• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ৩০ জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

ওয়েব ফিল্ম 'শেষ চিঠি'তে অভিনয় করে প্রশংসায় ভাসছেন দীঘি


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শনিবার, ০৪ জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৩:২২ পিএম
আমাদের মামনির জন্য দোয়া করবেন
অভিনেত্রী প্রার্থনা ফারদিন দীঘি

জাকির হোসেন আজাদী: ওয়েব ফিল্ম শেষ চিঠি'তে অভিনয় প্রশংসায় ভাসছেন নতুন প্রজন্মের প্রতিশ্রুতিশীল  প্রতিভাবান অভিনেত্রী প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। গতকাল এ বিষয়ে তাঁর সঙ্গে কথা হয়। শেষ চিঠিতে অভিনয়ের জন্য ব‍্যাপক প্রশংসা পাচ্ছি। আমি আবেগাপ্লুত। আজ আমিও আমার পরিবারকে সঙ্গে নিয়ে এই মাত্র ছবিটি দেখে উঠলাম। আমার খালামনি ( ক‍্যামেলিয়া নিশান) সঙ্গে আছেন।  তাঁর কাছে অনুভূতি শোনেন।

সে সময় ক‍্যামেলিয়া নিশান বলেন, "গতকাল চরকি এ্যাপে মুক্তি পেয়েছে আমার ভাগনি, আমাদের কন্যা, দিঘীর ওয়েব ফিল্ম "শেষ চিঠি "। ইতোমধ্যেই দিঘীর অভিনয়ের ভূয়সী প্রশংসিত  হচ্ছে। সাড়া পড়েছে মিডিয়া এবং দিঘীর ভক্ত অনুরাগীদের মধ্যে। অনেকেই দিঘীর এই নতুনভাবে আগমনে আশার আলো দেখতে পাচ্ছেন একজন প্রতিভাবান অভিনেত্রী হিসেবে।'

তিনি আরও বলেন, " সামনে আসছে ওর আলোচিত সিনেমা জাতির পিতার বায়োপিক "বঙ্গবন্ধু"। বছর দুই আগে করোনা পরিস্থিতিতে ভয়াবহ অবস্থায় যখন কেউ সিনেমা বানাতে আগ্রহী ছিলেন না তখন দেশের বরেন্য প্রবীন পরিচালক দেলোয়ার জাহান ঝন্টু স্যারের "তুমি আছো তুমি নেই " ও সেলিম খানের "টুঙ্গিপাড়ার মিয়া ভাই "সিনেমা দিয়ে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় দিঘীর। শেষ চিঠি দিঘীর তৃতীয়  চলচ্চিত্র। "

পূর্বে এক সঙ্গে সিনেমা দেখা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, "আজ আমার বাসায় দিঘী নিজে এসে চরকি এ্যাপ ডাউনলোড করে দিয়েছে শেষ চিঠি দেখবো বলে। দিঘীর সাথে হলে বসে ওর অভিনিত ছোট বেলার অনেক মুভি দেখেছি। কিন্তু ও তখন এতো ছোট ছিলো যে তখন কোনো অনুভূতি কাজ করেনি। বরং হলে সিনেমা দেখাটা ওর কাছে শাস্তি স্বরুপ ছিলো। "

দীঘির অভিনয়ে মুগ্ধ হয়ে  তিনি বলেন, "আজ আমার বাসায় আমাদের সাথে বসে মুভিটা দেখতে গিয়ে দিঘীর সাথে বার বার আমিও আবেগে আপ্লূত হয়ে যাচ্ছিলাম। কান্না ও করেছি শেষ দৃশ্যে। বার বার চোখ ভিজে যাচ্ছিলো। দিঘী আমার ভাগনী বলে নয়। এতো ভালো, এতো ক্লাসি অভিনয় করেছে যে গর্বে বুক টা ভরে গেছে।'

দীঘির বিষয়ে তিনি আরও বলেন, "তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া শিশু শিল্পী দিঘী। ওর রক্তে রয়েছে অভিনয়। বাবা সুব্রত একজন শক্তিমান অভিনেতা। মা দোয়েল ও ভালো খ্যাতিমান অভিনেত্রি ছিলেন। অনেক আগের দেখা আমার মেজো আপু দোয়েল অভিনিত বরেন্য চলচিত্র নির্মাতা চাষি নজরুল ইসলামের  "চন্দ্রনাথ" সিনেমার সেই সরযুকে মনে পড়ে গেলো। '

পরিচালকের প্রশংসা করে তিনি বলেন, ""দিঘী"কে দেখতেও ওর মায়ের মতোই সুন্দরী আর স্নিগ্ধ লেগেছে। এই দিঘীকেই আমরা এতোদিন মনে, মনে খুঁজছিলাম। পানি, যে পাত্রে ধারন করবেন সে খানেই তার রুপ ধারন করবে। শিল্পীরাও তাই কাঁদা মাটির মতো। যাকে যে ভাবে গড়বে সেভাবেই তার সৃষ্টি হবে। ভালো পরিচালের হাতে পরলে সে তার বেস্ট টাই দিবে অবশ্যই।'

মুভিটি সম্পর্কে তিনি আরও বলেন, " তরুন পরিচালক সুমন ধরের "শেষ চিঠি " সময়োপোযোগি, পারিবারিক  সামাজিক গল্প নির্ভর, একটি সুন্দর ভালো মানের সিনেমা। মুভির গল্প, গান, সিনেমাটোগ্রাফি, প্রত্যেকটি শিল্পীর অনবদ্য অভিনয় বিশেষ করে অভিনেত্রী সাবেরী আলম, নায়ক ইয়াস রোহান এর অভিনয় মনে দাগ কাটার মতো। পরিবারের সবাই বসে একসাথে দেখার মতো পারিবারিক একটা সিনেমা শেষ চিঠি।"

সব শেষে দর্শকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, " আশা রইল আপনারা ও সবাই মুভিটি দেখবেন। আর আমাদের মামনির জন্য দোয়া করবেন। দোয়া করি, আরও কিছু ভালো কাজ দিয়ে তুমি সামনে এগিয়ে যাও দিঘু মনি। অনেক  সাফল্য অর্জন করো।তোমার জন্য দোয়া ও শুভকামনা রইল "মা"।'

ঢাকানিউজ২৪.কম /

বিনোদন বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image