• ঢাকা
  • বুধবার, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ১০ আগষ্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে স্কুলে আসতে পারছেন না প্রধান শিক্ষক


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শনিবার, ০২ জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৬:৩২ পিএম
মেমোরিয়াল পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রা
স্কুলে আসতে পারছেন না প্রধান শিক্ষক

দুর্গাপুর (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি : নেত্রকোনা জেলার দুর্গাপুর উপজেলার মহারাজা কুমুদচন্দ্র মেমোরিয়াল পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক এস এম আলমগীর হাছানের দুর্ব্যবহার ও দুর্নীতির জন্য শিক্ষার্থীদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এরই প্রেক্ষিতে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করে শিক্ষকদের কক্ষে তালাবন্ধ করে দেন।

জানা যায়, গত মঙ্গলবার ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক এস এম আলমগীর হাছানের অপসারনের দাবিতে মানববন্ধন ও অবস্থান কর্মসূচীর ঘোষনা করে শিক্ষার্থীরা। দুর্গাপুর পৌরশহরে প্রেসক্লাব মোড়ে এ কর্মসূচী পালন করা হয়।

এরই প্রেক্ষিতে অল্প কিছুক্ষণের মধ্যেই বিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষকরা এসে শিক্ষার্থীদের জানায় ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক তিনি পদ থেকে স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করবেন। এতে ছাত্ররা আন্দোলন সমাপ্তির ঘোষনা করেন।

২দিনের সময় নিয়ে অন্য জায়গায় বদলি হবে এমনটাই শান্তনা দিলেও ২দিন পার হয়ে গেলেও পদত্যাগ করেননি এমন কি সময় বাড়িয়ে ১৯ জুলাই পর্যন্ত সময় নেন। আন্দোলনকারী ছাত্রদের সাথে কথা বলে জানা যায়, ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বিভিন্ন সময়ে ছাত্রদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে হয়রানি করেন। খেলার জন্য টাকা নিয়ে ক্রীড়া প্রতিযোগিতা করেন  নাই। এবারের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠানের জন্য ছাত্রদের কাছ থেকে টাকা নিয়েও বিদায় অনুষ্ঠানের আয়োজন করেননি।

গত পাঁচ-ছয় মাস পূর্বে এবার যারা এসএসসি পরীক্ষা দিবে তাদের ক্লাশ নেওয়া বন্ধ করে দেন। এ বিষয়ে ছাত্ররা যাতে আন্দোলন করতে না পরে তাদেরকে প্র্যাকটিকেল ও
এসাইনমেন্টে মার্ক কম দিবে বলে ভয়ভীতি দেখান। এ দিকে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে পড়ে তাদের দাবী মেনে মৌখিক ভাবে মেনে নিলেও তা বাস্তবায়ন হয়নি।

তাছাড়াও ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শারিরীক ও মানসিকভাবে অসুস্থ। সে ছাত্রদেরও খারাপ ভাষায় বকাবকি করে এমন কি ছাত্রদের অবিভাবকের সাথে ভালো আচরন করেন না। বর্তমানে  দায়িত্বপ্রাপ্ত সিনিয়র শিক্ষক মাহমুদুল হাসান বলেন, শিক্ষার্থীদের আন্দোলন মেনে নিয়ে আমাকে ২দিনের দায়িত্ব দিয়ে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আলমগীর স্যার ছুটিতে গিয়ে অন্যজায়গায় বদল হয়ে যাবেন এবং এখান থেকে পদত্যাগ করবেন বলেছিলেন তবে এখন আমাকে আবার ১৯ তারিখ পর্যন্ত দায়িত্ব দিয়েছেন।

ঢাকানিউজ২৪.কম /

শিক্ষা বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image