• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ০৮ ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

নদী ও পরিবেশ নিয়ে কাজ করার ফাউন্ডার হলেন শেখ হাসিনা -নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১২:২০ পিএম
নদী ও পরিবেশ নিয়ে কথা বলা ফাউন্ডার শেখ হাসিনা
নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহ্মুদ চৌধুরী

নিউজ ডেস্ক : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহ্মুদ চৌধুরী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৯৯৮ সালে ঢাকার চারপাশের নদীগুলোকে দখল ও দূষণের হাত থেকে রক্ষা করার পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিলেন। কিন্তু ২০০১ সালে নির্বাচনের পর নদী ও পরিবেশ রক্ষায় আর কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি। এতে বাংলাদেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বাংলাদেশের নদী ও পরিবেশের ক্ষতি হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ১৪ বছরে নদীর নাব‍্যতা ধরে রাখার জন‍্য অনেক পদক্ষেপ নিয়েছেন। ফলে দেশ সবসূচকে এগিয়ে যাচ্ছে। দীর্ঘ ২১বছর পর আওয়ামী লীগ ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় এসে নদী ও পরিবেশ নিয়ে কথা বলেন।নদী ও পরিবেশ নিয়ে কথা বলা ও কাজ করার 'ফাউন্ডার' হলেন 'শেখ হাসিনা'।

গতকাল  ঢাকায় সিরডাপ মিলনায়তনে ‘বুড়িগঙ্গা নদী তীরবর্তী ডকইয়ার্ডসমূহ উপযুক্ত জায়গায় স্থানান্তরের খসড়া প্রতিবেদন সম্পর্কিত জাতীয় কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের অনেক সীমাবদ্ধতা আছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে লক্ষ‍্য অর্জনে সঠিকভাবে এগিয়ে যাচ্ছি। বুড়িগঙ্গা নদীর সদরঘাটের ওপারে ডকইয়ার্ড থাকায় বিলাসবহুল লঞ্চগুলো ঘুরাতে এবং বার্থিংয়ে সমস‍্যা হয়, যা খুবই ঝুঁকিপূর্ণ । সেগুলো স্থানান্তরে সমন্বয় করা হবে।
বিআইডব্লিউটিএ'র চেয়ারম‍্যান কমডোর গোলাম সাদেকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন‍্যান‍্যের মধ‍্যে বক্তব‍্য রাখেন নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ মোস্তফা কামাল ও জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের চেয়ারম‍্যান ড. মনজুর আহমেদ চৌধুরী।

সাম্প্রদায়িক শক্তিকে প্রতিহত করতে হবে: কৃষিমন্ত্রী নিউজ ডেস্ক : কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃআব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামীলীগ সরকার অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়তে বদ্ধপরিকর।কিন্তু এই অসাম্প্রদায়িক চেতনার বিরুদ্ধে দেশে একটি স্বার্থান্বেষী, সুবিধাবাদী ও ধর্মান্ধগোষ্ঠী খুবই তৎপর রয়েছে, যারা সাম্প্রদায়িক চেতনা ও ধর্মকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে নিজেদের রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিল করে ক্ষমতায় আসতে ও দেশের মানুষকে শোষণ- শাসন করতে চায়।এই অপশক্তির বিরুদ্ধে আমাদের সকলকে সচেতন  থাকতে হবে।

গতকাল টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী উপজেলায় বিভিন্ন পূজামণ্ডপ পরিদর্শন ও হিন্দুধর্মাবলম্বীদের সাথে শারদীয় শুভেচ্ছা বিনিময়কালে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, দুর্গাপূজাকে কেন্দ্র করে কেউ অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চাইলে, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।পূজাটা হিন্দুদের হলেও উৎসবটা হিন্দু, মুসলমান, বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান সহজাতি ধর্ম ও বর্ণ নির্বিশেষে সকল সম্প্রদায়ের, সকল মানুষের। তিনি বলেন, সকল অন্যায়-অবিচার, শোষণের বিরুদ্ধে আমরা ঐক্যবদ্ধ।সকল মানুষের উন্নয়ন ও কল্যাণের জন্য আমরা নিয়োজিত এবং যেকোনো মূল্যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি অটুট রাখব।

পরিদর্শনকালে ধনবাড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান হারুনার রশিদ হীরা, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসলাম হোসাইন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মীর ফারুক আহমেদ ফরিদ, সাধারণ সম্পাদক খন্দকার মঞ্জরুল ইসলাম তপন এবং স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে গতকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত মন্ত্রী মধুপুর উপজেলায়বিভিন্ন পূজামণ্ডপ পরিদর্শন ও হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সাথে শুভেচ্ছাবিনিময় করেন।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image