• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ৪ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ; ১৮ জানুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

গৌরীপুরে ভিজিডি’র চালের কার্ডধারীদের বিক্ষোভ


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: রবিবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ০৫:০১ পিএম
ভিজিডি কার্ডধারীদের বিক্ষোভ

গৌরীপুর প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহের গৌরীপুরে দুঃস্থ মহিলা উন্নয়ন (ভালনারেবল গ্রæপ ডেভেলপমেন্ট) ভিজিডি কর্মসূচীর ৩মাসের চাল না দেয়ায় বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে সুবিধাভোগীরা।

রোববার (১৯ ডিসেম্বর) উপজেলার ২নং গৌরীপুর ইউনিয়নের সুবিধাভোগীরা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে এ বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে।

মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধিনে ভালনারেবল গ্রুপ ডেভেলপমেন্ট (ভিজিডি) কর্মসূচীর আওতায় প্রতি কার্ডধারীকে প্রতিমাসে ৩০ কেজি করে চাল দেয়ার কথা থাকলেও ৩মাস যাবত চাল না পেয়ে বিক্ষোভকারীরা অবিলম্বে তাদের চাল দেয়ার দাবী জানায়। তাঁরা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

উপজেলা মহিলা বিষয়ক অফিসার সুলতানা বেগম আকন্দ জানান, উপজেলার ২নং গৌরীপুর ইউনিয়নের ২৮২জনের প্রত্যেকের ৩০ কেজি করে প্রতিমাসে ৮.৪৬ টন চালের নির্ধারিত ডিও (গোদাম থেকে উত্তোলনের অনুমোদনপত্র) দেয়া হয়েছে। সেপ্টেম্বর মাসের ডিও ওই মাসের ৯তারিখ, অক্টোবর মাসের ডিও ওই মাসের ৭তারিখ ও নভেম্বর মাসের ডিও ওই মাসের ৭ তারিখে প্রদান করা হয়েছে।

ইউপি নির্বাচন হওয়ায় ডিসেম্বর মাসের ডিও ইউনিয়ন পরিষদের সচিব বরাবরে প্রেরণের প্রস্তুতি চলছে। চালবঞ্চিত নারীদের অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ পরিদর্শন করে এসেছি। চাল বিতরণের রেজিস্টার কেউ দেখাতে পারেনি। চাল উত্তোলন প্রসঙ্গে খাদ্যগুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. বাবুল মিয়া জানান, সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসের চাল নির্ধারিত সময়ে চেয়ারম্যান উত্তোলন করেছেন। নভেম্বর মাসের চাল গুদামে সংরক্ষিত রয়েছে।

চালবঞ্চিত ১৩৬নং কার্ডধারী মো. নজরুল ইসলামের স্ত্রী রুপালী আক্তার জানান, বর্তমান চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনের নিকট প্রতিমাসেই চাল আনতে গিয়েছি। শুধু চাল বিতরণের তারিখ করেন, চাল দিচ্ছেন না। ১৬৮নং কার্ডধারী কামাল হোসেনের স্ত্রী রিনা আক্তার জানান, ডিসেম্বরসহ চারমাস হলে যাচ্ছে চাল দিচ্ছে না।

অবিলম্বে চাল বিতরণের দাবি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন সুবিধাভোগী রাবিয়া আক্তার, পারভীন আক্তার, আমিনা বেগম, মোছা. মদিনা আক্তার, মাজেদা আক্তার, তানজিনা আক্তার, জুলেকা খাতুন, রিনা বেগম, দুলেনা আক্তার, রাবিয়া খাতুন, সেলিনা বেগম, কল্পনা আক্তার, নুর জাহান, মোছা. হোসনেয়ারা, মোছা. জেলী আক্তার, মোছা. কল্পনা বেগম, মোছা. ফুলবানু, রিনা আক্তার প্রমুখ। এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাসান মারুফ জানান, চাল উত্তোলনের পরেও সুবিধাভোগীরা না পাওয়ায় ২নং গৌরীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেনকে কারণ দর্শানোপত্র দেয়া হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে ২নং গৌরীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের গুদামে ২মাসের চাল সংরক্ষিত রয়েছে। চাল বিতরণ করতে গেলেই অতিরিক্ত ১/২লাখ টাকার চাল কিনে প্রতিবার আমার দিতে হয়। ২৬ডিসেম্বর নির্বাচন হয়ে গেলে অবশ্যই ২৮ডিসেম্বরের মধ্যে সবার চাল বিতরণ করা হবে।

ঢাকানিউজ২৪.কম / শফিকুল ইসলাম মিন্টু/কেএন

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image