• ঢাকা
  • শনিবার, ৯ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ; ২২ জানুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ইমারত নির্মাণ আইন লংঘনের অভিযোগ


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১২:৪৫ পিএম
ইমারত নির্মাণ আইন লংঘন
ইমারত নির্মাণে আইন লংঘন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কাউতলীতে পৌরসভা ইমারত  নির্মাণ আইন লংঘন করে  বহুতল ভবন নির্মাণের অভিযোগ প্রভাবশালী মিন্টু মিয়ার বিরুদ্ধে। দশজন কাউন্সিলরের স্বাক্ষরিত ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা কার্যালয়ে এক লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায় কাউতলীর মৃত আবদুল আজিজের ছেলে মিন্টু মিয়া কাউতলী প্রধান সড়কের পশ্চিম পাশে ষষ্ঠ তলা ফাউন্ডেশনে ভবন নির্মাণের অনুমতি নিয়ে পৌরসভার ইমারত নির্মাণ আইন লংঘন করে ষষ্ঠ তলার উপরে আরো  সপ্তম ও অষ্টম তলা নির্মাণ কাজ চালিয়ে যাচ্ছে তার  ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অনেকেই জানায় বিনা পাইলিংয়ে এই ষষ্ঠ তলা ভবন নির্মাণ করেছে মিন্টু মিয়া, তাই যে কোনো মুহূর্তে এই ভবন ভেঙ্গে পড়ে ঘটতে পারে বড় ধরনের মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ও জান মালের চরম ক্ষতি হতে পারে এই আশঙ্কা স্থানীয়দের। ভবন নির্মাণে উত্তর-দক্ষিণে ৩ ফুট পূর্ব-পশ্চিমে ৬  ফুট ৪ ইঞ্চি জমি ছেড়ে নির্মাণের নিয়ম থাকলেও সে না ছেড়েই ভবন নির্মাণ করছে বলে জানা যায়।  সাবেক ২১৫ দাগ বর্তমান ১২১৩ দাগে ৪৬ শতক জমির মধ্যে অভিযোগকারী দুলাল মিয়া জানায় ১৮ শতক বাদে বাকি সব মিন্টু মিয়ার দখলে।  মিন্টু মিয়া দলিল মূলে মালিক ৫শতক ৪৬ পয়েন্টের। ২২ জানুয়ারি ২০১৭ তারিখে ভবন নির্মাণ প্লান অনুমোদন পেয়ে মিন্টু মিয়া ২০১৮ সালে থেকে নির্মাণ কাজ শুরু করে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশ সুপার, অফিসার ইনচার্জ সদর মডেল থানা ও দুর্নীতি দমন কমিশন কুমিল্লা আঞ্চলিক কার্যালয়ে বাদী দুলাল মিয়ার লিখিত অভিযোগে উল্লেখ্য ১৫৪৫০ নং দলিল অন্য ব্যক্তির নামে, অথচ মিন্টু মিয়া পার্শ্ববর্তী কুরুলিয়া টাওয়ারের মালিকদের রাস্তা বন্ধ করে সাত লক্ষ টাকা চেকের মাধ্যমে নিয়েছে ও এইসব ভুক্তভোগীদের কাছ থেকে আরো টাকা আদায় করার পাঁয়তারা করছে বলে জানা যায়। কুরুলিয়া টাওয়ারের সাবেক সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন জানায় মিন্টু মিয়া কে চেকের মাধ্যমে সাত লক্ষ টাকা দেওয়া হয়েছে।

ইমারত নির্মাণ আইন লংঘন করে ভবন নির্মাণের বিষয়ে পৌরসভার সার্ভেয়ার  মাসুদের সাথে  কথা বললে তিনি  বলেন মিন্টু মিয়াকে মৌখিকভাবে বাধা প্রদান ও লিখিতভাবে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে আমাদের প্রকৌশলী সাহেবের সাথে যোগাযোগ করেন বলেও এ প্রতিনিধিকে জানান। মিন্টু মিয়া  প্রভাবশালী হওয়ায় এলাকার সাধারণ মানুষ ভয়ে মুখ খুলতে পারছে না।

এ ব্যাপারে মিন্টু মিয়ার কাছে জানতে চাইলে  বলেন নিয়মকানুন সব সঠিক আছে আমি  আমার বিল্ডিংয়ের আরও  সপ্তম ও অষ্টম তালার কাজ করছি।

ঢাকানিউজ২৪.কম / মনিরুজ্জামান মনির/কেএন

অপরাধ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image