• ঢাকা
  • রবিবার, ১০ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ; ২৩ জানুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

পাঁচবিবিতে সহকারি প্রিজাইডিং কর্মকর্তা প্রত্যাহার


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ০৬ জানুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৯:০৪ এএম
সকাল ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে
up election logo

পাঁচবিবি (জয়পুরহাট) প্রতিনিধিঃ  ৫ জানুয়ারি পঞ্চম ধাপে ইউপি নির্বাচনে জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার আয়মা-রসুলপুর হাজী মনির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের একটি কক্ষে ভোট চলাকালে নৌকা মার্কার ভোট দেখে নিতে বাধা দেয়ায় ফেরদৌস আরা লিপি নামের এক সহকারি প্রিজাইডিং কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

বুধবার আয়মা-রসুলপুর ইউনিয়নে ভোট চলাকালে সকাল ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে।  

সহকারি প্রিজাইডিং কর্মকর্তা ফেরদৌস আরা লিপি জানান, আয়মা-রসুলপুর ইউপি নির্বাচনে তিনি হাজী মনির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে সহকারি প্রিজাইডিং কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন। ভোট কেন্দ্রে ভোটারদের ব্যালট খুলে খুলে দেখে নেয়ার সময় তিনি এক ব্যক্তিকে বাধা দেন। পরে তিনি জেনেছেন ওই ব্যাক্তি নৌকার এজেন্ট। কিছুক্ষণ পর একজন অন্ধ ব্যক্তি ওই কক্ষে ভোট দিতে এলে সহকারি প্রিজাইডিং কর্মকর্তা হিসেবে তাকে ভোট প্রদানে সহযোগীতা করেন। এ সময় বাধা দেওয়া ওই ব্যক্তি স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষে সিল মারার অভিযোগ তুলে অশ্লীল ভাষায় গালাগাল করেন। পরবর্তীতে  নৌকার প্রার্থী জাহিদুল আলম বেনু অভিযোগ করার পর ওই ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং কর্মকর্তা নুরনবীর নির্দেশে ভোট চলাকালিন সময়ে বেলা ১১টার দিকে তাকে প্রত্যাহার করা হয়।

আয়মা-রসুলপুর ইউনিয়নের নৌকা মার্কার প্রার্থী জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি জাহিদুল আলম বেনু বলেন,‘ফেরদৌস আরা লিপি প্রতিপক্ষের আনারস মার্কায় ভোট দিতে সহযোগীতা করছেন। প্রতিবাদ করায় তিনি আমার এজেন্টকে বের করে দিয়েছেন। এজন্য তাকে প্রত্যাহারের আবেদন করেছি।   

ফেরদৌস আরা লিপি বলেন,‘আমি সরকারি কর্মকর্তা হিসেবে সরকারি আদেশ পালন কে নৌকার লোক আর কে আনারস মার্কার লোক আমি চিনি না। সহকারি প্রিজাইডিং কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করার সময় এক নম্বর কক্ষে এক ব্যক্তি ব্যালট খুলে খুলে দেখার দৃশ্য দেখে আমি তাকে বাধা দিয়েছি। এটাই আমার অপরাধ’। এই বলে তিনি কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। তিনি পাঁচবিবির দিবাকরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

ওই কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তা মশিউর রহমান বলেন,‘সহকারি প্রিজাইডিং কর্মকর্তা ফেরদৌস আরা লিপির বিরুদ্ধে ভোট প্রদানে অক্ষম ভোটারদের হয়ে আনারস মার্কায় সিল মারার অভিযোগ করেন নৌকার প্রার্থী জাহিদুল আলম বেনু।

রিটার্নিং কর্মকর্তা নুরনবী বলেন,‘প্রিজাইডিং কর্মকর্তার মাধ্যমে অভিযোগ পেয়ে ফেরদৌস আরা লিপিকে সহকারি প্রিজাইডিং কর্মকর্তার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

ঢাকানিউজ২৪.কম /

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image