• ঢাকা
  • শনিবার, ১৫ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ২৮ জানুয়ারী, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

নির্বাচন কমিশনের সদস্যকে অপমানে ইস্তাম্বুলের মেয়রের কারাদণ্ড


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১০:৫৯ এএম
নির্বাচন কমিশনের সদস্যকে অপমানে
ইস্তাম্বুলের মেয়রের কারাদণ্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: নির্বাচন কমিশনের সদস্যদের অপমান করার অভিযোগে তুরস্কের রাজধানী ইস্তাম্বুলের জনপ্রিয় মেয়র একরাম ইমামোগলুকে আড়াই বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির আদালত।

বুধবার (১৪ ডিসেম্বর) দেশটির আদালত এ রায় দেন। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা জানিয়েছে, এই রায়ের ফলে মেয়র পদ থেকে তাকে অপসারণ করা হতে পারে। 

একরাম তুরস্কের প্রধান বিরোধী দল ধর্মনিরপেক্ষ রিপাবলিকান পিপলস পার্টির (সিএইচপি) একজন নেতা। তুরস্কের রাজনীতিতে তাকে প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানের প্রধান প্রতিপক্ষ হিসেবে দেখা হয়। 

আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তিনি রিসেপ তাইপ এরদোয়ানের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারেন বলে জানিয়েছে তুরস্কের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো। মেয়র একরাম ইমামোগলু এ রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করবেন।

যদি উচ্চ আদালতে এই কারাদণ্ড বহাল থাকে তবে পরবর্তী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না তিনি।  একরাম ইমামোগলু আদালতের রায়ের প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছেন, 'এই রায়ে ইস্তাম্বুলের ১৬ লাখ মানুষকে কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।'

এদিকে মেয়রকে কারাদণ্ড দেয়ায় প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর জানিয়েছে তারা এই ঘটনায় 'গভীরভাবে উদ্বিগ্ন ও হতাশ'। বুধবার স্টেট ডিপার্টমেন্টের উপপ্রধান মুখপাত্র বেদান্ত প্যাটেল বলেছেন, 'এই কারাদণ্ড মানবাধিকারের প্রতি, মৌলিক স্বাধীনতা এবং আইনের শাসনের সঙ্গে অসংগতিপূর্ণ।' 

একরাম ইমামোগলু ২০১৯ সালের মার্চ মাসে মেয়র নির্বাচিত হন। তার জয় এরদোয়ান এবং তার একে পার্টির জন্য একটি বড় ধাক্কা হিসেবে বিবেচিত হয়েছিল। একে পার্টি প্রায় ২৫ বছর ধরে  ইস্তাম্বুল নিয়ন্ত্রণ করেছিল।

কিন্তু সেই নির্বাচনের ফলাফল বাতিল ঘোষণা করা হয়। এরপর ওই বছরের শেষ দিকে ইস্তাম্বুলে পুনরায় নির্বাচন হয়। সেটিতেও জয় পান একরাম। ওই জয়ের পরই আগের নির্বাচনের ফলাফল বাতিলের জন্য নির্বাচনী কর্মকর্তাদের ‘বোকা’ বলে মন্তব্য করেছিলেন একরাম ইমামোগলু। 

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আর্ন্তজাতিক বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image