• ঢাকা
  • শুক্রবার, ৬ কার্তিক ১৪২৮ বঙ্গাব্দ; ২২ অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

আগামী বছর ফেব্রুয়ারি-মার্চে বিপিএল অনুষ্ঠিত হবে


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: সোমবার, ১১ অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ০১:২২ পিএম
আসন্ন বিপিএলে স্বল্প আকারে মাঠে দর্শক প্রবেশের অনুমতি
বিপিএল আসর

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) ক্রিকেট মাঠে ফেরানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি-মার্চে অনুষ্ঠিত হবে প্রতিযোগিতাটির সপ্তম আসর।.

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, বিসিবি গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক। আসন্ন বিপিএলে স্বল্প আকারে মাঠে দর্শক প্রবেশ করার অনুমতি দেওয়ার কথাও ভাবছে ক্রিকেট বোর্ড।.

আইপিএলের পর বাংলাদেশের ফ্রাঞ্চইজি ক্রিকেট তথা বিপিএলের আবিষ্কার ২০১২ সালে। বিপিএলের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত নিয়মিত আসর আয়োজন হলে এ বছর হতো বিপিএলের দশম আসর। কিন্তু নানা ঘাত-প্রতিঘাতে মাঠে গড়ায়নি তিনটি আসর।.

২০১৪ সালে মোহাম্মদ আশরাফুলের ফিক্সিংকাণ্ডে বিপিএল আয়োজন করা হয়নি। এরপর ২০১৮ সালে জাতীয় নির্বাচনে পিছিয়ে যায় টুর্নামেন্টের দিনক্ষণ।.

গত বছর করোনাভাইরাসের কারণে প্রভাবে বিপিএল আলোর মুখ দেখেনি।
 
এব্যাপারে ইসমাইল হায়দার বলেন, 'চ্যালেঞ্জ থাকবেই। এটা যে শুধু বিপিএলেই এমনটা না। প্রত্যেকটা ঘরোয়া টুর্নামেন্ট আয়োজন করাও চ্যালেঞ্জের। আমরা দৃঢ়ভাবে আশাবাদী যে বিপিএলের জন্য সময় বের করতে পারব।'
 
আগামী বছর বিপিএল আয়োজনের পরিকল্পনা ক্রিকেট বোর্ডের। জাতীয় দলের ব্যস্ত সূচির ফাঁকেই হবে এই টুর্নামেন্ট।.

তিনি আরও জানান, 'যত দিন যাচ্ছে ততই ফিক্সশ্চার নিয়ে ঝামেলায় পড়তে হচ্ছে।.

বাংলাদেশের দলের দুই বছর আগে যে খেলা ছিল এখন দেশে আর দেশের বাইরে তিন-চার গুণ বেশি খেলা হয়। যেহেতু জাতীয় দলের খেলোয়াড় ছাড়া টুর্নামেন্ট আয়োজন করা সম্ভব না। তাই উইন্ড বের করা আমাদের জন্য কঠিন।'
 
দর্শকদের নিয়ে মল্লিক বলেন, 'আমার তো চাওয়া থাকবে মাঠে দর্শক থাকুক। তবে জীবনের আগে খেলা না। জীবনটাকে আগে প্রাধান্য দিতে হবে। এরপর বাকি সবকিছু।'
 
বিপিএলের সবশেষ ২০১৯-২০ আসর আয়োজন করা হয়েছিল তিনটি শহরের তিনটি ভেন্যুতে। এবার ঢাকা ও চট্টগ্রামেই খেলা সীমিত রাখার কথা ভাবছে আয়োজক কর্তৃপক্ষ।.

 . .

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

খেলা বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image