• ঢাকা
  • শনিবার, ১৫ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ২৮ জানুয়ারী, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে বিজয় দিবসে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ 


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শনিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১১:৩৮ এএম
বিজয় দিবসে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ 
নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়

মো. নজরুল ইসলাম, ময়মনসিংহ : বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে যোগদানকে কেন্দ্র করে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের বিবদমান দুটি গ্রুপের মাঝে সংঘর্ষে একজন গুরুতর আহত হয়েছে। তাকে ত্রিশাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এসময় বঙ্গবন্ধু হলে ভাংচুর করা হয়েছে।

এ ঘটনায় ৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থিতিশীলতা ও সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখার লক্ষ্যে ছাত্রলীগসহ শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারিদের আন্তরিক সহযোগীতা কামনা করেন উপচার্য অধ্যাপক ড. সৌমিত্র শেখর

বিশ্ববিদ্যালয় বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার দুপুরে নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু হলে ছাত্রলীগের দুই গ্রæপের কোপাকোপিতে আহত
ছাত্রলীগের নেতা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী তাওহিদ আমদে তুষার (ডায়মন্ড) মারাত্মকভাবে আহত হয়েছে। এতে আরো কয়েকজন আহত হয়েছে। একটি রুম তছনছ করে দিয়েছে। আহত শিক্ষার্থীকে ত্রিশাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়।  বিজয় দিবস পালনের এ দিনে গতবছর ছাত্রলীগ এমন ঘটনা ঘটিয়ে ছিল।

নাট্যকলা বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী আহত তাওহিদ আহমেদ তুষার (ডায়মন্ড) জানান, শুক্রবার সকালে একটি ডাকাডাকির ঘটনা নিয়ে ৩০/৩৫জন শিক্ষার্থী এসে আমার রুমে এসে আমাকে এতে অতর্কিত হামলা চালিয়ে আমাকে রক্তাক্ত যখত করে। এসময় রক্তে আমার রুম ও কাপড়-চোপড় রক্তে ভেসে যায়। আমার ল্যাপটপ ভেঙ্গে ফেলে এবং নগদ ২০ হাজার টাকা নিয়ে যায়। পরে ত্রিশাল হাসপাতালে গিয়ে মাথায় দুটি সেলাই দেয়া হয়। তিনি এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেন তাওহিদ আহমেদ তুষার।

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাকিবুল হাসান রকিব জানান, ১৬ ডিসেম্বর সকালে বিজয় দিবসের প্রোগ্রামে যোগদানের উদ্দেশ্যে তাওহিদ আমদে তুষার (ডায়মন্ড কে ডাকা হয়। এসময়  উত্তপ্ত কথা কাটাকাটি। এর জের ধরে ধরে জুম্মার নামজের সময় মারামারি সংঘটিত হয়েছে। যা অত্যন্ত দুঃখজনক।

নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে উপচার্য অধ্যাপক ড. সৌমিত্র শেখর বলেন, বঙ্গবন্ধু হলে মারামারি ঘটনাটি শুনার সঙ্গে সঙ্গেই হলের প্রোভোষ্ট ও অন্যান্য
কর্মকর্তাদের  সেখানে পাঠাই। ওরা শিক্ষার্থীর রুম ভেঙ্গেছে এবং একজন আহত হয়েছে।  এই অনভিপ্রেত এ ঘটনা শুনে আমরা মর্মাহত হয়েছি।

ড. সৌমিত্র শেখর বলেন, মহান বিজয় দিবসের মর্যাদাকে অক্ষুন্ন রাখা বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া সংগঠন ছাত্রলীগের নৈতিক দায়িত্ব। সেখানে এরকম
রক্তপাত এবং বঙ্গবন্ধুর হলের দরজা ভেঙ্গে ফেলার ঘটনাটি দুঃখজনক। যা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সাথে সাংঘর্ষিক।


মারামারি ঘটনা তদন্তে ৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি :

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্ট্রার কৃষিবিদ ড. মোঃ হুমায়ুন কবীর জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোক্টর ও বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. উজ্জ্বল
কুমার প্রধানকে সভাপতি ও বঙ্গবন্ধু হলের প্রভোস্ট মাসুম হাওলাদারকে সদস্য সচিব করে ৫ সদস্য বিশিষ্ট একটি একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটিকে আগামী তিনদিনের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে রিপোর্ট দিতে বলা  হয়েছে। কমিটির অন্য  সদস্যরা হলেন- পরিচালক (ছাত্রকল্যাণ) অধ্যাপক ড. তপন কুমার সরকার, বঙ্গমাতা হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক নুসরাত শারমিন তানিয়া ও বঙ্গবন্ধু হলের হাউস টিউটর রাকিবুল ইসলাম।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image