• ঢাকা
  • রবিবার, ১০ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ; ২৩ জানুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

ক্ষতিপূরণের টাকা ফিরিয়ে দিলো নিহত সিয়ামের পরিবার


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ০২ নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ০৫:৪৮ পিএম
সিয়ামের পরিবারের টাকা ফেরত
নিহত সিয়াম

গৌতম চন্দ্র বর্মন, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁওয়ে হানিফ পরিবহন মালিকের দেওয়া এক লাখ টাকা ফিরিয়ে দিয়েছে দুর্ঘটনায় নিহত শিক্ষার্থীর পরিবার। হানিফ পরিবহনের ধাক্কায় সিয়াম ইসলাম (১৩) নামে এক স্কুলছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে এই টাকা দিতে চেয়েছিলেন পরিবহন মালিক।

সোমবার (১ নভেম্বর) এক লাখ টাকা পরিবারটিকে দেওয়ার ব্যর্থচেষ্টা শেষে সিয়ামের রুহের মাগফিরাত কামনায় স্থানীয় মসজিদের উন্নয়নে মসজিদ কমিটিকে ওই টাকা বুঝিয়ে দেন পরিবহন মালিকপক্ষ।

এ সময় উপস্থিত থাকা মোটরশ্রমিক নেতা শাহাদত হোসেন বলেন, ‘আমরা বেশ কয়েকবার ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে অনুদানের এক লাখ টাকা দেওয়ার চেষ্টা করেছি। কিন্তু তারা কিছুতেই সেই টাকা নিতে রাজি হয়নি। অবশেষে উপায় না পেয়ে সেই টাকা সিয়ামের নামে স্থানীয় মসজিদের উন্নয়নে দান করে আসি।’

গত ২৫ অক্টোবর ঠাকুরগাঁও জেলার দুরামারিতে রাস্তা পার হওয়ার সময় হানিফ পরিবহনের গাড়ির ধাক্কায় প্রাণ হারায় কিশোর সিয়াম।

জানা যায়, দুরামারি নামে ছোট্ট বাজারটিতে ফ্ল্যাক্সি লোডের দোকান রয়েছে সিয়ামের বাবা ফিরোজ হাসানের। মাথায় ঋণের বোঝাসহ বৃদ্ধা মা, স্ত্রী ও একটি ছেলে নিয়ে চার সদস্যের অভাবের সংসার ছিল তার। মেধাবী সন্তান সিয়ামকে নিয়ে অনেক স্বপ্ন বুনতেন ফিরোজ। তাই ছেলেকে ভর্তি করিয়েছিলেন জেলার সেরা স্কুলে। কিন্তু একটি দুর্ঘটনায় ভেঙে যায় তার সব স্বপ্ন।

এই ঘটনায় পরিবারসহ এলাকাজুড়ে নেমে আসে শোকের ছায়া। সিয়ামের স্কুলের ছাত্ররা রাস্তায় নামতে চায় বিচারের দাবিতে। শহরের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সুধি সমাজের উদ্যোগে মীমাংসার প্রস্তুতি নেওয়া হয়। সিয়ামের পরিবারকে কোনো প্রকার অভিযোগ দায়ের না করার শর্তে এক লাখ টাকা অনুদান দিতে রাজি হয় হানিফ পরিবহন মালিক পক্ষ।

সেই প্রস্তাব নিয়ে সিয়ামের পরিবারের কাছে টাকা নিয়ে উপস্থিত হলে মামলা না করার বিষয়ে লিখিত দেন ফিরোজ। তবে সম্পূর্ণ টাকাই ফিরিয়ে দেন তিনি।

সিয়ামের বাবা ফিরোজ বলেন, ‘আমার বাচ্চার মৃত্যু হয়েছে আল্লাহর ইচ্ছায়। কারও উপর কোনো অভিযোগ রেখে কি হবে। অভাবের সংসার হলেও কারও কাছে কখনো সাহায্য নেইনি। আমাদের একমাত্র সন্তানের বিনিময় এক কোটি টাকাতেও কম হয়ে যাবে। তাহলে অনুদানের এই টাকা আমি কেনো নেব।’

তবে জনসমাগমপূর্ণ রাস্তায় গতি কম রেখে গাড়ি সাবধানে চালানোর জন্যে সরকারের দৃষ্টি গোচরের অনুরোধ জানান সিয়ামের মা সুরাইয়া ইউনুসা।

 

ঢাকানিউজ২৪.কম / গৌতম চন্দ্র বর্মন

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image