• ঢাকা
  • বুধবার, ২৬ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ০৮ ফেরুয়ারী, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

দাফনের প্রায় আড়াই মাস পর লাশ উত্তোলন


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বুধবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১২:৩০ পিএম
দাফনের প্রায় আড়াই মাস পর
লাশ উত্তোলন

মো. জাহিদুল হক মনির, শেরপুর প্রতিনিধি : শেরপুরের যোগিনীমুরা কান্দাপাড়া গ্রামে দাফনের প্রায় আড়াই মাস পর কবর থেকে মো. লিটন মিয়া (৩০) নামের এক ব্যক্তির লাশ ময়নাতদন্তের জন্য উত্তোলন করা হয়েছে।

নিহত লিটনের বড় ভাই হেলালের ছেলে আবির ইসলামের দায়ের করা হত্যা মামলার প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার বেলা দুপুরে পুলিশ ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সালাউদ্দিন বিশ্বাসের উপস্থিতিতে লাশ উত্তোলন করা হয়। তিনি সদর উপজেলার চরশেরপুর ইউনিয়নের যোগিনীমুরা কান্দাপাড়া গ্রামের মৃত হাসেন আলী মন্ডলের ছেলে।    

নিহত লিটন মিয়ার পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ২ অক্টোবর রাতে লিটন মিয়াকে ডেকে নিয়ে যান স্থানীয় শহিদুল ইসলাম ও তার সহযোগীরা। পর দিন সকালে স্থানীয় মসজিদের সামনে তার মরদেহ পাওয়া যায়। তখন ঘটনাটিকে স্বাভাবিক মৃত্যু মনে হওয়ায় নিহতের পরিবার ময়নাতদন্ত ছাড়াই কবর দেয় তাকে। 

পরবর্তীতে পুলিশি তদন্তে জানা যায়, জমি নিয়ে বিরোধের কারণে হিটলারকে হত্যা করেন শহিদুল ইসলাম ও তার সহযোগীরা। এরপর আদালতে অভিযুক্ত শহিদুলসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহত লিটনের ভাতিজা আবির ইসলাম। পুলিশের আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত লিটনের মরদেহ উত্তোলনের পর ময়নাতদন্ত ও সুরতহাল রিপোর্ট করার নির্দেশ দেন। 

নিহত লিটনের স্ত্রী তাছলিমা বেগম বলেন, তার স্বামীকে ডেকে নিয়ে হত্যা করা হয়েছে।তাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে মামলা করতে দেয়নি। তিনি তার স্বামী হত্যার বিচার দাবি করেন।   

এ ব্যাপারে শেরপুর সদর থানার উপপরিদর্শক ও তদন্ত কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বলেন, আদালতের নির্দেশে কবর থেকে লিটন মিয়ার লাশ উত্তোলন ও সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করা হয়েছে। মৃত্যুর প্রকৃত কারণ নির্ণয়ে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক বিভাগে পাটানো হয়েছে।রিপোর্ট পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image