• ঢাকা
  • বুধবার, ২ ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ১৭ আগষ্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

নতুন বছরে পুঁজিবাজার ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শুক্রবার, ০৭ জানুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৯:১৪ পিএম
পুঁজিবাজার, শেয়ারবাজার, ডিএসই

মাসুদুল হক সৈকত: নতুন বছরে অর্থাৎ ২০২২ সালে দেশের শেয়ার বাজার ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। বছরের প্রথম সপ্তাহেই বিনিয়োগকারীদের মধ্যে উৎসাহ দেখা দিয়েছে।  তথ্য বলছে, বাজারের সূচক ৭ হাজার ছুঁইছুঁই করছে।

নতুন বছরের পঞ্চম কার্যদিবস বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় পুঁজিবাজারে লেনদেন হয়েছে। এদিন সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে লেনদেন। ফলে টানা ছয় কার্যদিবস পুঁজিবাজারে উত্থান হলো। বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বৃহস্পতিবার ব্যাংক, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি, টেলিকমিউনিকেশন খাতের অধিকাংশ শেয়ারের দাম বাড়ায় সূচক বেড়েছে।

তথ্য বলছে, দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) লেনদেন দেড় হাজার কোটি টাকার কোটা অতিক্রম করেছে, যা দুই মাস ৯ দিনের মধ্যে সর্বোচ্চ লেনদেন। এর আগে গত ২৮ অক্টোবর ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৭২৪ কোটি ৪৮ লাখ ১১ হাজার টাকা।

ডিএসইর তথ্য অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার (৬ জানুয়ারি) ডিএসইর প্রধান সূচক ৫৭ পয়েন্ট বেড়ে ৬ হাজার ৯৮৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

এদিকে বিনিয়োগকারীরা বলছেন, গত বছরের শেষ কয়েক দিনের মন্দাভাব অনেকাংশে কেটে যাচ্ছে। বিশেষ করে ভালো মৌলভিত্তি ও বড় মূলধনি কোম্পানির শেয়ারের গুরুত্ব বাড়ছে। এর মধ্যে বাজারে লেনদেন হওয়া অধিকাংশ ব্যাংকের শেয়ারের দাম বেড়েছে।

বাজারসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, ব্যাংকের শেয়ারের মূল্যবৃদ্ধির পেছনে বড় কারণ ছিল সদ্য বিদায়ী বছরের পরিচালন মুনাফা। বছরের প্রথম কার্যদিবসে সূচকের বড় উত্থান বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আবারও আশা জাগিয়েছে। একইভাবে করোনার মধ্যেও শেয়ার বাজারের তালিকাভুক্ত তারকা হোটেলগুলোর ব্যবসা এখন রমরমা।

সার্বিকভাবে বড় ধরনের উত্থান দিয়ে ২০২২ সালের প্রথম সপ্তাহ পার করেছে দেশের শেয়ার বাজার। এতে প্রধান শেয়ার বাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) বাজার মূলধন এক সপ্তাহেই সাড়ে ১৫ হাজার কোটি টাকার ওপরে বেড়েছে। সেইসঙ্গে বড় উত্থান হয়েছে সবকটি মূল্যসূচকের। পাশাপাশি বেড়েছে লেনদেন।

বাজারের তথ্য বলছে, গত সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসের লেনদেন শেষে ডিএসইর বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৫ লাখ ৫৮ হাজার ৩১ কোটি টাকা। যা তার আগের সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ছিল ৫ লাখ ৪২ হাজার ১৯৬ কোটি টাকা। অর্থাৎ গত সপ্তাহে ডিএসইর বাজার মূলধন বেড়েছে ১৫ হাজার ৮৩৫ কোটি টাকা।

সপ্তাহজুড়ে ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেওয়া ২৮৬টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ৮৬টির। আর ১০টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

এতে গত সপ্তাহে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ডিএসইএক্স বেড়েছে ২৩০ দশমিক ৭৯ পয়েন্ট। আগের সপ্তাহে সূচকটি বেড়েছিল ৫৪ দশমিক শূন্য ৫ পয়েন্ট। তার আগে টানা দুই সপ্তাহ সূচকটি কমে। এতে ডিএসইর প্রধান মূল্যসূচক ২৮২ পয়েন্ট কমে যায়।

প্রধান মূল্যসূচকের পাশাপাশি গত সপ্তাহে বেড়েছে ইসলামি শরিয়াহ ভিত্তিতে পরিচালিত কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএসই শরিয়াহ্ সূচকও। গত সপ্তাহজুড়ে সূচকটি ৪১ দশমিক শূন্য ৩ পয়েন্ট। আগের সপ্তাহে সূচকটি বেড়েছিল ৭ দশমিক ৪৭ পয়েন্ট।

বাছাই করা ভালো কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএসই-৩০ সূচকও টানা দুই সপ্তাহ বেড়েছে। গত সপ্তাহজুড়ে এই সূচকটি বেড়েছে ৭০ দশমিক ৫০ পয়েন্ট। আগের সপ্তাহে সূচকটি বেড়েছিল ২০ দশমিক ৫৯ পয়েন্ট।

ঢাকানিউজ২৪.কম / এসপি

অর্থনীতি বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image