• ঢাকা
  • শনিবার, ১৫ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ২৮ জানুয়ারী, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

বাস্তবতার নিরিখেই মেট্রোরেলের ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে: কাদের


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২৭ ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৩:২৩ পিএম
সংবাদ,সম্মেলনে,কাদের
মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে মেট্রোরেল নিযে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন কাদের

মোহাম্মদ রুবেল

উচ্ছ্বসিত জনতার বিস্মিত দৃষ্টির সামনে দেশের রাজধানীর আকাশে চূড়ান্তভাবে পাখা মেলবে স্বপ্নের সারথি মেট্রোরেল। যা এখন দেশবাসীর কাছে স্বপ্ন নয় বাস্তব চিত্র।সেই চিত্র চোখের সামনে নতুন ভোরের তপ্ত লাল সূর্যভেদ করে চলবে নগরীতে। সেই মাহেন্দ্র ক্ষণের অপেক্ষায় এখন উচ্ছ্বসিত জনতার বিস্মিত চোখ। সেই অপেক্ষমান ক্লান্তি চোখের অবসান হচ্ছে আগামীকাল বুধবার উন্নয়ন অগ্রযাত্রার স্বপ্নের সারথি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরেই উদ্বোধন হচ্ছে নতুন এই দিগন্তের। কিন্তু স্বপ্নের এই  মেট্রোরেলের ভাড়া নির্ধারণ নিয়ে অভিযোগ রয়েছে সাধারণ মানুষের। এরই মধ্যে বিভিন্ন মহল থেকে ভাড়া কমানোর দাবি উঠেছে।

অপরদিকে  সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলছেন, বাস্তবতার নিরিখেই এই ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে। সবাই এটা মেনে নেবে আশা করছি।   

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে মেট্রোরেলের উদ্বোধনের আগের দিন আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

ভাড়া নির্ধারণের যৌক্তিকতা তুলে ধরে ওবায়দুল কাদের বলেন, 'এখন যে অবস্থান ঢাকা সিটিতে, আপনি উত্তরা থেকে কমলাপুর আসবেন ১০০ টাকা। কত মিনিটে আসবেন? ৩৮ মিনিটে। তাহলে কোথায় লস হলো।'

সরকারের সড়ক পরিবহন মন্ত্রী বলেন, 'প্রত্যেকে আনন্দের সঙ্গে এটা গ্রহণ করবে। ভাড়া একটা বিষয়। তবে বাস্তবে এটা সবাই এক্সেপ্ট করবে। মিনিমাম রিক্সাভাড়া এখন ২০ টাকা।'

মেট্রোরেলের পরিচালক এন এম সিদ্দিক বলেন, 'আপনি নিশ্চয়ই কলকাতা মেট্রো হতে চলেছেন। এটা কখন হয়েছে? একবার একটু চিন্তা করে দেখেন। আর কলকাতা মেট্রোরেলে কী ফেসিলিটি আছে এবং এখানকার মেট্রোরেলে কী ফেসিলিটি আছে সেটা দেখেন। মেট্রো ট্রেন যে কতটুকু সময় সাশ্রয় সেটা দেখে নেবেন। মাননীয় মন্ত্রী মহোদয় ইতোমধ্যে বলেছেন, আমাদের ননস্টপ আছে, তাতে ১০ মিনিট ১০ সেকেন্ডে যাতায়াত করা যাবে। উত্তরা থেকে আপনি এমনি যদি আসেন আপনার কতক্ষণ লাগবে, এটা চিন্তা করে দেখেন।'

মেট্রোরেল পরিচালক জানান, মেট্রোরেলের কারণে ৩ দশমিক ৮ মিলিয়ন অর্থ সাশ্রয় হবে। বর্তমান টাকার অঙ্কে ৪২ হাজার কোটি টাকা। তিনি বলেন, 'ভাড়াটা যেটা ঠিক করা হয়েছে সেটা বর্তমান প্রেক্ষাপটে। আপনি যদি টাইম মেশিনে পেছনে চলে যান তারপর যদি হিসাব করেন তাহলে তা হবে না। আপনি সম্প্রতি যেসব দেশের মেট্রোরেল তৈরি হয়েছে তার সঙ্গে আপনি তুলনা করবেন দেখবেন যে, আমরা সেই জায়গাটাতে আছি।'

তিনি আরও জানান, মেট্রোরেল বিদ্যুতে চলাচল করবে। যে দেশে বিদ্যুতের দাম যেমন সে অনুযায়ী ভাড়া নির্ধারণ করা হয়। তিনি বলেন, 'এটা একেবারে সর্বনিম্ন ভাড়া এবং এই ভাড়া দিয়ে মেট্রোরেল লাভজনকভাবে পরিচালনা করা যাবে না।'

এখন যে স্টেশনগুলো চালু করা হচ্ছে না, সেগুলো আদৌ প্রস্তুত আছে কি না এবং মেট্রোরেল তাড়াহুড়ো করে চালু করা হলো কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে এন এম সিদ্দিক বলেন, 'প্রত্যেকটা স্টেশন প্রস্তুত আছে। এখানে কোনো তাড়াহুড়ার বিষয় নেই। আমরা একাধিক বার বলেছি। মানুষের অভ্যস্ততা হলো বড় বিষয়। এজন্য এটা করা হয়েছে৷ মানুষের অভ্যস্ততার সঙ্গে সামঞ্জস্য করার জন্য আমরা এটা করেছি। তিন মাস পরে ২৬ মার্চ প্রত্যেকটি স্টেশনে ট্রেন থেমে যাবে এবং আস্তে আস্তে মানুষ যখন অভ্যস্ত হয়ে যাবে তখন ট্রেনের সংখ্যাগুলো বাড়বে। আমাদের এখানে কোথাও কোনো কাজ বাকি নেই। এখানে কোনো তাড়াহুড়ার বিষয় নেই। বাস্তবতার নিরিখে এটা আন্তর্জাতিক স্বীকৃত একটা পদ্ধতি। আমরা সেই পদ্ধতি অনুসরণ করে অগ্রসর হচ্ছি।'

ঢাকানিউজ২৪.কম / এম আর

জাতীয় বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image