• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২১ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ০৩ ফেরুয়ারী, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

নাগরিকদের সেবা বৃদ্ধির মাধ্যমে এগিয়ে যাচ্ছে মসিক : মেয়র টিটু 


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ১১:৪৩ এএম
নাগরিকদের সেবা বৃদ্ধির মাধ্যমে এগিয়ে যাচ্ছে মসিক
মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটু

মো. নজরুল ইসলাম, ময়মনসিংহ : ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন (মসিক) ১৯ তম কর্পোরেশন সভায় মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটু বলেছেন, বিগত বছরগুলোতে নাগরিকদের উন্নয়নে আমরা সুষ্ঠুভাবে আমাদের দায়িত্ব পালনের চেষ্টা করেছি। এর ফলে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি বাস্তবায়নে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন সিটি কর্পোরেশন সমূহের মধ্যে ২য় হয়েছে৷ নাগরিকদের সেবা বৃদ্ধির মাধ্যমে এ অগ্রযাত্রাকে আরও এগিয়ে নিতে হবে।

শহীদ শাহাবুদ্দিন মিলনায়তনে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন (মসিক) এর ১৯ তম কর্পোরেশন সভা ০৯ জানুয়ারি দুপুরে অনুষ্ঠিত হয়। এ সভার সভাপতিত্ব করেন মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটু। 

সভায় পূর্ববর্তী ১৮ তম সভার কার্যবিবরণী দৃঢ়ীকরণ, ২০২৪-২০২৫ অর্থবছর হতে ২০২৮-২০২৯ অর্থবছর পর্যন্ত সাধারণ এসেসমেন্ট কার্যক্রম, রাজস্ব আদায় বৃদ্ধি, জনস্বাস্থ্য বিষয়ক কার্যক্রম, পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম ও অন্যান্য বিবিধ বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

এছাড়াও কাউন্সিলর কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে মাননীয় মেয়র বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শী টিকা কার্যক্রমে কোভিড ১৯ এ বাংলাদেশ কোভিড মোকাবেলায় সফলতা দেখিয়েছে। তবে এখনও বহু মানুষ ৩য় ও ৪র্থ ডোজের টিকা নেননি। এ হারকে বৃদ্ধি করতে হবে। সচেতনতামূলক প্রচারণাকে আরও জোরদার করতে হবে। 

তিনি আরও বলেন, মশক নিধনে মানুষের সচেতনতাকে বৃদ্ধি করতে হবে। ডেঙ্গু প্রতিরোধে ঘরে ঘরে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে। 

ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনে সম্প্রতি চালু হওয়া ৩ টি স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র ও ১ টি নগর মাতৃসদন প্রসঙ্গে মেয়র বলেন, এসব স্বাস্থ্যসেবাকেন্দ্র থেকে প্রায় ২৫ হাজার মানুষকে সেবা দেওয়া হয়েছে। নাগরিক স্বাস্থ্যসেবা সুরক্ষায় এটা আমাদের বড় সুযোগ। যারা এ স্বাস্থ্য সেবা কেন্দ্র সম্পর্কে জানে না তাদেরকে এ সম্পর্কে জানাতে হবে। 

মাননীয় মেয়র জানান, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের মেডিকেল বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় প্রিজম ফাউন্ডেশন নামক প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তি করা হয়েছে। আগামী ৬-৭ মাসের মধ্যে প্রতিষ্ঠানটি কাজ শুরু করবে। জনস্বাস্থ্য সুরক্ষায় এটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

এছাড়া, যানজট নিরসনে অটোবাইক-অটোরিকশা নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে এবং কেউ রঙ বা লাইসেন্স জালিয়াতি করলে তার বিরূদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে এমন জানান মেয়র।

মাননীয় মেয়র আরও বলেন, ট্রাফিক আইল্যান্ড সহ বিভিন্ন স্থানে প্যানা পোস্টার নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। সরকারের এ সংক্রান্ত আইন রয়েছে৷ সকলের সহযোগিতায় শহরের সৌন্দর্য বৃদ্ধিতে কাজ করতে হবে। 

সভায় প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ইউসুফ আলী, প্যানেল মেয়র ০১ মোঃ আসিফ হোসেন ডন, প্যানেল মেয়র ০৩ সামীমা আক্তার সহ অন্যান্য কাউন্সিলরবৃন্দ, ভারপ্রাপ্ত সচিব অন্নপূর্ণা দেবনাথ, প্রধান প্রকৌশলী মোঃ রফিকুল ইসলাম মিঞা, আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা, বিভাগ ও শাখা প্রধানগণ ও অন্যান্য কর্মকর্তা কর্মচারবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন ।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image