• ঢাকা
  • বুধবার, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৭ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

হিন্দু ধর্ম ও ব্যক্তিদের নিয়ে অশ্লীল মন্তব্য করায় পুলক ঘটকের নামে মামলা


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৭:৪৩ পিএম
জে কে পাল
বামে আইনজীবী ড. জে কে পাল, ডানে অধ্যাপক হীরেন্দ্রনাথ বিশ্বাস

নিউজ ডেস্ক: সনাতন হিন্দু ধর্ম নিয়ে কুরুচিপূর্ণ ও সুপ্রিমকোর্টের বিশিষ্ট আইনজীবী ড. জে কে পাল এবং অধ্যাপক হীরেন্দ্র নাথ বিশ্বাসকে জড়িয়ে অশ্লীল মন্তব্যকারী সাংবাদিক পুলক ঘটকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলা করা হয়েছে। তবে দুদিন পার হলেও এই মামলা নিয়ে আদালত আদেশ দিচ্ছে না। পুলক ঘটক তার পরিচিত একাধিক লোক নিয়ে আদালতে প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করছে। এদিকে ঘটনা সম্পর্কে অবগত নন বহু সাংবাদিক। 

প্রসঙ্গত হিন্দু আইন নিয়ে সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হিন্দু শাস্ত্র বিশারদ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন পুলক ঘটক। অথচ তার লেখা পড়ার দৌড় কতদূর সেই সম্পর্কে কোনো সাংবাদিকই কিছু জানে না। এমন কি, বর্তমানে তিনি দেশের কোন মিডিয়াতে কর্মরত তাও কেউ জানে না। 

ইদানীং ফেসবুকে তাকে হিন্দু আইন নিয়ে সরব হতে দেখা যায়। তিনি হিন্দু আইন নিয়ে ডিবেট করেন। অথচ তার আইনে কোনো ডিগ্রি নাই। 

পুলক ঘটক ফেসবুকে প্রখ্যাত আইনজীবী ড. জে কে পাল ও অধ্যাপক হীরেন্দ্র নাথ বিশ্বাসকে জড়িয়ে অশ্লীল মন্তব্য করে বসেন। তার এই মন্তব্য বহু মানুষ দেখেছে ও শেয়ার করেছে। এতে হিন্দু ধর্ম ও হিন্দু নারীদের সম্পর্কে  উচ্চারণে অযোগ্য শব্দ ব্যবহার করা হয়েছে। এতে সংক্ষুব্ধ হয়ে আদালতে মামলা করেছেন ড. জে কে পাল। পুলক ঘটক এখন মামলা থেকে বাঁচতে সাংবাদিকতাকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করছেন। 

এদিকে সাংবাদিকদের একাংশ বলেছে তার নিজস্ব মতামতের জন্য সাংবাদিক সমাজ দায়ী না। তিনি যদি অপরাধ করে থাকেন তার দায় সাংবাদিক সমাজ নেবে না। আইন তার নিজস্ব গতিতে চলবে। আদালত যদি মনে করেন তিনি সামাজিক মাধ্যমে মন্তব্য করে সমাজে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছেন বা করতে চেয়েছেন তার জন্য তাকে অবশ্যই জবাবদিহিতা করতে হবে। তিনি নিশ্চয় নিজস্ব দলিল ছাড়া কোনো কথা বলেননি।

ঢাকানিউজ২৪.কম / এসডি

আরো পড়ুন

banner image
banner image