• ঢাকা
  • রবিবার, ২২ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ০৫ ফেরুয়ারী, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

আর্জেন্টিনার কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১১:২০ এএম
আর্জেন্টিনার কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত
মেসির আর্জেন্টিনা

নিউজ ডেস্ক : শেষ ষোলর নক আউট পর্বে অষ্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাঠে নামে মেসির আর্জেন্টিনা। বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় আহমেদ বিন আলি স্টেডিয়ামে শুরু হয় ম্যাচটি।

কাতার বিশ্বকাপে ফেভারিটের তকমা নিয়েই অভিযান শুরু করে মেসির দল। শুরুর ৩৫ মিনিটে দলকে এগিয়ে দেন মেসি। তার গোলের পরই বিরতিতে যায় তারা। দ্বিতীয়ার্ধে আবারো গোল করে এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা। এবার খেলার ৫৭ মিনিটে গোল করে দলকে ২-০র লিড এনে দেন জুলিয়ান আলভারেজ। অজিরা এ গোল হজম করে মূলত তাদের গোল কিপারের ভুলের কারণে। তারপরই অস্ট্রেলিয়া ৭৭ মিনিটে ১ গোল পরিশোধ করে।

২ গোল হজম করার পরই যেনো তেঁতে উঠে অষ্ট্রেলিয়ান শিবির। এর পরই তারা আর্জেন্টিনা শিবিরে আক্রমণ চালাতে থাকে সকারুরা। খেলার ঠিক ৭৭ মিনিটে সকারুরা সফল হয়। ক্রেইগ গডউইনের করা দারুন এক গোলে তারা খেলায় ফিরে আসে।

প্রথমার্ধ শুরু হয় মেসি ঝলকে। খেলার ৩৫ মিনিটে সরাসরি কিকে পরাস্ত করেন অজি গোলকিপারকে। এই ১ গোলের লিড নিয়ে এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধ শেষ করে আর্জেন্টিনা।

আজকের ম্যাচে নামার মধ্য দিয়ে অনন্য এক রেকর্ড করলেন লিওনেল মেসি। আর্জেন্টাইন এই জাদুকর মাঠে নামার সঙ্গেই এক হাজারি ক্লাবে ঢুকে পড়লেন। পেশাদার ক্যারিয়ারে আজকের ম্যাচটি তার ১০০০তম ম্যাচ। আর এদিন শুরুটাও করলেন স্বরণীয়ভাবে গোল দিয়ে।

পোল্যান্ডের বিপক্ষের একাদশ থেকে কেবল এক পরিবর্তন নিয়ে আজকের একাদশ সাজিয়েছিলেন স্কালোনি। চোটের কারণে আজকে দলে ছিলেন না ডি মারিয়া। 

এর আগেও অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হয়েছিল লাতিন দলটি। এবার আরেকবার। তার আগে পরিসংখ্যানের দিকে চোখ বুলালে দেখা যায়, দুদলের মধ্যে আর্জেন্টিনাই এগিয়ে।

কাতার বিশ্বকাপে ফেভারিটের তকমা নিয়েই অভিযান শুরু করেছিল আর্জেন্টিনা। তবে সৌদি আরবের কাছে হারার পর অনেকেই তাদের শেষ দেখে ফেলেছিলেন।  কিন্তু পরের দুই ম্যাচে দুর্দান্ত প্রতাপে ঘুরেরে দাঁড়িয়েছে আর্জেন্টিনা। শেষ ষোলোর লড়াইয়ে আজ তাদের প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া।

অতীত ইতিহাস বলছে, ফুটবলে এই দুদল আগে মুখোমুখি হয়েছে মোটে ৭ বার। যেখানে আলবিসেলেস্তেদের ৫ জয়ের বিপরীতে অস্ট্রেলিয়ার জয় মাত্র এক ম্যাচে। বাকি একটি ম্যাচ ড্র হয়েছিল।

দুদলের সবশেষ ম্যাচটি হয়েছে ২০০৭ সালে। যেখানে ১-০ গোলে জয়লাভ করে লাতিন আমেরিকার দেশটি। মুখোমুখি লড়াইয়ে সবচেয়ে বড় ব্যবধানে জয়টি অস্ট্রেলিয়ার।

১৯৮৮ সালে প্রথম দেখায় ৪-১ গোলের ব্যবধানে জিতেছিল ওশেনিয়া অঞ্চলের দেশটি। আর্জেন্টিনার সবচেয়ে বড় জয়টি ২০০৫ সালে, ৪-২ গোলে। 

আর্জেন্টিনা ও অস্ট্রেলিয়ার ৭ বারের দেখায় সবচেয়ে বেশি গোল করেছে লিওনেল মেসির দেশ। তাদের ১৫ গোলের বিপরীতে অস্ট্রেলিয়ার গোল ৭টি।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

খেলা বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image