• ঢাকা
  • রবিবার, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ২৭ নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

মঠবাড়িয়ায় সরকারি জমি দখল করে দোকান ঘর নির্মাণের অভিযোগ 


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বুধবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৫:৩১ পিএম
সরকারি জমি দখল করে দোকান ঘর নির্মাণের অভিযোগ 

মজিবর রহমান, পিরোজপুর প্রতিনিধি : পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার প্রাণিসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারি হাসপাতালের জমি দখল করে দোকান ঘর নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে।সীমানা প্রাচীর না থাকায় চলছে দখলের মহোৎসব।সরকারের প্রায় দুই কোটি টাকার জমি দখল করে দোকান ঘর নির্মাণ করেছেন প্রভাবশালীরা। 

উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারি হাসপাতাল সূএে জানা গেছে,পৌর শহরের ৫ নং ওয়ার্ডের মঠবাড়িয়া -পাথরঘাটা -চরখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারি হাসপাতালের সরকারি জমিতে সীমানা প্রাচীর না থাকায় সাম্প্রতিকালে সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে স্থাপনা নির্মাণ করে দোকানঘর হিসেবে ভাড়া দিয়ে আসছেন সিদ্দিক,মোস্তফা,সুমন, জামাল,কালাম মিয়া,তোতা মিস্ত্রী,আমেনা বেগম,বেল্লাল,শাহিন নামে একটি প্রভাবশালী চক্র।

অতি সম্প্রতি আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে ড্রেন নির্মাণ করেন পিরোজপুর সড়ক ও জনপদ বিভাগ।ওই ড্রেনের পশ্চিম পাশে দীর্ঘদিন ধরে উপজেলা প্রাণী সম্পদ দপ্তরের   অরক্ষিত জমিতে পুনরায় রাতের আঁধারে দুটি দোকান ঘর নির্মাণ করা হয়।উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা অবৈধ দোকান নির্মাণকারীদের অফিসে ডেকে দখল মুক্ত করার জন্য দোকান সরিয়ে নিতে নির্দেশ প্রদান করলেও প্রভাবশালীরা সে নির্দেশ উপেক্ষা করেছেন।অবৈধ দখলদাররা সরকারি দলের ছএ ছায়ায় থেকে বহাল তবিয়তে থাকায়   সরকারি জমি রক্ষা করতে নানা প্রক্রিয়া গ্রহণ করেও সফল হতে পারেনি উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ মোহাঃ নুর আলম জানান,উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারি হাসপাতালের জমি এর আগে ৯ প্রভাবশালী ব্যক্তি অবৈধভাবে দখল করে দোকানদার নির্মাণ করেছেন।বর্তমানে টিপু ও মঞ্জু নামে দুই ব্যক্তি রাতের আঁধারে বেআইনিভাবে দুটি দোকান ঘর নির্মাণ করছেন।সরকারি জমি দখল মুক্ত করার জন্য ইতোমধ্যে সরকারী হিসাব সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও পিরোজপুর -৩ মঠবাড়িয়া আসনের সংসদ সদস্য ডাঃরুস্তম আলী ফরাজি মহোদয়,উপজেলা চেয়ারম্যান মহোদয় কে অবহিত করেছি।এছাড়া জেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের উপ-পরিচালক,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউ এন ও)ও মঠবাড়িয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে।উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মহোদয় তাৎক্ষণিকভাবে ওসিকে অবৈধ দোকান ঘরের নির্মাণ কাজ বন্ধের নির্দেশ দেন।থানা পুলিশ কর্তৃক বন্ধ করে দেয়া ঘরের কাজ পুনরায় আজ মঙ্গলবার(১৫ নভেম্বর)প্রকাশ্য দিবালোকে প্রভাবশালীরা শুরু করেন।    

এ বিষয় জেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তরের উপ-পরিচালক ডাঃ তরুণ কুমার সিকদার জানান,মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী মহোদয় কে মঠবাড়িয়া উপজেলা প্রাণী সম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারী হাসপাতালের অরক্ষিত জমিতে দখলদারদের ঠেকাতে জরুরী ভিত্তিতে সীমানা প্রাচীর দেয়ার অর্থ বরাদ্দ প্রাপ্তির জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদের জন্য গত জেলা কমিটির সভায় উপস্থাপন করা হয়েছিল।পরবর্তী জেলা কমিটির সভায় পুনরায় জেলা প্রশাসক মহোদয়কে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদের অনুরোধ করা হবে।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

অপরাধ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image