• ঢাকা
  • বুধবার, ২ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ১৭ আগষ্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

ভারতের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন দ্রৌপদী মুর্মু


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শুক্রবার, ২৪ জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৪:৫১ পিএম
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি টুইট করে তাঁকে অভিনন্দ
মনোনয়নপত্র জমা দিলেন দ্রৌপদী মুর্মু

নিউজ  ডেস্ক:  প্রধানমন্ত্রীকে পাশে নিয়ে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের জন্য মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন এনডিএ-র প্রার্থী দ্রৌপদী মুর্মু। শুক্রবার দিল্লিতে দ্রৌপদী মুর্মু মনোনয়নপত্র পেশের সময় তাঁর একপাশে বসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী  নরেন্দ্র মোদী, বিজেপির সর্ব ভারতীয় সভাপতি জেপি নড্ডা।

তার সাথে ছিলেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব। হাজির ছিলেন বিজেপি-শাসিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরাও। বেলা ১২ টা ৩০ মিনিট নাগাদ সংসদ ভবনে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন দ্রৌপদী মুর্মু। তারপর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহদের সঙ্গে বাইরে বেরিয়ে যান ।

এদিকে, পরবর্তী রাষ্ট্রপতির নির্বাচনে জয়ের জন্য ওড়িশা জুড়ে প্রার্থনা চলছে। দেশের রাষ্ট্রপতি হিসেবে ঘরের মেয়েকেই দেখতে চায় ওড়িশাবাসী। এনডিএ-বিরোধী শিবির হলেও দ্রৌপদী মুর্মুকে পূর্ণ সমর্থনের কথা ঘোষণা করেছেন ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়ক।

রাষ্ট্রপতি হওয়ার দৌড়ে ওডিশা রাজ্যের আদিবাসী নারী দ্রৌপদী মুর্মুর প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী বিরোধী জোট মনোনীত সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী যশোবন্ত সিনহা।

এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, যদি নির্বাচিত হন, তাহলে আদিবাসী সম্প্রদায় থেকে ভারতের প্রথম রাষ্ট্রপতি হতে যাচ্ছেন ৬৪ বছর বয়সী দ্রৌপদী মুর্মু। ভারতের নির্বাচন কমিশন বলেছে, পরবর্তী রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোট গ্রহণ হবে ১৮ জুলাই। ২১ জুলাই হবে ভোট গণনা। এরপর ২৫ জুলাই রাষ্ট্রপতি শপথ নেবেন।

বিজেপি প্রধান জেপি নাড্ডা বলেন, বোর্ড ২০ জনের নাম নিয়ে আলোচনার পর একজন আদিবাসী ও নারীকে বেছে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিজেপির প্রার্থী হিসেবে দ্রৌপদী মুর্মুর নাম ঘোষণার পর দলটির নেতা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি টুইট করে তাঁকে অভিনন্দন জানান।

২০১৭ সালে ভারতের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিহার রাজ্যের গভর্নর ও দলিত সম্প্রদায়ের রামনাথ কোবিন্দকে মনোনয়ন দেয় বিজেপি। ক্ষমতাসীন দলের সমর্থনে রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত কোবিন্দের মেয়াদ শেষ হচ্ছে ২৫ জুলাই।

ঝাড়খন্ডের প্রথম নারী গভর্নর দ্রৌপদী মুর্মু তাঁর রাজনীতি শুরু হয় একজন কাউন্সিলর হিসেবে। ওডিশা থেকে বিজেপির প্রার্থী হিসেবে দুই মেয়াদে আইনপ্রণেতা ছিলেন তিনি। বিজেপির সমর্থন নিয়ে রাজ্যে সরকার গঠন করা বিজু জনতা দলের (বিজেডি) মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েকের মন্ত্রিসভায়ও ছিলেন দ্রৌপদী মুর্মু।

মঙ্গলবার একই দিনে রাষ্ট্রপতি প্রার্থী হিসেবে সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী যশোবন্ত সিনহার নাম ঘোষণা করা হয়। রাষ্ট্রপতি প্রার্থী হতে বিরোধী জোটের পক্ষ থেকে এর আগে তিনজনকে প্রস্তাব দেওয়া হয়। তাঁরা হলেন ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টির (এনসিপি) শারদ পাওয়ার, ন্যাশনাল কনফারেন্সের (এনসি) প্রধান ফারুক আবদুল্লাহ ও মহাত্মা গান্ধীর নাতি গোপালকৃষ্ণ গান্ধী। তাঁরা প্রার্থী হতে রাজি হননি। এরপরই যশোবন্ত সিনহার নাম প্রস্তাব করে বিরোধী জোট।

ঢাকানিউজ২৪.কম /

আর্ন্তজাতিক বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image