• ঢাকা
  • শনিবার, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ২০ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযানে কঠোর অবস্থানে সরকার: প্রধানমন্ত্রী


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শনিবার, ২৯ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০:৪৪ পিএম
দুর্নীতির বিরুদ্ধে, অভিযানে, কঠোর অবস্থানে, সরকার, প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষণা করেছেন, দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে। 'দুর্নীতি করলে কারও রক্ষা নেই। যারাই দুর্নীতি করবে, আমরা ধরব।'

শনিবার (২৯ জুন) জাতীয় সংসদে ২০২৪-২৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। এর আগে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠক শুরু হয়।

প্রধানমন্ত্রী আরও জানান, ২০০৯ সাল থেকে বাংলাদেশ ধারাবাহিকভাবে এগিয়ে যাচ্ছে এবং কিছু দুষ্টু প্রকৃতির লোক ছাড়া দেশের জনগণ কর্মঠ ও সৃজনশীল। বাজেটে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এই সুযোগ অতীতেও খালেদা জিয়া, ড. কামাল হোসেনসহ অনেকেই নিয়েছিলেন।

বিরোধীদলীয় নেতা জি এম কাদেরের বক্তব্যের জবাবে তিনি উল্লেখ করেন, "টেন্ডার না দিয়ে কাজ দেওয়ার বিষয়টি মন্ত্রী থাকাকালীন তিনি নিজেই রপ্ত করেছিলেন।"

মেট্রোরেল নির্মাণের বিরোধিতাকারীদের সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত মেট্রোরেল বর্তমানে ২ লাখ ৪০ হাজার যাত্রী পরিবহন করছে। তিনি জানান, ২০৩০ সালের মধ্যে ঢাকা শহরের যানজট নিরসনে এমআরটি লাইন-১, লাইন-২, লাইন-৪ ও লাইন-৫-এর কাজ সম্পন্ন করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে বর্তমানে বিপুল পরিমাণ ভর্তুকি দেওয়া হচ্ছে। তবে, ভবিষ্যতে এ ভর্তুকি ধীরে ধীরে কমানো হবে। তিনি আরও জানান, ২০২৫ সালের ১ জুলাই থেকে নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সর্বজনীন পেনশন স্কিমের আওতায় অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ নির্বাচনী ইশতেহার ভুলে যায়নি এবং বাজেটকে উচ্চাভিলাষী মনে করেন না। তিনি উল্লেখ করেন, ঋণের চাহিদা, অর্থের জোগান, ব্যাংক আর গ্রাহক সম্পর্কের ভিত্তিতে সুদের নির্ধারণ পদ্ধতি গ্রহণ করা হয়েছে এবং কম গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন খাতে ব্যয় কমানোর পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বেকারত্বের হার তিন ভাগ, যা সবাই চাইলে কাজ করতে পারে। ২০০৯ সালে জিডিপির আকার ছিল ১০২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার, যা ২০২৩ সালে বেড়ে ৪৬০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার হয়েছে। মন্দ ঋণের হার ৯ দশমিক ৯ শতাংশ, যা পূর্বের চেয়ে হ্রাস পেয়েছে।

২০২৪-২৫ অর্থবছরের বাজেট উপস্থাপন করেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। বাজেট নিয়ে সংসদে ১১ দিন আলোচনা হয়, যেখানে ২৩৪ জন এমপি অংশ নেন।

 

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image