• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২২ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ০৭ অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

বিরামপুরে শীতকালীন সবজি চাষে ব্যস্ত কৃষক


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ৩০ আগষ্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০১:০৩ পিএম
শীতকালীন সবজি চাষে ব্যস্ত কৃষক
সবজি চাষে ব্যস্ত কৃষক

রেজোওয়ান আলী বিরামপুর প্রতিনিধি, দিনাজপুর: দেশের উত্তরাঞ্চলের শস্য ভান্ডার হিসেবে খ্যাত দিনাজপুর বিরামপুরের কৃষকেরা আগাম শীতকালীন সবজি চাষে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। আজ (২৯ আগষ্ট) আগাম শীতকালীন সবজি বাজারে তুলতে পারলেই অধিক অর্থ মিলবে-এমন ধারণা থেকে কৃষকরা ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন অগ্রিম কৃষি কাজে। সকালের কাক ডাকা ভোরে ঘুম থেকে জেগে কৃষকরা জমিতে হাল চাষ, চারা রোপণ,ক্ষেতে পানি ও ক্ষেতের আগাছা পরিষ্কার করাসহ নানা কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন। 

শুধু নিজেদের চাহিদাই নয়,বাণিজ্যিক ভাবে চাষ হচ্ছে এসব সবজি। সবুজ রঙ্গে ভরে উঠেছে মাঠের চিত্র। এমন বিস্তীর্ণ মাঠ জুড়ে শোভা পাচ্ছে সারি সারি শিম গাছ,ফুলকপি, বাঁধাকপি,লাউ,শিম,বেগুন,মুলা,করলা, পটল,পালং ও লালশাকসহ হরেক রকমের শীতকালীন সবজি ফসলের চারা।

এবিষয়ে সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, বিরামপুর উপজেলার মুকুন্দপুর, হাবিবপুর,কেশব পুর,বালুপাড়া,ভেলার পাড়া সহ অন্যান্য এলাকায় আগাম বিভিন্ন জাতের শীতকালীন সবজি চাষে জমি তৈরি,চারা রোপন কাজে ব্যস্ত কৃষকের দল। তারা বিভিন্ন পদ্ধতিতে চারা উৎপাদন করছেন। এবিষয়ে কৃষকরা বলছেন আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে শীতকালীন সবজির উৎপাদন অনেক বেড়ে যাবে। 

উপজেলার সারাঙ্গপুর গ্রামের কৃষক ইমরান হোসেন বলেন, তিনি এবছর ২ বিঘা জমিতে আগাম সবজি চাষ বুনেছেন। তাদের মন্তব্যে জা সবজি তুলনামূলকভাবে মূলধনও কম লাগে। কিন্তু সবজি চাষে একটু বেশি পরিচর্যা করতে হয়। রোগবালাই দমনে সবজিতে কীটনাশক বেশি প্রয়োগ করতে হয়। আবার খুব কম সময়েই সবজি বিক্রি উপযোগী হয়ে ওঠে। এই জন্যে প্রায় দিনই বাজারে সবজি বিক্রি করা যায়। পরিবারের প্রায় সব চাহিদাও মেটানো সম্ভব হয়। জমিতে সবজি থাকা পর্যন্ত প্রত্যেক কৃষকের হাতে কম-বেশি টাকা থাকে। যা অন্য ফসলের বেলায় সম্ভব হয় না। 

এছাড়া চলতি মৌসুমে সবজির দামও বেশ ভালো। সব মিলিয়ে সবজি চাষকেই এসব কৃষক লাভজনক একটি ব্যবসা হিসাবে ধরে নিয়েছেন। এবিষয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নিক্সন চন্দ্র পাল জানান, এ বছর উপজেলায় আগামজাতের শীতকালিন খরিদ-২,সবজি চাষ হয়েছে ১১৫ হেক্টর জমিতে। যা থেকে আগাম শীতকালীন প্রায় ২০ হাজার মেট্রিক টন ফলন পাওয়া যাবে। আগাম শীতকালীন সবজির চাষ আরো বাড়বে বলে আশংকায় মন্তব্য করেন।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

কৃষি বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image