• ঢাকা
  • শনিবার, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ২১ মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

লেখক হুমায়ুন আজাদ হত্যা মামলার রায় আজ


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বুধবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৯:২৮ এএম
লেখক হুমায়ুন আজাদ হত্যা মামলার রায়
লেখক অধ্যাপক ডক্টর হুমায়ুন আজাদ

ডেস্ক রিপোর্টার: লেখক অধ্যাপক ডক্টর হুমায়ুন আজাদ হত্যা মামলার রায় দীর্ঘ আঠারো বছর পর আজ মঙ্গলবার ঘোষণা হচ্ছে । ঢাকার চতুর্থ অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক আল-মামুন দুপুরে রায় ঘোষণা করবেন। রায়ে পলাতক তিন আসামিসহ ৫ আসামির সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড আশা করছে রাষ্ট্রপক্ষ। আসামিপক্ষ বলছে, ন্যায়বিচার পেলে খালাস পাবেন তারা।

আঠার বছর আগে ২০০৪ সালের ২৭শে ফেব্রুয়ারি একুশে বইমেলা থেকে বাসায় ফেরার পথে পরমাণু শক্তি কমিশনের সামনে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হন হুমায়ুন আজাদ।  এ সময় তাকে চাপাতি ও কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে দুর্বৃত্তরা।  ঘটনার পরদিন তার ভাই মঞ্জুর কবির রাজধানীর রমনা থানায় একটি হত্যাচেষ্টা মামলা করেন।

২২ দিন ঢাকা সিএমএইচ হাসপাতালে এবং ৪৮ দিন ব্যাংককে চিকিৎসাধীন ছিলেন হুমায়ুন আজাদ।  পরে ওই বছর ১২ই আগস্ট জার্মানির মিউনিখে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।  হুমায়ুন আজাদ মারা যাওয়ার পর এটি হত্যা মামলায় রূপান্তর হয়।

আলোচিত এ মামলায় ২০০৭ সালের ১৪ই নভেম্বর পাঁচ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয় সিআইডি।  আর ২০১২ সালের ১০ই সেপ্টেম্বর অভিযোগ গঠন করে আদালত।  এ মামলায় সাক্ষ্য দেন ৪১ জন।  গেল ২৭শে মার্চ রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক শেষ হয়।

সাক্ষ্যে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় সব আসামির মৃত্যুদণ্ড দেবে আদালত, এমন প্রত্যাশা রাষ্ট্রপক্ষের।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আবদুল্লাহ আবু বলেন, 'হুমায়ুন আজাদ হত্যা মামলায় মোট আসামী পাঁচ জন। এ মামলায় মোট সাক্ষী ৫৮ জন। তার মধ্যে ৪২ জন সাক্ষ দিয়েছে। আমাদের প্রত্যাশা যে আসামীদের সর্বচ্চ শাস্তি হবে।'

আসামিপক্ষের আইনজীবীফারুক আহমেদ বলেন, 'ঘটনার ছয় মাস পর স্যার মারা গেছেন। ছয় মাস পর মারা গেলে এটা ৩০২ ধারায় মামলা চার্জ গঠণ করা সঠিক হয়েছিল কিনা এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসবে। আমরা মাননীয় আদালতের কাছে উপস্থাপন করেছি যে ৩০২ ধারার কোনো উপাদান এখানে নাই। আমরা আশা করছি যে আমাদের আসামীরা ন্যায় বিচার পাবে।'

কথিত বন্দুকযুদ্ধে এক আসামি রাকিব নিহত হয়।  আসামি মিজানুর রহমান ও আনোয়ারুল আলম কারাগারে।  আর নুর মোহাম্মদ ও সালেহীন পলাতক।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আইন ও আদালত বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image