• ঢাকা
  • সোমবার, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৫ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

স্বস্তির জন্য আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল থেকে ঋণ নিয়েছি : প্রধানমন্ত্রী


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: রবিবার, ৩০ এপ্রিল, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১২:১৪ পিএম
স্বস্তির জন্য আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল থেকে ঋণ নিয়েছি
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আইএমএফের এমডি ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা

ডেস্ক রিপোর্টার : কিছুটা স্বস্তির জন্যই আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) থেকে ঋণ নিয়েছে বাংলাদেশ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার (২৯ এপ্রিল) বিকেলে যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনের হোটেল রিজ কার্টলের সভাকক্ষে আইএমএফের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভার নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে তিনি এ মন্তব্য করেন।

এক সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন  প্রধানমন্ত্রীকে উদ্ধৃত করে বলেন, আমরা কিছুটা স্বস্তির জন্য আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) কাছ থেকে ঋণ নিয়েছি।

চলতি বছরের জানুয়ারিতে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) বাংলাদেশের জন্য ৪.৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ঋণ অনুমোদন করে।

আইএমএফ এমডিকে উদ্ধৃত করে মোমেন বলেন, বিশ্বের মধ্যে বাংলাদেশ রোল মডেল (সার্বিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে)। বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অগ্রগতি কোভিডের পরেও বাংলাদেশ তার অর্থনীতি স্থিতিশীল রেখেছে।
 
মন্ত্রী বলেন, ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেছেন, সমৃদ্ধির দিকে এগিয়ে যেতে এ ধরনের ভিশন, এ ধরনের লিডারশিপ খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

আব্দুল মোমেন আরও জানান, ক্রিস্টিলিনা জর্জিয়েভা বলেছেন, ব্যাপক অবকাঠামোগত উন্নয়ন, ভালো কানেকটিভিটি এবং আইনশৃঙ্খলা ব্যবস্থাপনার কারণে বাংলাদেশ উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি অর্জন করেছে।

বাংলাদেশের সামষ্টিক অর্থনীতি, বিশেষ করে করোনার মধ্যেও স্থিতিশীলতা ধরে রাখার প্রশংসা করেন আইএমএফ প্রধান। ক্রিস্টিলিনা জর্জিয়েভার সঙ্গে আলাপে বাংলাদেশের সামগ্রিক উন্নয়ন নিশ্চিত করতে সরকারের নেয়া বিভিন্ন উদ্যোগের কথা তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, দেশের এ উন্নয়ন রাতারাতি হয়নি; এটা দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার ফসল। তিনি যখন জেলে ছিলেন, তখন বাংলাদেশকে কীভাবে উন্নত করবেন, সেই পরিকল্পনাগুলো করেছেন এবং ২০০৯ সালে দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় আসার পর পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ শুরু করেন।

জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষতিকর প্রভাব মোকাবিলা এবং নারীর ক্ষমতায়নে সরকারের নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের উন্নয়নের যাত্রায় আইএমএফের ভূমিকার প্রশংসা করেন এবং আশা প্রকাশ করেন, ভবিষ্যতেও এ ধরনের সহায়তা অব্যাহত থাকবে।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image