• ঢাকা
  • শনিবার, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৩ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

ভারী বর্ষণে ঈদ করতে দুর্ভোগে সিলেটবাসী


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০:৩৬ এএম
সিলেট
সিলেটে ভারী বৃষ্টিপাতে বন্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক: সিলেট ও ​​সুনামগঞ্জে ভারী বর্ষণের পাশাপাশি ভারতের মেঘালয়ে অত্যধিক বর্ষণ, আকস্মিক বন্যা ও জলাবদ্ধতা দুই জেলার হাজার হাজার মানুষের জন্য ঈদুল আজহার আনন্দকে নষ্ট করে দিয়েছে।

 মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সুনামগঞ্জ শহরে ৩৬৫ মিলিমিটার, সিলেট নগরীতে ২৮৫ মিলিমিটার, গোয়াইনঘাটের জাফলংয়ে ২৫২ মিমি এবং তাহিরপুরের লাউড়েরগড়ে ২৫২ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে বলে আমাদের সিলেট প্রতিনিধি জানিয়েছেন।

এদিকে, আজ সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতের মেঘালয়ের চেরাপুঞ্জিতে ১২৬ মিমি বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।ভারী বর্ষণে সিলেট নগরীর শাহজালাল উপসহর, দরগাহ মহল্লা, কাজলশাহ, বাগবাড়ী, পাঠানটুলাসহ বেশ কিছু এলাকায় তীব্র জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে।

শাহী ঈদগাহে ঈদের নামাজে অতিবৃষ্টির কারণে হাতেগোনা কয়েকজনের উপস্থিতি ছিল, যেখানে অনেকে পশু কোরবানির জন্য শুকনো জায়গা খুঁজে পেতে দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে।

আম্বরখানা এলাকার বাসিন্দা জাইন আহমেদ বলেন, "ভারী বৃষ্টির কারণে বিমানবন্দর সড়ক প্লাবিত হয়েছে এবং আমরা ঈদের নামাজের জন্য দরগাহ বা ঈদগাহে যেতে পারিনি। আমাদের স্থানীয় মসজিদে নামাজ পড়তে হয়েছিল। আমরা অনেক কষ্টও করেছি। আমাদের গবাদি পশু কোরবানি করার জন্য একটি শুকনো জায়গা খুঁজে বের করতে।"


সিলেটের ১৩টি উপজেলার নিচু এলাকা প্লাবিত হয়ে প্রায় দুই লাখ মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।আজ বিকেল ৩টায় কানাইঘাটে সুরমা বিপদসীমার ৭৪ সেন্টিমিটার ওপরে, কুশিয়ারা ফেঞ্চুগঞ্জে ৭৩ সেন্টিমিটার ওপরে এবং সারি জৈন্তিয়াপুরের সারিঘাটে বিপদসীমার ২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল।

এদিকে সুনামগঞ্জের সব প্রধান নদ-নদীর পানি বিভিন্ন পয়েন্টে বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ায় নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।

আজ সকাল ৬টায় সুনামগঞ্জে সুরমা সুনামগঞ্জ শহর এলাকায় ১৬ সেন্টিমিটার এবং ছাতকে ১০৩ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।বন্যা পরিস্থিতি সবচেয়ে খারাপ ছাতক, দোয়ারাবাজার ও সুনামগঞ্জ সদর উপজেলায়, আরও উপজেলা দ্রুত প্লাবিত হচ্ছে।বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র (বিডব্লিউডিবি) । আজ আগামী ২৪ থেকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে সিলেট অঞ্চল এবং ভারতের পার্শ্ববর্তী উচ্চভূমিতে ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দিয়েছে।

পূর্বাভাসে আরও সতর্ক করা হয়েছে যে সুরমা, কুশিয়ারা, সারি, গোয়াইন, জুডুকাটা, ঝালুখালী, মনু ও খোয়াই নদীর পানি দ্রুত ফুলে উঠবে এবং সিলেট, সুনামগঞ্জ ও মৌলভীবাজারের আরও নিচু এলাকা প্লাবিত হবে।

ঢাকানিউজ২৪.কম / এসডি

আরো পড়ুন

banner image
banner image