• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ০৬ ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

শেষ বলে পাকিস্তানকে ৪ উইকেটে হারাল ভারত


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: সোমবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৯:২৫ এএম
শেষ বলে পাকিস্তানকে ৪ উইকেটে হারাল ভারত
বিরাট কোহলির দৃঢ়তা এবং দুর্দান্ত ব্যাটিং

নিউজ ডেস্ক:    ভারত-পাকিস্তান মহারণের মঞ্চে ঝরালো না বৃষ্টি। গ্যালারিতে লাখ দর্শকের সমারোহে ম্যাচ মুহূর্তে মুহূর্তে রঙ বদলালো। দুই রকমের ব্যাটিং বিপর্যয় দেখল দু’দল। দেখল বিরাট কোহলির দৃঢ়তা। তার দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে এবং শেষ ওভারের নাটকীয়তায় শেষ বলে পাকিস্তানকে ৪ উইকেটে হারাল ভারত।

বিশ্ব আসরে ভারতের বিপক্ষে জিততে না পারার জুজু গত বছর সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত টি-২০ বিশ্বকাপে মিলিয়েছে পাকিস্তান। দশ উইকেটের ওই জয়ের পরে চলতি বছর এশিয়া কাপের সুপার ফোরে হেসেছেন বাবর আজম। ওই দুই হারের ধাক্কায় আসর থেকে বিদায় নিতে হয় রোহিতদের। এবার বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভের সবচেয়ে আকর্ষণীয় ম্যাচে প্রতিশোধ নিল ভারত।

বড় এই ম্যাচে টস জিতে বোলিং নেয় ভারত। দলটির পেসারদের সামনে সুবিধা করতে পারেননি পাকিস্তানের ব্যাটাররা। দলের ভরসা বাবর আজম গোল্ডেন ডাক মারেন, রিজওয়ান ফিরে যান ৪ রান করে। তবু তিনে নামা শান মাসুদ এবং চারে নামা ইফতিখার আহমেদের ব্যাটে ৮ উইকেটে ১৫৯ রান তোলে পাকিস্তান।

দলের হয়ে মাসুদ খেলেন ৪২ বলে হার না মানা ৫২ রানের ইনিংস। তিনি পাঁচটি চার মারেন। এক প্রান্ত আগলে রাখেন। ইফতিখার ধুঁকতে থাকা ইনিংসে প্রাণ ফেরান। ছোট্ট একটা ঝড় তোলেন। অক্ষর প্যাটেলের এক ওভার থেকে তুলে নেন ২১ রান। ফিরে যাওয়ার আগে করেন ৩৪ বলে চারটি ছক্কা ও দুই চারে ৫১ রানের ইনিংস।

জবাব দিতে নেমে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে ভারত। ৬.১ ওভারে ৩১ রানে হারায় ৪ উইকেট। ব্যর্থ হয়ে একে একে ফিরে যান ওপেনার রোহিত শর্মা (৪) এবং কেএল রাহুল (৪), চারে  সূর্যকুমার যাদব (১৫) ও পাঁচে খেলা অক্ষর প্যাটেল (২)। হার্ডিককে সঙ্গে নিয়ে দলের হাল ধরেন বিরাট কোহলি। শুরুতে ইনিংস মেরামত করেন পরে তোলেন ঝড়।

হার্ডিক ইনিংসের শেষ ওভারে ফিরে যাওয়ার আগে বিরাটের সঙ্গে গড়েন ১১৩ রানের দুর্দান্ত জুটি। ওই জুটিতে পেস অলরাউন্ডার হার্ডিকের অবদান ৩৭ বলে দুই ছক্কা ও এক চারে ৪০ রান। ম্যাচ শেষ করে ফেরা বিরাট কোহলি ৫৩ বলে খেলেছেন ৮২ রানের বিধ্বংসী ইনিংস। যে ক্যামিও ইনিংস সাজানো ছয়টি চার ও চারটি ওভার বাউন্ডারিতে।

একটু পেছন থেকে বর্ণনা দিলে ৩ ওভারে ৪৮ রান দরকার ছিল ভারতের। শাহিনের ১৮তম ওভারে কোহলি তিন চারের শটে নেন ১৭ রান। ১৯তম ওভারে হারিসকে শেষ দুই বলে দুর্দান্ত ছক্কা হাঁকার কোহলি। আসে ১৫ রান। শেষ ওভারে ভারতের দরকার ১৬। প্রথম বলেই আউট হন হার্ডিক। পরের দুই বলে আসে তিন রান। চতুর্থ বলে নো করেন স্পিনার নওয়াজ। ছক্কা হাঁকান কোহলি। ফ্রি হিট বলটা প্রথমে ওয়াইড দেন, পরে স্টাম্পে লেগে ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্ট যাওয়ায় তিন রান নেয় ভারত। দুই বলে ২ দরকার থাকতে আউট হন কার্তিক। পরে আবার ওয়াইড দিলে শেষ বল থেকে এক রান নিয়ে দলকে জয়ে ভাসান অশ্বিন।

ঢাকানিউজ২৪.কম /

খেলা বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image