• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ৬ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ; ২০ জানুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

আইএলও কনভেনশন ১৯০ এর বাস্তবায়নে গণমাধ্যমের সহায়তা কামনা: আইটিউসি


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ০৭:৫৬ পিএম
বাংলাদেশ ফ্রি ট্রেড ইউনিয়ন কংগ
ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড ইউনিয়ন কনফেডারেশন (আইটিউসি)

নিউজ ডেস্ক:   কর্মক্ষেত্রে সহিংসতা ও হয়রানী রোধে আইএলও কনভেনশন ১৯০ এর বাস্তবায়নের গণমাধ্যমের সহযোগিতা কামনা করে ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড ইউনিয়ন কনফেডারেশন (আইটিউসি) বাংলাদেশ কাউন্সিল, নারী কমিটি। সংবাদ সম্মেলনে অংশ নেয়া সংগঠনগুলো হলো,  বাংলাদেশ মুক্ত শ্রমিক ফেডারেশন, বাংলাদেশ সংযুক্ত শ্রমিক ফেডারেশন, বাংলাদেশ ফ্রি ট্রেড ইউনিয়ন কংগ্রেস, বাংলাদেশ লেবার ফেডারেশন, জাতীয় শ্রমিক লীগ, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল।

ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড ইউনিয়ন কনফেডারেশন (আইটিউসি) বাংলাদেশ কাউন্সিল নারী কমিটির নেতারা বলেন, কর্মক্ষেত্রে নারী শ্রমিকের প্রতি সহিংয়সতা, হয়রানী, নির্যাতন, বৈষম্য একটি চলমান সমস্যা। নারী শ্রমিকরা তাদের কাজ হারানোর আশংকায় তা প্রকাশ করতে চায় না। শুধু নারীর প্রতি এ ধরনের ঘটনা ঘটে এমন নয়। পুরুষের প্রতিও ঘটে। কর্মক্ষেত্রে এরূপ ঘটনা ঘটলে শ্রমিকের উপর মানসিক চাপ সৃষ্টি ও শারীরিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়।

শ্রমিক সংগঠনের নেতারা বলেন, গত এক বছরে নারীর প্রতি সহিংসতা  অনেক বেড়েছে । বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অফ লেবার স্টাডিজ-বিলস এর সংবাদপত্রভিত্তিক জরিপ অনুযায়ী ২০২১ সালের জানুয়ারী থেকে অক্টোবর পর্যন্ত কর্মক্ষেত্রে ৪৬ জন নারী শ্রমিক নির্যাতনের শিকার হয়েছে।

কর্মক্ষেত্রে নারী-পুরুষের প্রতি সহিংসতা ও হয়রানী বন্ধের লক্ষে গত ২৮ মে থেকে ৮ জুন ২০১৮ আন্তর্জাতিক শ্রমসংস্থা (আইএলও)- এর উদ্দ্যোগে ১০৭ তম আন্তর্জাতিক শ্রম সম্মেলনে এ বিষয়ে প্রথম আলোচনা শুরু হয়। আন্তর্জাতিক শ্রমসংস্থা আইএলও কর্তৃক ১০৮ তম আন্তর্জাতিক শ্রম সম্মেলনে বিশ্বব্যাপী কর্মক্ষেত্রে সহিংসতা ও হয়রানী নিরসনে ২০১৯ সালের ১৯ জুন, "Elimination of violence and Harassment in the world of work " শীর্ষক কনভেশন-১৯০ গৃহীত হয়।

সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য তারা আরও বলেন, বাংলাদেশ সরকার, মালিক এবং শ্রমিক প্রতিনিধিগণ অংশগ্রহন করেছেন এবং প্রাপ্ত ৩১৭টি ভোটের মধ্যে বাংলাদেশ সরকার ও শ্রমিক পক্ষ ভোট দেন। আইএলও কনভেনশন ১৯০ এমন একটি কনভেনশন যেখানে নারী পুরুষ উভয়েরই কর্মক্ষেত্রে সহিংসতা হয়রানী নিরসনের কথা বলা হয়েছে। আইএলও কনভেনশন ১৯০ অনুস্বাক্ষর ও সুপারিশমালা বাংলাদেশ সরকারের দ্রুত অনুস্বাক্ষর করা উচিত। যা সহিংসতা প্রতিরোধে ও আইন প্রনয়ণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে, কর্মক্ষেত্রে নারী শ্রমিকের মর্যাদাপূর্ণ অবস্থান আনবে এবং দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে গতিশীল ভূমিকা রাখবে। কর্মক্ষেত্রে সহিংসতা ও হয়রানী রোধে  সমাজে সচেতনতা বাড়াতে   গণমাধ্যমের ভূমিকা অপরিসীম। আপনাদের প্রচার ও প্রচারনা মাধ্যমে আইএলও কনভেনশন ১৯৫২ অনুস্বাক্ষর এর বিষয়টি গুরুত্বর সাথে প্রকাশ করলে বিষয়টির সম্পর্কে সবাই জানবে এবং জনমত সৃষ্টি হবে।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন,  আইটিইউসি-বিসি নারী কমিটির সেক্রেটারী নাজনীন নাহার নিরুপমা, আরো উপস্থিত ছিলেন মহিলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী রহিমা আক্তার সাথী, জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দলের নারী কমিটির সাধারণ সম্পাদক নাসরীন আক্তার ডিনা, বাংলাদেশ ফ্রি ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক সাকি রেজোয়ানা, বাংলাদেশ লেবার পার্টির নারী কমিটির সাধারণ সম্পাদক ফাতেমা আক্তার , বাংলাদেশ সংযুক্ত শ্রমিক ফেডারেশনের নারী কমিটির  সাধারণ সম্পাদক আফসানা আক্তার মোনামিসহ অন্যরা।

ঢাকানিউজ২৪.কম /

সংগঠন সংবাদ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image