• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৮ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রেলওয়ের জলশায় ভরাটের প্রতিবাদে এলাকাবাসীর মানববন্ধন


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: সোমবার, ০৮ মে, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ০১:৫৯ পিএম
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রেলওয়ের
জলশায় ভরাটের প্রতিবাদে এলাকাবসীর মানববন্ধন

মনিরুজ্জামান মনির, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রেলওয়ের জলাশয়ে অবৈধভাবে বালু ভরাট করায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ করেছে স্থানীয় এলাকাবাসী।  রবিবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার বড় হরন এলাকার স্থানীয় শতাধিক এলাকাবাসী এই মানববন্ধন করেন। মাবনবন্ধনে অংশ নেওয়া স্থানীয়রা জানান, আশিকুল ইসলাম ও উম্মেদ গংসহ এলাকার কিছু ভূমিদস্যু রেল লাইনের জলাশয়ের জায়গা লিজ নেওয়ার কথা বলে প্রকাশ্যেই ভেকু দিয়ে বালু ফেলে ভরাট করছেনে। এতে স্থানীয় লোকজনের মাঝে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

তারা আরও জানান, সরকারি রেলওয়ের জায়গা লিজ নেওয়ার নাম করে ভূমিদস্যুরা যেন জলাশয় ভরাট করতে না পারে। সে বিষয়ে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষন করেন তারা।

এসময় এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন, নাটাই দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান সদস্য বেলাল মিয়া, আমেনা বেগমসহ এলাকার গণ্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গ। মানববন্ধনে এলাকার শতাধিক নারী পুরুষ অংশগ্রহণ করেন।

স্থানীয়রা জানান, আশিকুল ইসলাম বড় হরণ ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার পরিচালনা কমিটির সভাপতি  ও উম্মেদ হাসান অভিভাবক সদস্য। রেলের জলাশয়ের ৩৮ শতক জায়গা মৎস্য লিজ এনেছেন হোসেন মিয়া। এছাড়া হোসেন মিয়া, আব্দুল্লাহ আল বাকি বিল্লাহ, আওয়াল মিয়া, সাবেক ইউপি সদস্য সালাম মিয়া,  দেলোয়ার হোসেন, শাহনূর ইসলাম ও হানিফ মিয়া রেলওয়ের কাছ থেকে সাড়ে ৩৮ শতক জায়গা বানিজ্যিক লিজ এনেছেন। কিন্তু তাদের জায়গা আশিকুল ও উম্মেদ দখলে নিয়েছেন।

হোসেন মিয়ার লিজ নেওয়া জলাশয়ের জায়গায় বালু ফেলে ভরাট করছেন আশিকুল ও উম্মেদ। তবে অভিযোগ অস্বীকার করে উম্মেদ হাসান বলেন, জলাশয়ের জায়গাটি আমরা মাদ্রাসার নামে রেলওয়ের কাছ থেকে বানিজ্যিক লিজ এনেছি। জায়গাটি বালু ফেলে ভরাটের জন্য রেলওয়ের কানুনগো আমাদের মৌখিক নির্দেশ দিয়েছেন।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image