• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৮ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

ডোনাল্ড ট্রাম্পকে আংশিক দায়মুক্তি দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বুধবার, ০৩ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ০৬:৩৫ পিএম
এটি গণতন্ত্রে ঝুঁকি তৈরি করেছে
মার্কিন সুপ্রিম কোর্ট

নিউজ ডেস্ক:  সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে আংশিক দায়মুক্তি দিয়েছেন দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। প্রেসিডেন্ট থাকা অবস্থায় যেসব দাপ্তরিক অপরাধমূলক পদক্ষেপ তিনি নিয়েছেন, সেসবের ক্ষেত্রে দায়মুক্তি পাবেন । এই রায়ের ফলে ভবিষ্যতে প্রেসিডেন্টরা অবাধে অপরাধমূলক কার্যকলাপে জাড়িয়ে যেতে পারেন বলে আশঙ্কা অনেক বিশ্লেষকের। তাদের ভাষ্য, এটি প্রেসিডেন্টকে এমন একজন রাজায় উন্নীত করেছে, যিনি সহজেই বিচার এড়াতে পারেন। এটি দেশের গণতন্ত্রের জন্য ঝুঁকি। খবর ওয়াশিংটন পোস্টের।
 
সেন্টার ফর ইলেকশন ইনোভেশন অ্যান্ড রিসার্চের নির্বাহী পরিচালক ডেভিড বেকার বলেন, ভবিষ্যতে ওভাল অফিসে বসে কোনো প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বাধা বা আমেরিকান জনগণের ইচ্ছার বিরুদ্ধে ক্ষমতায় থাকার মতো অপরাধ করতে পারেন। এটি গণতন্ত্রে ঝুঁকি তৈরি করেছে। 

ইউনিভার্সিটি অব নটর ডেমের আইনের অধ্যাপক ডেরেক মুলার বলেন, এই রায় প্রেসিডেন্টদের বিচার করা কঠিন করে তোলে। যদিও তাদের একেবারে মুক্তি দেয় না। তবে এটি অবশ্যই প্রেসিডেন্টকে আরও সুরক্ষা দেয়। 

ট্রাম্পের আগে কোনো বর্তমান বা সাবেক প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে কখনও অপরাধের অভিযোগ আনা হয়নি। ২০২০ সালের নির্বাচনের ফল পাল্টে দেওয়ার চেষ্টা, যুক্তরাষ্ট্রের পার্লামেন্ট ভবন ক্যাপিটল হিলে হামলায় উস্কানি, পর্নো তারকা স্টর্মি ড্যানিয়েলসকে মুখ বন্ধ রাখতে ঘুষ প্রদান, কর ফাঁকি এবং রাষ্ট্রের গোপন নথি সরানোর অভিযোগে সুপ্রিম কোর্টসহ বিভিন্ন আদালতে বেশ কয়েকটি মামলা চলছে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে। তিনি যদি আবার ক্ষমতায় আসেন, তাহলে এ মামলায় বিচার বন্ধের চেষ্টা করতে পারেন, এমনকি নিজেকে ক্ষমা করেও দিতে পারেন। 

সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান বিচারপতি জন রবার্টসের নেতৃত্বে ছয়জন বিচারপতির একটি বেঞ্চ যে রায় ঘোষণা করেছেন, তাতে বলা হয়েছে, দেশের প্রেসিডেন্টের পদে থাকা অবস্থায় যেসব দাপ্তরিক অপরাধমূলক পদক্ষেপ ট্রাম্প নিয়েছেন, সেসবের ক্ষেত্রে দায়মুক্তি ভোগ করবেন । তবে প্রেসিডেন্ট হওয়ার আগে যেসব অপতৎপরতায় সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ উঠেছে, সেসবের জন্য বিচারের মুখোমুখি হতে হবে ট্রাম্পকে। 

রায়ে প্রধান বিচারপতি বলেন, সরকারি কাজের ক্ষেত্রে প্রেসিডেন্ট আইনের ঊর্ধ্বে থাকা একজন রাজা। বিস্তৃত ক্ষমতা ব্যবহারের ক্ষেত্রে তাঁকে অবশ্যই জবাবদিহি করতে হবে। এটি তাঁকে আইনের ঊর্ধ্বে স্থান দেয় না।

রায়ের পর হোয়াইট হাউসে দেওয়া এক তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, এই দেশ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে সেই মূলনীতির ওপর, যেখানে সবাই আইনের সামনে সমান।কিন্তু সুপ্রিম কোর্ট যে রায় ঘোষণা করলেন, তা শুধু এই দেশের বিচার ব্যবস্থার জন্য একটি বিপজ্জনক নজিরই নয়, বরং মার্কিন জনগণের জন্যও ক্ষতিকর। কারণ দেশের জনগণ আজ থেকে দেখছে যে, একজন ব্যক্তি, যিনি ক্যাপিটল হিলে হামলার জন্য নিজের অনুসারীদের পাঠিয়েছিলেন, তিনি দায়মুক্তি ভোগ করছেন।
 
এদিকে, সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পর ট্রাম্পের আইনজীবীরা মুখ বন্ধ রাখতে পর্নো তারকা স্টর্মি ড্যানিয়েলসকে ঘুষ দেওয়ার মামলায় দোষী সাব্যস্ত এবং সাজা বিলম্বিত করতে অনুরোধ জানিয়ে নিউইয়র্কের বিচারপতি জুয়ান এম মার্চানকে চিঠি দিয়েছেন। 

ঢাকানিউজ২৪.কম / এইচ

আরো পড়ুন

banner image
banner image