• ঢাকা
  • বুধবার, ২০ আশ্বিন ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ০৫ অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

শাঁখা সিঁদুরে আপত্তি জানানো দুই শিক্ষককে প্রত্যাহার ও শোকজ


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শুক্রবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৫:৪৭ পিএম
স্কুল
নরসিংদী সরকারী স্কুল

নিউজ ডেস্ক:  নরসিংদীর একটি স্কুলে কয়েকজন এসএসসি নারী শিক্ষার্থীকে শাঁখা খুলে ও সিঁদুর মুছে প্রবেশ করতে দেওয়ায় দুই শিক্ষক কে দায়িত্ব থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। তাদের কে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা ও কেন্দ্র সচিব শিউলি আক্তার একটি ইংরেজি দৈনিককে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ঘটনা নরসিংদী সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ে। সেখানে এসএসসি পরীক্ষার আসন ফেলা হয়। কয়েকজন হিন্দু সম্প্রদায়ের নারী শিক্ষার্থী শাঁখা সিঁদুর পরে পরীক্ষা অংশ নিতে চাইলে তাদেরকে বাধা দেয় স্কুলের সিনিয়র সহকারী শিক্ষক তাহমিনা ফেরদৌসি ও আকিকুন নাহার। তবে কাজটি তারা করেন বেশ কয়েকটি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবার পর। গত ১৯ সেপ্টেম্বর ইংরেজি প্রথম পত্র পরীক্ষা দেবার সময় বাইরে দাঁড় করিয়ে রাখে শাঁখা সিঁদুর পরিহিত হিন্দু নারী শিক্ষার্থীদের। এই দুই শিক্ষক হিন্দু পরীক্ষার্থীদের শাঁখা সিঁদুর নিয়ে পরীক্ষার হলে ঢুকতে নিষেধ করেন। শাঁখা খুলতে ও সিঁদুর মুছতে বাধ্য করেন তারা। 

অথচ এই হিন্দু পরীক্ষার্থীরা একই স্থানে বাংলা প্রথম ও বাংলা দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা দিয়েছে। তখন তাদের শাঁখা খুলতে ও সিঁদুর মুছতে হয়নি। 

সম্প্রতি এই ঘটনাটা সংবাদ পত্রে না আসলেও ওই ঘটনার সঙ্গে জড়িত সৃষ্টি দাশ নামের এক নারীর সাক্ষাৎকারের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়ে। এতে প্রশাসনের দৃষ্টিগোচর হয়। তারপর এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশে চরমোনাই পীরের হাত পাখা মার্কা ইসলামী ঐক্যজোট পার্টি জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে বাংলাদেশের হিন্দু নারীদের শাখা সিঁদুর পরতে দেওয়া হবে না ও ছেলেদের ধূতি পরতে দেওয়া হবে না এমন ফতোয়া জারি করে ছিল। 

ভারতের কর্ণাটকে হিজাব বুরকা পরে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশে বাধার প্রতিবাদে এসব পাল্টা যুক্তি দেয় নির্বাচন কমিশন কর্তৃক নিবন্ধিত এই সাম্প্রদায়িক উগ্র জঙ্গি জিহাদি রাজনৈতিক দলটি। 

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর বোর্ড পরীক্ষায় প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে প্রবেশ পত্র দেওয়া হয়। সেই প্রবেশ পত্রের পিছনে একটি গাইড লাইন দেওয়া থাকে। সেখানে পরিষ্কার ভাবে লেখা থাকে একজন শিক্ষার্থী পরীক্ষার হলে কি নিয়ে ঢুকতে পারবে আর কি নিয়ে ঢুকতে পারবে না। শাঁখা সিঁদুরের কথা সেখানে উল্লেখ নেই। পরীক্ষার হলে ইউনিফর্ম পরে আসতে হবে এমন নিয়মের কথাও লেখা নেই। তাই এসব বিষয়ে কোনো শিক্ষকের প্রশ্ন তোলা অবান্তর অপ্রাসঙ্গিক। 
 

ঢাকানিউজ২৪.কম / এসডি

শিক্ষা বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image