• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ১৬ আগষ্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

মিঠামইন ও ইটনায় পানি বন্দি মানুষরা ডাকাত আতঙ্কে


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শনিবার, ০২ জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১২:২২ পিএম
পানি বন্দি মানুষরা ডাকাত আতঙ্কে
মিঠামইন ও ইটনার বন্যাকবলিত এলাকা

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি :  মিঠামইন ও ইটনার বিভিন্ন গ্রামে গত ১ সাপ্তাহ যাবৎ হাজার হাজার পানি বন্দি পরিবার ডাকাত আতঙ্কে ভূগছে।হাওরের মাঝখানে ছোট ছোট গ্রাম পানির উপর ভাসছে। এমনিতেই বানভাসি পরিবার নতুন করে পানি আসার আতঙ্কে রয়েছে। এরপর রাতের আঁধারে এক শ্রেণীর জলদস্যুরা ইঞ্জিন চালিত ট্রলার নিয়ে দেশীয় অস্ত্র সহ পানি বন্দি গ্রামের পাশে মহরা দিচ্ছে বলে গ্রামবাসীরা অভিযোগ করেছেন।

গত ১লা জুলাই শুক্রবার রাতে মিঠামইন উপজেলার ঘাগড়া ইউনিয়নের সাবাসপুর, নাসির পুর,কান্দা,ঢাকী ইউনিয়নের গোবিন্দ পুর,কোলাখানি ও গোপদিঘী ইউনিয়নের নতুন শরীফপুর,অলুয়া গ্রামে হানা দেওয়ার চেষ্টা করে। গ্রামবাসী ডাকাত দলের ট্রলারের উপস্থিতি টের পেয়ে মসজিদে মাইকিং করে দেন।সকলেই যেনো রাত জেগে পাহাড়া দেন।

মিঠামইনের ঘাগড়া ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের ইউ,পি সদস্য মোঃকবির মিয়া জানান,গত ১লা জুলাই শুক্রবার রাতে সাবাস পুর গ্রামে ডাকাতরা হানা দেয়।মানুষ জন টের পাওয়ায় পরে ট্রলার নিয়ে ঘটনা স্হল ত্যাগ করে।তিনি আরও জানান প্রতিটি গ্রামে পাহাড়ার ব্যবস্হা করা হবে।অন্য দিকে ইটনা উপজেলার শহিলা, বেতেগা,ধনপুর,দাসপাড়া,আমিরগঞ্জে ডাকাতরা ডাকাতির চেষ্টা চালায়।

মিঠামইনের কাটখাল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তাজুল ইসলাম জানান, তিনি কাটখাল পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের কর্মকর্তা সহ ট্রলার নিয়ে প্রতিটি গ্রামে গ্রামে গিয়ে মাইকিং করে বানভাসিদের বলেন,ডাকাতদের ভয় না পাওয়ার জন্য। রাতের বেলায় সকল বানভাসি পরিবারদেরকে সর্তক থাকার আহ্বান জানান। ডাকাতের উপস্থিতি টের পেলেই যেনো তাদের উপর ঝাপিয়ে পড়ে।

অষ্ট্রগ্রাম সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার সামুয়েল সাংমার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বিষয়টি প্রথন শুনেছেন।এব্যাপারে ব্যাবস্হা নেওয়ার জন্য ইটনা অষ্ট্রগ্রাম থানা পুলিশকে দৃষ্টি রাখার জন্য বলবেন।এছাড়াও সামাজিক ভাবে প্রত্যােক এলাকায় পাহাড়া সহ প্রতিরোধের ব্যবস্হা করতে হবে।

ঢাকানিউজ২৪.কম / বিজয়কর রতন/কেএন

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image