• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ৬ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ; ২০ জানুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

সাম্য প্রতিষ্ঠিত হয়নি, বৈষম্য বেড়েছে: আকবর আলী খান


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: সোমবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ০৫:০৭ পিএম
দেশে বৈষম্য বেড়েছে: আকবর আলী খান
বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ও সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা আকবর আলী খান

ডেস্ক রিপোর্টার: বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ও সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা আকবর আলী খান বলেছেন, স্বাধীনতার ৫০ বছরে বাংলাদেশের অর্জন অনেক। ১৯৭১ সালে যেখানে দারিদ্র্যের হার ছিল ৭০ শতাংশ, এখন তা ২০ শতাংশে নেমেছে। এটা অকল্পনীয় অর্জন। তবে যে চার নীতির ওপর মুক্তিযুদ্ধ হয়েছিল, তার অন্যতম ছিল গণতন্ত্র। এক্ষেত্রে কতটা অর্জন হয়েছে, তা প্রশ্নসাপেক্ষ।

সোমবার (২০ ডিসেম্বর) রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে সেন্টার পর গভর্ন্যান্স স্ট্যাডিজ আয়োজিত ‘বাংলাদেশের ৫০ বছর’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এ কথা বলেন তিনি।

আকবর আলী খান বলেন, গত ৫০ বছরে অন্য অনেক দেশেও দারিদ্র্যের হার কমেছে, শুধু বাংলাদেশে কমেছে এমনটি নয়। আন্তর্জাতিক মানদণ্ড বিবেচনায় নিলে এখনও এদেশের দারিদ্রের হার ৪০-৪৫ শতাংশ। দেশে উন্নয়ন হচ্ছে, এটা ঠিক। কিন্তু সাম্য প্রতিষ্ঠিত হয়নি, বৈষম্য বেড়েছে। সবক্ষেত্রে সমান উন্নতি হয়নি।

তিনি বলেন, ‘উন্নয়ন দিয়ে গণতন্ত্র অর্জন হয় না। বাংলাদেশের রাজনৈতিক দলগুলোর গণতন্ত্রে বিশ্বাস নেই। তারা মুখে গণতন্ত্রের কথা বললেও বাস্তবে বিশ্বাস করে না।’

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা বলেন, বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ জনযুদ্ধ ছিল, এটা কোনো সামরিক অভ্যুত্থান ছিল না। মুক্তিযুদ্ধের বিজয়ে সকলের অবদান ছিল। এখানে কারও একক কৃতিত্ব নেই। বঙ্গবন্ধুর ডাকে মুক্তিযুদ্ধ শুরু হয়েছিল। কিন্তু বিজয় এসেছিল অনেকের হাত ধরে। সেখানে ভারতের অনেক অবদান ছিল। মুক্তিযুদ্ধে সার্বিক সহযোগিতার জন্য আমরা অবশ্যই ভারতের কাছে কৃতজ্ঞ। কিন্তু চিরন্তন কৃতজ্ঞতা বলে কিছু নেই। রাষ্ট্রের সঙ্গে রাষ্ট্রের কৃতজ্ঞতার সম্পর্ক কখনও চিরন্তন হয় না। পারস্পরিক স্বার্থের ওপর এটা নির্ভর করে।’

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি বিশিষ্ট বীর মুক্তিযোদ্ধা লে. ক. (অব.) জাফর ইমাম, বীর বিক্রম বলেন, ‘৫০ বছরে বাংলাদেশে অর্থনৈতিক উন্নয়ন হয়েছে, কিন্তু যে রাজনৈতিক চেতনা অর্জনের জন্য মুক্তিযুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছিলাম, তা অর্জন করতে পারেনি।’

তিনি বলেন, ‘ইদানিং ভারত-পাকিস্তানের কিছু লেখক গবেষক বলছেন- একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ নাকি ভারত পাকিস্তানের যুদ্ধ ছিল। ১৩ দিনের যুদ্ধে নাকি দেশ স্বাধীন হয়েছে। এ মিথ্যাচারের জবাব আমাদের লেখক গবেষকদের থেকে নেই।’

বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বলেন, ‘স্বাধীনতার ৫০ বছরের রাষ্ট্রের বিশাল অনুষ্ঠানে সেক্টর কমান্ডারদের ডাকা হয়নি। মুক্তিযুদ্ধ কোনো একক ব্যক্তি বা পরিবারের বা দলের ছিল না। এটা ছিল পুরো জাতির যুদ্ধ।’

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন সিজিআইয়ের নির্বাহী পরিচালক জিল্লুর রহমান।

 

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

রাজনীতি বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image