• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ৭ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ; ২০ জানুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

ইউপি নির্বাচনে ব্যাপক সহিংসতা ১০ জন নিহত


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ০৬ জানুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৯:৩৫ এএম
এতে কয়েকটি স্থানে ভোট গ্রহণ সা
প্রতিপক্ষের হামলাসহ নানা ঘটনা

নিউজ ডেস্ক:    ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের পঞ্চম ধাপেও ব্যাপক সহিংসতা ও প্রাণহানি ঘটল। বুধবার বিভিন্ন স্থানে প্রতিপক্ষের হামলাসহ নানা ঘটনায় অন্তত ১০ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে বগুড়ায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর গুলিতে পাঁচজন এবং চাঁদপুর, চট্টগ্রাম, গাইবান্ধা, ঝিনাইদহ ও মানিকগঞ্জে একজন করে মারা গেছেন।

আরও বহু স্থানে সংঘর্ষে প্রার্থীসহ অন্তত দেড়শজন আহত হয়েছেন। এ ধাপেও যথারীতি জাল ভোট, কেন্দ্র দখল, ব্যালট পেপার ছিনতাইসহ নানা অনিয়ম হয়েছে। এতে কয়েকটি স্থানে ভোট গ্রহণ সাময়িকভাবে স্থগিতও করতে হয়। পুলিশকে ফাঁকা গুলি ছুড়তে হয়েছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য।

এজেন্টদের মারধর, ভোটারদের কেন্দ্রে প্রবেশে বাধা এবং নৌকা প্রতীকে প্রকাশ্যে সিল মারার মতো অনিয়ম ঘটেছে বহু স্থানে। ভোটে অনিয়মের অভিযোগে অন্তত তিন নির্বাচনী কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ইউপি নির্বাচনে বুধবার পর্যন্ত ১০২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে গত বছরের ২১ জুন প্রথম ধাপের ভোটের দিন নিহত হন তিনজন। এরপর ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় ধাপের দিন মারা যান সাতজন। ২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপের ভোটে নিহত হন ৯ জন। ২৬ ডিসেম্বর চতুর্থ ধাপে তিনজন মারা যান। নির্বাচনকে ঘিরে বুধবারের আগ পর্যন্ত সারাদেশে সহিংসতায় নিহতের সংখ্যা ছিল ৯২। বাকি মৃত্যু ঘটেছে বিভিন্ন ধাপে ভোটের মাঝের সময়টাতে।

বগুড়ার গাবতলী উপজেলার বালিয়াদীঘি ইউনিয়নের কালাইহাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ শেষে রাতে স্থানীয় জনতার সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে এক নারীসহ চারজন নিহত এবং আরও অন্তত তিনজন আহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন কালাইহাটা মধ্যপাড়া গ্রামের মধ্যপাড়ার খোকন মণ্ডলের স্ত্রী কুলকুস বেগম (৪৫), কালাইহাটা পশ্চিমপাড়ার আব্দুর রশিদ (৪৮), কালাইহাটা মধ্যপাড়ার আলমগীর হোসেন (৩৫) ও খোরশেদ আকন্দ (৬৫)।

আহতদের মধ্যে গুলিবিদ্ধ তিনজনকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে শুধু কুলসুম বেগমের মৃত্যুর কথা স্বীকার করা হয়েছে। অবশ্য অন্য তিনজনের নিহত হওয়ার কথা তাদের স্বজনরা সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নির্বাচনের ফলাফল কেন্দ্রের বাইরে অন্যত্র ঘোষণা করা হবে- এমন সন্দেহ থেকে ভোট গ্রহণ শেষ হওয়ার পরপরই বিক্ষুব্ধ জনতা কালাইহাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র ঘেরাও করেন। এরপর সন্ধ্যার দিকে তারা নির্বাচনী দায়িত্বে নিয়োজিত সরকারি কর্মকর্তাদের লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছুড়তে শুরু করেন। তখন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা তাদের নিবৃত্ত করতে গেলে সংঘর্ষ শুরু হয়। প্রায় এক ঘণ্টা পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। পরে ওই কেন্দ্রের ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

ঢাকানিউজ২৪.কম /

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image