• ঢাকা
  • রবিবার, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ২৭ নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

শরিফুল-জয়কে ভবিষ্যৎ কিংবদন্তি আখ্যা দিলেন নাভিদ


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১০ মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৫:৫৩ পিএম
শরিফুল-জয়
শরিফুল-জয়

ডেস্ক রিপোর্টার: বাংলাদেশকে প্রথমবারের মতো যুব বিশ্বকাপের ট্রফি এনে দেওয়া দলের দুই গুরুত্বপূর্ণ সদস্য শরিফুল ইসলাম ও মাহমুদুল হাসান জয়। একজন বল হাতে, অন্যজন ব্যাট হাতে দ্যুতি ছড়িয়ে জাতীয় দলে নিজেদের জায়গা পাকাপোক্ত করে নিয়েছেন।

দুজনকেই বাংলাদেশ ক্রিকেটের ভবিষ্যৎ কিংবদন্তির আখ্যা দিয়েছেন শ্রীলঙ্কার সহকারী কোচ নাভিদ নেওয়াজ। যার কোচিং নেতৃত্বেই শরিফুল-জয়রা যুব বিশ্বকাপ জিতেছিল। এবার সাবেক শিষ্যদের বিপক্ষেই পরিকল্পনা নিয়ে মাঠে নামবেন নাভিদ।

আইসিসি বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অধীন দুই টেস্টের সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ সফরে শ্রীলঙ্কা। প্রথম ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৫ মে ‘সাগরিকা’খ্যাত চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে। এই ম্যাচ শেষে দুদল পাড়ি জমাবে রাজধানী ঢাকায়। ‘হোম অব ক্রিকেট’খ্যাত মিরপুরের শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দুই ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট মাঠে গড়াবে ২৩ মে।

বাংলাদেশের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে সংবাদ সম্মেলনে মুখোমুখি হয়েছেন শ্রীলঙ্কার সহকারী কোচ নাভিদ নেওয়াজ। যেখানে তিনি টাইগার ক্রিকেটের দুই উঠতি তারকা, পেসার শরিফুল ও ব্যাটার জয়কে দেখছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের ভবিষ্যৎ কিংবদন্তি হিসেবেই। তিনি বলেন, ‘আশা করি তারা একদিন বাংলাদেশ ক্রিকেটের কিংবদন্তি হবে। তারা অবশ্যই আমাকে দেখে খুশি হবে, বেশ কিছুদিন দেখা হয় না। সব মিলিয়ে সেটি হয়তো ইতিবাচকই হবে।’

নাভিদের অধীন বয়সভিত্তিক দলে দীক্ষা নিয়েছিলেন শরিফুল-জয়রা। সাকিব-তামিমরা যা করে দেখাতে পারেননি নাভিদের শিষ্যরা তাই করে দেখিয়েছিলেন। ২০২০ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে যুব বিশ্বকাপের ফাইনালে ভারতকে হারিয়ে শিরোপা জিতেছিল শরিফুলরা। নাভিদ তাই ভালো করেই জানেন তার শিষ্যদের যোগ্যতা।

তিনি বলেন, ‘যেকোনো পরিস্থিতি সামলানোর মতো স্কিল তাদের আছে। আমি থাকা না-থাকায় কিছু যায়-আসে না। তারা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সাফল্য পেয়েছে। ভবিষ্যতেও বিভিন্ন দেশে গিয়ে মানিয়ে নিতে হবে। কোচ হিসেবে আমাদের কাজ খেলোয়াড়দের প্রস্তুত করা, যাতে তারা যেকোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচে পারফর্ম করতে পারে।’

শ্রীলঙ্কা দলের কোচ হয়ে আসার আগে চার বছর বাংলাদেশে কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। নতুন তারকা ক্রিকেটার তৈরিতে করে গেছেন কাজ। এবার তিনি তার সাবেক শিষ্যদের পরীক্ষা নেবেন প্রতিপক্ষের ভূমিকায়। এতে বেশ উচ্ছ্বসিত নাভিদ বলেন, ‘ফিরতে পেরে ভালো লাগছে। বাংলাদেশে চার বছর খুব উপভোগ করেছি। দারুণ সময় ছিল। আমার মনে হয়, আমার চার বছরে বাংলাদেশকে কিছু দিতে পেরেছি, সুবিচার করতে পেরেছি।’

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

খেলা বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image