• ঢাকা
  • সোমবার, ৪ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ; ১৭ জানুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

হেলেঞ্চা স: প্রা: বিদ্যালয়টি অন্যের জমিতে দাড়িয়ে আছে


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১১:৩৪ এএম
বিদ্যালয়টি অন্যের জমিতে
বিদ্যালয়টি

বাকেরগঞ্চ প্রতিনিধি: বাকেরগঞ্জ উপজেলার ১০০নং হেলেঞ্চা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নামে কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান থেকে জমি দান করা বা কবলা দেয়ার কোন দলিল অদ্যবধি পাওয়া যায় নাই।

১৯৬৪ইং সালে এলাকার কিছু শিক্ষানুরাগী ব্যক্তির ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় স্থানীয়ভাবে বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার প্রস্তাব করা হলে তৎকালীন বরিশাল জেলার স্কুল বোর্ডের দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তারা এলাকাটি পরিদর্শন করেন এবং তদানিন্তন পূর্ব পাকিস্তান পালামেন্টের সেক্রেটারী মরহুম মজিবর রহমান মোল্লা সেই সময়ের বিশিষ্ট শিক্ষনুরাগী আলহাজ্ব আবদুর রশিদ মোল্লা, শ্রী গৌরঙ্গ মোহন দত্ত, শ্রী অনীল চন্দ্র দত্ত প্রমুখ ও ব্যক্তিগণ যদুশীল নামের এক ব্যক্তির পরিত্যক্ত ভিটায় স্কুল করার প্রস্তাব দেন।    

সকলের সম্মতিক্রমে সেখানে স্কুল প্রতিষ্ঠা করা হয়। যা স্বাধীনতা পরবর্তী বঙ্গবন্ধু সরকার জাতীয়করণ করেন এবং বিদ্যালয়ের নাম হয় হেলেঞ্চা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। আজ পর্যন্ত কোন ব্যক্তি স্কুলের নামে জমি দলিল করে দেন নাই এবং স্কুলের নামে কোন দলিল ও খোঁজাখুজি করে পাওয়া যায় নাই। এক কথায় বলা চলে যে পরের জমিতেই দাড়িয়ে আছে বিদ্যালয়টি।

তাই এই জমির জটিলতার কারণে এখন বিদ্যালয়ের সীমানা প্রাচীর করা সম্ভব হচ্ছে না। সীমানা প্রাচীর করার জন্য সরকারীভাবে জমির দলিল চাওয়া হয়। অনেক সময় পার্শ্ববতী জমির মালিকেরা বিদ্যালয় ক্যাম্পাসের জমি দাবী করে। তাহলে কি বিদ্যালয়ের নামে নির্দিষ্ট কোন দলিল থাকবে না।

অনেক ছাত্রছাত্রীর অভিভাবক খোবের সাথে বলেন বিদ্যালয়ের নামে জমি দান না করেও ম্যানেজিং কমিটিতে দাতা সদস্য হচ্ছেন একটি পরিবারের লোক। এহেন পরিস্থিতিতে দাতা সদস্য হতে হলে অবশ্যই বিদ্যালয়ের নামে জমি দলিল করে দিতে হবে।

এই প্রয়োজনীয়তা মনে করেন অভিবাবকবৃন্দ ও এলাকার সুশীল সমাজ। অন্যথায় যে কোন সময় বিদ্যালয়ের খেলার মাঠসহ আশপাশের জমি বেহাত হওয়ার সম্ভাবনা আছে।

 

ঢাকানিউজ২৪.কম / মোঃ জাহিদুল ইসলাম /কেএন

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image