• ঢাকা
  • শুক্রবার, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ২০ মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

আজ কেরানীগঞ্জে গণহত্যা দিবস


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শনিবার, ০২ এপ্রিল, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১২:২৯ পিএম
গণহত্যা চালিয়েছিল সে বিবিসিকাময় দিন
২ এপ্রিল কেরানীগঞ্জে গণহত্যা দিবস

এরশাদ হোসেন, কেরানীগঞ্জ.ঢাকা:  ২ এপ্রিল কেরানীগঞ্জে গণহত্যা দিবস। ১৯৭১-এর এইদিনে পাকিস্তানী হানাদাররা কেরানীগঞ্জে প্রায় ৫ হাজার মানুষকে গুলি করে হত্যা করে। কেরানীগঞ্জবাসীর জন্য এটি ভয়াবহ স্মৃতি বিজড়িত দিন। এ দিনের তাৎপর্য তুলে ধরে প্রতিবছরের মতো এবারও বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও অঙ্গ সংগঠন,কেরানীগঞ্জ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, কেরানীগঞ্জ প্রেসক্লাব, সাংস্কৃতিক ব্যক্তি, বুদ্ধিজীবী নানা র্কমসূচি পালন করছে।

উল্লেখ্য, ঢাকা শহরের নিকটবর্তী বুড়িগঙ্গা তীরবর্তী ও ধলেশ্বরী নদী ঘেরা কেরানীগঞ্জ উপজেলা- অবস্থানগত কারণে একাত্তরে ছিল অত্যন্ত গুরুত্বপূূর্ণ আশ্রয়স্থল। পায়ে হাঁটা সড়ক কিংবা নদীপথে কেরানীগঞ্জের সঙ্গে মাওয়া, সিরাজদিখান, মুন্সীগঞ্জ, ফতুল্লা, নারায়ণগঞ্জ, ফরিদপুর, নবাবগঞ্জ, দোহার, সাভার, ধামরাই, মানিকগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের যোগাযোগ ব্যবস্থা ভালো ছিল। ফলে ঢাকা ও পার্শ¦বর্তী বিভিন্ন অঞ্চলে পাকিস্তানী সেনাদের বিরুদ্ধে আক্রমণ পরিচালনা করা, মুক্তিযোদ্ধাদের অস্ত্র ও রসদের জোগান, যুবকদের প্রশিক্ষণ দেয়া, ভিআইপি নেতাদের ও সাধারণ মানুষের নিরাপদ আশ্রয়স্থল হিসেবে কেরানীগঞ্জের কৌশলগত ভূমিকা ও প্রাধান্য ছিল বেশি।

২৫ মার্চের রাতে গণহত্যার পর থেকে ঢাকা শহরে আতর্কিত নিরস্ত্র নিরীহ লোকজন নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে দলে দলে কেরানীগঞ্জে আসতে শুরু করনে। এ খবর পেয়ে পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী ২ এপ্রিল ভোরে কেরানীগঞ্জে হামলা চালিয়ে প্রায় ৫ হাজার নারী-পুরুষকে হত্যা করে। কেরানীগঞ্জের বাসিন্দা ও মুক্তিযোদ্ধা হাজি আফজাল হোসেন ডিপটি বলেন, কেরানীগঞ্জ ছিল কেন্দ্রীয় রাজনৈতিক নেতা ও রাজধানীবাসীর প্রধান আশ্রয় স্থল। ২৫ মার্চের রাতে গণহত্যার পর থেকে ঢাকা শহরে নিরীহ লোকজন নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে দলে দলে কেরানীগঞ্জে আসতে শুরু করনে। পাকিস্তানী সেনারা এ সংবাদ পেয়ে ২ এপ্রিল ভোরে কেরানীগঞ্জে হামলা চালিয়ে প্রায় ৫ হাজার নারী-পুরুষকে হত্যা করে।

এব্যাপারে বাংলাদেশের খবরকে জানান, কেরানীগঞ্জ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার মো. শাহজাহান বলেন, ১৯৭১ সালের ২ এপ্রিল পাকিস্তানী সেনারা কেরানীগঞ্জ বাসীর উপর যে গণহত্যা চালিয়েছিল সে বিবিসিকাময় দিনটির কথা আজও ভুলতে পারেনি কেরানীগঞ্জের জনগন। পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী ২ এপ্রিল কেরানীগঞ্জে হামলা চালিয়ে প্রায় ৫ হাজার নারী-পুরুষকে হত্যা করে। সেই থেকে ২ এপ্রিল কেরানীগঞ্জে গনহত্যা দিবস পালিত হয়ে আসছে।

ঢাকানিউজ২৪.কম /

উৎসব / দিবস বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image