• ঢাকা
  • শুক্রবার, ১৭ আষাঢ় ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ০১ জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

মাত্র একদিনের পেট্রোল মজুদ আছে: শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৭ মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১০:৩৫ এএম
পেট্রোল মজুদ

ডেস্ক রিপোর্টার: শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে  সতর্ক করে বলেছেন, আর মাত্র একদিন চলার মত পেট্রোল রয়েছে। সোমবার জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া ভাষণে একথা বলেন শ্রীলঙ্কার নতুন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, আগামী কয়েক মাস শ্রীলঙ্কার বাসিন্দারা কঠিন সময় পার করবেন।

ত্যাগ স্বীকার এবং কঠিন এই পরিস্থিতির মোকাবিলা করার জন্য তাদের প্রস্তুত হতে হবে বলে জানান রনিল। আগামী কয়েকদিন নিত্যপণ্য আমদানি করতে জরুরি ভিত্তিতে সাড়ে সাত কোটি মার্কিন ডলার বৈদেশিক মুদ্রা প্রয়োজন। ভারতের পাঠানো পেট্রোল ও ডিজেলের চারটি চালান আগামী কয়েকদিনের জন্য স্বস্তি দিলেও ১৪টি জরুরি ওষুদের ঘাটতি রয়েছে। এছাড়া সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন এবং অন্যান্য অর্থ পরিশোধে কেন্দ্রীয় ব্যাংক আরও রুপি মুদ্রণ করবে। কিন্তু এতে শ্রীলঙ্কার রুপির মান আরও কমে যাবে বলে জানান তিনি। ব্যয় কমাতে দেশটির রাষ্ট্রীয় বিমান সংস্থা শ্রীলঙ্কান এয়ারলাইন্সকে বিক্রির প্রস্তাব দেন তিনি।    

নিত্যপণ্য আমদানির জন্য প্রয়োজনীয় ডলার নেই জানিয়ে রনিল বিক্রমাসিংহে বলেন, ‘আমাদের কাছে পেট্রোল নেই, এই মুহূর্তে আর মাত্র একদিনের পেট্রোল মজুদ আছে। কলম্বো বন্দরের সন্নিকটে তিনটি পেট্রোলবাহী জাহাজ অপেক্ষা করছে। ডলারের অভাবে তাদের মূল্য পরিশোধ করে জাহাজগুলো থেকে তেলের কার্গো খালাস করা যাচ্ছে না।’

জরুরি ভিত্তিতে এখন শ্রীলঙ্কার জরুরি পণ্য আমদানির জন্য ৭৫ মিলিয়ন অর্থাৎ সাড়ে সাত কোটি মার্কিন ডলারের প্রয়োজন বলে জানান দেশটির প্রধানমন্ত্রী।

রনিল বিক্রমাসিংহে বলেন, ‘আগামী কয়েক মাস আমাদের জীবনের সবচেয়ে কঠিন সময় হবে। সত্য লুকিয়ে জনগণের সামনে মিথ্যা বলার কোনো ইচ্ছে নেই আমার।’

দুই কোটি ২০ লাখ মানুষের দেশটিতে গত সোমবার (৯ মে) বিক্ষোভের মুখে প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে পদত্যাগ করেন মাহিন্দা রাজাপাকসে। এরপরও বিক্ষোভকারীরা প্রেসিডেন্টের পদত্যাগের দাবি জানিয়ে রাজপথে বিক্ষোভ অব্যাহত রাখেন।

গত বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেন রনিল বিক্রমাসিংহে। অর্থনৈতিক সংকটে টালমাটাল শ্রীলঙ্কায় সরকার পতনের দাবিতে মাসখানেকের বেশি সময় ধরে বিক্ষোভ চলছিল। এরই মধ্যে এ বিক্ষোভ সংঘর্ষে একজন সংসদ সদস্যসহ অন্তত আটজনের প্রাণহানিও ঘটেছে। সহসাই দেশটির অর্থনৈতিক সংকট থেকে মুক্তি মিলবে বলে মনে করছেন না বিশেষজ্ঞেরা।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আর্ন্তজাতিক বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image