• ঢাকা
  • শনিবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ২১ মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

বিদায়বেলায় সিইসি বললেন ইভিএম বড় সাফল্য


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: সোমবার, ১৪ ফেরুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১২:৫৯ পিএম
সিইসি বললেন ইভিএম বড় সাফল্য
কে এম নূরুল হুদা

ডেস্ক রিপোর্টার: নানা অভিযোগ আর অনুযোগ মাথায় নিয়ে বিদায় নিচ্ছে কে এম নূরুল হুদার নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এ উপলক্ষে সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) গত পাঁচ বছরের সফলতা তুলে ধরতে বেলা ১১টায় রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনের মিডিয়া সেন্টারে সম্মেলনের আয়োজন করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার।

গত পাঁচ বছরে নির্বাচন কমিশন সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করেছে দাবি করে ইভিএম-এ ভোটগ্রহণ কমিশনের বড় সাফল্য বলে মন্তব্য করেন বিদায়ী প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা।

তিনি বলেন, ‘গত পাঁচ বছরে রাষ্ট্রপতি, জাতীয় সংসদ, জাতীয় সংসদের উপনির্বাচন এবং সব স্থানীয় সরকার পরিষদের সাধারণ ও উপনির্বাচনসহ ৬ হাজার ৬৯০টি নির্বাচন বর্তমান কমিশন সম্পন্ন করেছে। এর মধ্যে কোথাও কোথাও ব্যত্যয় ঘটেছে, সহিংসতা হয়েছে। তবে সব উতরে কঠোর পরিশ্রম করেই সুষ্ঠুভাবে পুরো দেশে ভোট সম্পন্ন করেছি।’

তিনি বলেন, ‘করোনা মহামারির কারণে কিছু নির্বাচন সময়মতো করতে না পারলেও পরে তা যথাযথভাবে সম্পন্ন করা হয়েছে। রুটিন কাজের বাইরেও আমরা নতুন নতুন কাজ শুরু করেছি।’

যদিও গত পাঁচ বছরে অসংখ্যবার এ কমিশনের পদত্যাগের দাবি করে বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল। ইসির বিরুদ্ধে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের শরিকরাও সংসদের বৈঠকে সমালোচনায় মুখর ছিলেন। এসব সমালোচনা কখনোই আমলে নেয়নি ইসি।

এদিকে ২০১৭ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি শপথ নেওয়া বর্তমান কমিশনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আজ সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি)। এ উপলক্ষে গতকাল সন্ধ্যায় রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে তারা বিদায়ী সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।
অন্যদিকে নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনে সার্চ কমিটি কাজ করছে। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে নতুন কমিশন গঠন না হওয়ায় কয়েক দিন কমিশনার পদ ফাঁকা থাকছে।

ইসি নিয়োগ আইনানুযায়ী, নতুন কমিশন গঠনের প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে সার্চ কমিটি গঠিত হয়েছে। এই কমিটি রাষ্ট্রপতির কাছে ১০ জনের নাম সুপারিশ করার জন্য প্রাসঙ্গিক কাজ গুছিয়ে আনছে। এ ১০ জনের তালিকা থেকেই সিইসিসহ নতুন কমিশনের পাঁচজনকে নিয়োগ দেবেন রাষ্ট্রপতি। সার্চ কমিটি গঠনের পর থেকে ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে এই নাম পাঠাতে হবে। সেই হিসাবে নাম সুপারিশের জন্য আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সময় পাচ্ছে কমিটি।

সংশ্নিষ্ট সূত্র জানা গেছে, দু-এক দিনের মধ্যেই নতুন ইসি শপথ নিতে পারে। সার্চ কমিটির কাজ শুরুর দিনেই মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেছিলেন, ২৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সময় থাকলেও সার্চ কমিটি আগেই কাজ শেষ করবে।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

জাতীয় বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image