• ঢাকা
  • বুধবার, ২ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ১৭ আগষ্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

২০১৪-১৮ সালের নির্বাচনের মতো ভোট চান না তিনি


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ০২ আগষ্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০১:০০ পিএম
২০১৪-১৮ সালের নির্বাচন
সাবেক নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরী

নিউজ ডেস্ক:  রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে এক মাস ধরে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সংলাপের ফল নিয়ে রাজনৈতিক মহলে চলছে আলোচনা। কেউ কেউ বলছেন, নির্বাচন পদ্ধতির সমাধান না করে সংলাপে ফল আসবে না। এদিকে গণতন্ত্রের স্বার্থেই নিজেদের করা গত নির্বাচনের মতো ভোট আর চান না সাবেক নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরী।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের এখনো বাকি অনেক সময়। তবে আসছে নির্বাচন সামনে রেখে এরই মধ্যে নিজেদের প্রস্তুতি শুরু করেছে ইসি। এরই অংশ হিসেবে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপে আয়োজন করে তারা।

গত ১৭ জুলাই থেকে ৩১ জুলাই পর্যন্ত নিবন্ধিত ৩৯টি রাজনৈতিক দলকে আলোচনায় ডাকে কমিশন। তবে ২৮টি রাজনৈতিক দল অংশ নিলেও কমিশনের ডাকে সাড়া দেয়নি বিএনপিসহ নয়টি রাজনৈতিক দল। দুটি দল চেয়েছে সময়।

সংলাপের সবচেয়ে আলোচিত বিষয় ছিল নির্বাচনকালীন সরকার আর ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম)। কমিশনের এখতিয়ারে না থাকলেও নির্বাচনের সময় কেমন সরকার থাকবে বেশির ভাগ দল কথা বলেছে সে বিষয়ে।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, পুরো সংলাপে কমিশনের এখতিয়ারে নেই এমন বিষয়ই ছিল আলোচনার অলিখিত এজেন্ডা। তাই নির্বাচনের সময় কেমন সরকার হবে তা নিয়ে রাজনৈতিক বিরোধের মধ্যে এ সংলাপ অর্থহীন।

রাজনৈতিক বিশ্লেষক মহিউদ্দিন আহমদ বলেন, স্টেকহোল্ডাররা এখানে (ইসি) যে ধরনের প্রস্তাবগুলো দিয়েছেন, তার বেশকিছু ইসির পক্ষে বাস্তবায়ন করা সম্ভব নয়। নির্বাচনকালীন সরকার কী রকম হবে, সেই সিদ্ধান্ত তো সংসদকে নিতে হবে। সংলাপে দ্বিধাদ্বন্দ্ব কমলো না; বরং নির্বাচনকালীন সরকারের বিষয়ে এসে সবকিছু আটকে গেছে।

সাবেক নির্বাচন কমিশনাররা মনে করেন, সংলাপে সবাই অংশ না নিলেও যারা এসেছেন সবাই সুষ্ঠু নির্বাচনের পক্ষে মত দিয়েছেন, আর সেটাই ইতিবাচক। নিজেদের অধীনেই সবশেষ নির্বাচনের উদাহরণ টেনে এক কমিশনার বলেন, তেমন নির্বাচন আর চান না তিনি।

সাবেক নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরী সময় সংবাদকে বলেন, ‘সংলাপের অবশ্যই প্রয়োজন; এর মাধ্যমে অনেক জটিল সমস্যা সমাধান হতে পারে। ২০১৪ বা ২০১৮ সালের নির্বাচনের মতো যেন সামনে নির্বাচনটা না হয় সবাই তাই চাচ্ছে। আমাদের দেশের গণতন্ত্রের জন্য, রাজনৈতিক পরিস্থিতির উন্নয়নের জন্য ভালো নির্বাচন অবশ্যই দরকার।’

রাজনৈতিক দলের আস্থা অর্জনে স্থানীয় সরকার নির্বাচনে কমিশনের কথা আর কাজে মিল দেখাতে হবে বলেও মনে করেন এ কমিশনার।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image