• ঢাকা
  • শুক্রবার, ৭ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ; ২১ জানুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

এমএমসিএইস ওমিক্রন মোকাবিলায় সম্পূর্ণ প্রস্তুত


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: সোমবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১২:০২ এএম
প্রাকৃতিক বাতাস থেকে অক্সিজেন তৈরি করা হবে
ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল

নিজস্ব প্রতিবেদক, ময়মনসসিংহ:  বৃহত্তর ময়মনসিংহের সর্ববৃহৎ এবং প্রধান সরকারি চিকিৎসালায় ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিট ওমিক্রন মোকাবিলায় সম্পূর্ণ প্রস্তুত বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

ওমিক্রন মোকাবিলায় ইতোমধ্যেই করোনা ইউনিটে ৩৪০টি সাধারণ শয্যা, ৪০টি কেবিন এবং ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে
(আইসিইউ) ২২টি শয্যা প্রস্তুত করা হয়েছে।

রবিবার (৯ জানুয়ারি) সকালে হাসপাতালটির করোনা ইউনিট ঘুরে দেখা গেছে, তিন জন করোনা পজিটিভ এবং সন্দেহজনক ৩৫ জন রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আইসিইউতে ২২ শয্যার বিপরীতে চার জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। রোগীর চাপ না থাকায় করোনা রোগীদের স্বজনদের আনাগোনা একেবারেই কম দেখা গেছে। রোগী কম থাকায় চিকিৎসাসেবা নিয়ে এখনও কোনও সমস্যা নেই। রোগী বা রোগীর স্বজনদের কোনও অভিযোগও নেই।

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে করোনা ইউনিটের ফোকাল পারসন ডাঃ মহিউদ্দিন খান মুন জানান, গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে করোনাকালে রোগীদের চাহিদার তুলনায় অক্সিজেন সংকট দেখা দিয়েছিল। এবারও সেই বিষয়টিকেই তারা
বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন। এবার যেন কোনও সংকট না হয় সে জন্য আগেভাগেই তারা ঢাকায় যোগাযোগ রাখছেন।

আশার কথা শুনিয়ে তিনি আরও জানান, একটি অক্সিজেন জেনারেটর বসানোর কাজ চলছে। এর মাধ্যমে প্রাকৃতিক বাতাস থেকে অক্সিজেন তৈরি করা হবে। এটি তৈরির কাজ শেষ হলে সংকট কিছুটা কাটবে। এ ছাড়া একটি ১০ থেকে ২০ হাজার লিটার ধারণক্ষমতা সম্পন্ন অক্সিজেন প্ল্যান্ট বসানোর বিষয় প্রক্রিয়াধীন আছে।

ময়মনসিংহ মেডিক্যালের করোনা ইউনিটে ভর্তি রোগীর স্বজন ইদ্রিস আলী জানান, জ্বর ও শ্বাসকষ্ট দেখা দেওয়ায় তার বড় ভাইকে চার দিন আগে ভর্তি করছেন। সবাই আন্তহরিকতা দিয়ে চিকিৎসাসেবা দিচ্ছেন।

ময়মনসিংহ সদরের রোগীর অপর স্বজন আলমাস খান জানান, করোনা ইউনিটে রোগীর চাপ এখন খুবই কম। সম্পূর্ণ বিনামূল্যেই চিকিৎসা পাচ্ছেন। তবে রোগী বাড়লে সেবার মান কতটা ভালো থাকবে তা নিয়ে শঙ্কা আছে।

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল গোলাম কিবরিয়া জানান, ওমিক্রন মোকাবিলায় হাসপাতালের করোনা ইউনিট সম্পূর্ণ প্রস্তুত রয়েছে। ইতোমধ্যেই চিকিৎসক এবং করোনা ইউনিটের সবার সঙ্গে একের পর এক সভা করে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। রোগীর চাপ বাড়লেও চিকিৎসাসেবায় কোনও সমস্যা হবে না বলে আশাবাদী তিনি।

ঢাকানিউজ২৪.কম /

স্বাস্থ্য বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image