• ঢাকা
  • বুধবার, ২ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৭ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

ঢামেকে আটককৃত সেই ভুয়া নারী ডাক্তারের বিরুদ্ধে শাহাবাগ থানায় মামলা দায়ের


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শনিবার, ২২ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ০৪:৪৭ পিএম
ঢামেকে, আটককৃত, সেই ভুয়া, নারী ডাক্তারের বিরুদ্ধে, শাহাবাগ, থানায় মামলা, দায়ের
ভুয়া নারীর ডাক্তার রিপা আক্তার (২০)।

মেডিকেল প্রতিবেদক : ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ২১২ নম্বর ওয়ার্ডের গাইনি বিভাগ থেকে অ্যাপ্রোন পরে আটক হওয়া রিপা আক্তার (২০) নামে সেই ভুয়া নারী ডাক্তারের বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় প্রতারণার মামলা করেছেন ওয়ার্ড মাস্টার মোঃ আবুল হোসেন।

গতকাল শুক্রবার (২১ জুন) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেন শাহবাগ থানার পরিদর্শক (তদন্ত)মোঃ শাহ আলম। তিনি বলেন, গতকাল রাতে ঢাকা মেডিকেল থেকে ভুয়া এক নারী চিকিৎসককে আটক করে থানায় হস্তান্তর করা হয়। পরে তার বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগে ২১২ নম্বর ওয়ার্ডের গাইনী বিভাগের ওয়ার্ড মাস্টার আবুল হোসেন বাদী হয়ে শাহবাগ থানা একটি প্রতারণার মামলা(মামলা নং-৪০) দায়ের করেন।

মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আজ তাকে আদালতে পাঠানো হবে।

২১২ নাম্বার ওয়ার্ডের ওয়ার্ড মাস্টার আবুল হোসেন বলেন, গতকাল ২১২ নম্বর ওয়ার্ড থেকে এক ভুয়া নারী চিকিৎসককে আটক করে আনসার সদস্যরা। পরে তাকে শাহবাগ থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এই ঘটনায় আমি বাদী হয়ে শাহবাগ থানা একটি মামলা দায়ের করেছি।

উল্লেখ্য, ঢাকা মেডিকেল কলেজ ( ঢামেক) হাসপাতালের ২১২ নং ওয়ার্ড থেকে রিপা আক্তার (২০)নামে এক ভুয়া নারী চিকিৎসককে আটক করেছে আনসার সদস্যরা।

বৃহস্পতিবার (২০জুন) সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার দিকে ঢামেক হাসপাতালে ২১২ নং ওয়ার্ডের গাইনি বিভাগ থেকে আটক করা হয় তাকে।

পটুয়াখালীর বাউফল থানার বউলতলী গ্রামের মৃত কাজির সিকদারের মেয়ে সে। বর্তমানে কামরাঙ্গীরচরে ভাড়া থাকেন।

ঢামেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক (অর্থ ও ষ্টোর) ডাঃ মোঃ খালেকুজ্জামান খান জানিয়েছি, অভিযুক্ত ওই নারী হাসপাতালের ২১২ নং ওয়ার্ডের গাইনি বিভাগে সন্দেহ মূলকভাবে এপ্রোন পরা অবস্থায় ঘোরাফেরা করছিল। এ সময় হাসপাতালে নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত নারী আনসার সদস্য তাকে আটক করে প্রশাসনিক ভবনে নিয়ে আসে। এক পর্যায়ে ওই নারী স্বীকার করেন তিনি ভুয়া চিকিৎসক। পরে আমরা ওই নারীকে শাহবাগ থানা পুলিশে হস্তান্তর করা হয়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঢামেক হাসপাতালের আনসারের প্লাটুন কমান্ডার (পিসি) মোঃ মিজানুর রহমান জানান, আজ সন্ধ্যার দিকে হাসপাতালে পুরাতন ভবনের ২১২ নং ওয়ার্ডের গাইনি বিভাগে অভিযুক্ত ওই নারীকে এ‍্যাপ্রোন পড়া অবস্থায় ঘোরাফেরা করছিল। প্রথমে তাকে দেখে বোঝাই যাচ্ছিল না তিনি চিকিৎসক না অন্য কেউ। পরে বিষয়টি আমাদের মহিলা আনসার সদস্য লুৎফা বেগম চ্যালেঞ্জ করলে ওই অভিযুক্ত নারী এক পর্যায়ে স্বীকার করেন তিনি কোন চিকিৎসক নন।সে একটি ওষুধ কোম্পানিতে চাকরি করেন।এক আত্মীয়কে দেখার জন্য ঢাকা মেডিকেল এসেছেন। কিন্তু সেই আত্মীয় বা রোগীর নাম তিনি নিজেই জানেন না। এক পর্যায়ে তিনি স্বীকার করেন নিউমার্কেট থেকে এই এ‍্যাপ্রোন তিনি কিনেছিলেন।

পরে ওই নারী ভুয়া চিকিৎসক স্বীকার করেন তিনি একজন ভুয়া চিকিৎসক এবং তিনি আর এমনটা করবেন না বলে সবার কাছে ক্ষমা চান।

 

ঢাকানিউজ২৪.কম / জেডএস/সানি

আরো পড়ুন

banner image
banner image