্ঠন, অপরিকল্পিত ও তথাকথিত উন্নয়নের কারণে দেশ আজ অর্থনৈতিকভাবে দেউলিয়া হওয়ার সম্মুখীন।

প্রতিনিয়ত সংবিধান লঙ্ঘনকারী এবং রাষ্ট্রের ঘাড়ে চেপে বসা এই সিন্দবাদের দৈত্যকে বিদায় করে জনগণের ভোটাধিকার আদায় ও রাষ্ট্র মেরামতের প্রক্রিয়া শুরু করতে হবে। দুর্বার গণআন্দোলন গড়ে তুলে গণঅভ্যুত্থানের মাধ্যমে এই সরকারের পতন ঘটানো আজ অনিবার্য হয়ে দাঁড়িয়েছে। 

গতকাল বেলা ১১ টায় জামালপুর শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত জেএসডি জামালপুর জেলা শাখার ত্রিবার্ষিক কাউন্সিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে (ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে) আ স ম রব এসব কথা বলেন।

সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ছানোয়ার হোসেন তালুকদার বলেন, জেএসডি ঘোষিত রাজনৈতিক কর্মসূচি অর্থাৎ সংসদের উচ্চকক্ষ, প্রদেশ গঠন, স্থানীয় সরকার ব্যবস্থা সহ নীতি নির্ধারণের সকল স্তরে শ্রমজীবী কর্মজীবী পেশাজীবীদের অংশীদারিত্ব প্রদানের প্রশ্নটি আজ রাষ্ট্রীয় রাজনীতিতে প্রধান এজেন্ডা হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে।

মোঃ আমির উদ্দিন এর সভাপতিত্বে এবং অ্যাডভোকেট তাজউদ্দীন সবুজ এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদান করেন ভাসানী অনুসারী পরিষদের আহ্বায়ক শেখ রফিকুল ইসলাম বাবলু, জেএসডির কার্যকরী সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ সিরাজ মিয়া, অ্যাডভোকেট সৈয়দ বেলায়েত হোসেন বেলাল, অ্যাডভোকেট মিয়া হোসেন,গণ অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক মোঃ ইকবাল হোসেন, আব্দুল্লাহ আল নোমান, মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা সহ স্থানীয় জেএসডি ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

রাজনীতি বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image