• ঢাকা
  • বুধবার, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ২৪ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

নাফনদে মিয়ানমারের 'যুদ্ধজাহাজ'


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০:২৪ এএম
মিয়ানমারের যুদ্ধজাহাজ'
নাফনদ

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি : মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে আরাকান আর্মি ও সশস্ত্র বাহিনীর মধ্যে চলমান যুদ্ধে মধ্য বুধবার দুপুরে বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্ত উপজেলা কক্সবাজারের টেকনাফে সদেরর মৌলভী পাড়ার ওপারে নাফনদে সেদেশের জলসীমানায় জাহাজটি দেখতে পান স্থানীয়রা।

এ বিষয়ে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের ৮ নম্বার ইউপি সদস্য এনামুল হক এনাম বলেন, ‘সীমান্তে আমার এলাকায় দুপুর থেকে ওপার থেকে আসা বিকট গোলার শব্দ পাওয়া গেছে। এছাড়া ওপারের সুদা পাড়া ও ডেইল পাড়ায় নাফনদে সেদেশে দুপুর থেকে একটি যুদ্ধজাহাজ দেখা যাচ্ছে। এতে তাঁর এলাকায় সীমান্তের পাচঁ হাজার মানুষ ভয়ের মধ্য রয়েছে। এতে তাঁর গ্রামে জরুরী কোন কাজ কাছ সীমান্তে কোন ধরনের মানুষ চলাচল করতে নিষেধ করা হয়েছে। পাশাপাশি সীমান্তের কাছাকাছি চিঃড়ী চাষীদের সর্তক থাকতে বলা হয়েছে বিজিবির পক্ষ থেকে।   

এ প্রসঙ্গে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে গুলি বর্ষণের বিষয়ে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশে (বিজিবি) সর্তক অবস্থানে রয়েছে উল্লেখ করে বিজিবির টেকনাফের-২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, “সার্ভিস ট্রলারকে গুলিবর্ষণের ঘটনায় প্রতিবাদ জানিয়ে মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বিজিপির কাছে প্রতিবাদ লিপি পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।”

এদিকে বুধবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে আরাকান আর্মি ও সশস্ত্র বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষে মর্টার শেল ও ভারী গোলার বিকট শব্দেয় কাপঁছে কক্সবাজারের প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিন। 

এ বিষয়ে কক্সবাজার জেলা প্রশাসক (ডিসি) মুহাম্মদ শাহীন ইমরান বলেন, ‘মিয়ানমারে অভ্যন্তরে চলমান যুদ্ধে প্রায় সময় সীমান্তে বিকট শব্দ পাওয়া যায়। এতে চিন্তার কোন কারন নেই। তবে গুলি বর্ষণের কারনে নৌযান চলাচল বন্ধের কারনে সেন্টমার্টিনে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের সংকট সমাধানে আমরা টেকনাফ-সেন্ট মার্টিন নৌ রুটে চলাচলের বিকল্প রুট খোঁজছি। আমরা দ্বীপের বিষয়টি খুবিই গুরুত্বসহকারে দেখছি। পাশাপাশি আজ (বুধবার) বিকেলে এ বিষয়ে একটি জরুরী সভা রয়েছে। সেখানে এ বিষয়ে সির্দ্ধান্ত আসতে পারে।’ 

সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আক্তার কামাল বলেন, ‘সকাল থেকে মিয়ানমার সীমান্তে ব্যাপক গোলার বিকট শব্দ এপারে পাওয়া যাচ্ছে। তবে অন্যদিনের তুলনায় সেটি বেশি। বিশেষ করে মিয়ানমার গুলি বর্ষণের কারনে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন রুটের নৌযান চলাচল বন্ধ রয়েছে। যার ফলে দ্বীপের প্রায় দশ হাজারের মানুষের জীবন যাত্রা দূর্দশার মধ্য পরেছে। টেকনাফ নির্ভরশীল নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্যের ব্যাপক সংকট রয়েছে।’      

প্রসঙ্গত মঙ্গলবার দুপুরেও সেন্ট মার্টিনগামী ট্রলারে স্পিডবোট লক্ষ্য করে মিয়ানমারের দিক থেকে গুলি চালানো হয়। এর আগে গত বুধবার ও শনিবারে মিয়ানমার সীমান্ত থেকে বাংলাদেশি ট্রলারকে লক্ষ্য করে দুই দফায় গুলি চালানো হয়েছে। মিয়ানমারের বর্ডার পুলিশ (বিজিপি) নাকি সেখানকার বিদ্রোহী কোনো গোষ্ঠী গুলি চালিয়েছে সে ব্যাপারে নিশ্চিত করে কোনো তথ্য জানাতে পারেনি বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image