• ঢাকা
  • বুধবার, ২৬ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ০৮ ফেরুয়ারী, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

বিরামপুরের খানপুরে জোড়াতালি বাঁশ কাঠের ব্রিজ দুর্ভোগে জনসাধারণ


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: সোমবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১২:৫৮ পিএম
খানপুরে দুর্ভোগে জনসাধারণ
জোড়াতালি বাঁশ কাঠের ব্রিজ

মোহাম্মদ রেজওয়ান আলী, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: দিনাজপুর বিরামপুর উপজেলার ইউনিয়নের অন্তর্ভুক্ত জনবহুল চলাচলে জোড়া তালি ভাঙ্গা ব্রিজ দিয়ে পারাপার জনসাধারণের ভোগান্তির অভিযোগ উঠেছে।

২৫ শে ডিসেম্বর দিনাজপুর বিরামপুর উপজেলার ৩নং খানপুর ইউনিয়নের নেটাশন ঘাট ও  আশুড়ার বিলের উপর দিয়ে বাঁশ কাঠ দিয়ে জোড়াতালি একটি অবহেলিত সেতু রয়েছে। যার উপর দিয়ে ধানজুড়ী মিশন স্কুলের প্রায় সকল ছাত্র-ছাত্রী ও এলাকার  জনসাধারণ চলাচল করার একমাত্র পথ। বর্ষা মৌসুম আসলেই ঐ ঘাটের ধানজুড়ী স্কুলের আদিবাসী ছাত্রছাত্রী ও এলাকার সাধারণ জনতা চলাচল করতে জনদুর্ভোগ পোহাতে হয়।

উল্লেখ্য নেটাশন  ঘাটের ঐপারে পাদমপুর ঘাট নামক স্থানে একটি সেতুর অভাবে বাঁশের সাঁকো রয়েছে। উক্ত সেতুটি দিয়ে পারাপার করতে হয় দুইটি উপজেলার কয়েকটি গ্রামের হাজার হাজার মানুষ।

এ বিষয়ে স্থানীয় জনসাধারণের নিকট জানতে চাইলে তারা জানান,অসহায় মানুষজন,উক্ত ব্রিজ নির্মাণের জন্য অনেক নেতা ও জনপ্রতিনিধিরা মেরামতের প্রতিশ্রুতি দিয়ে থাকলেও তা তারা কখনো করেনি। কবে এই দুর্ভোগ থেকে মুক্তি পাবে দুই উপজেলার কয়েকটি গ্রামের সাধারণ মানুষ তারা জানেন না বলে জানান। এ বিষয়ে তারা আরো জানান যে সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা জোর দাবি জানান।

পক্ষান্তরে আশুড়ার বিলের আন্দোলন কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন এ বিষয়ে জানান,বর্ষা মৌসুম আসলেই আশুড়ার বিলের ক্যানেলের পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা নেই। সেই লক্ষ্যে এলাকার ২৮ হেক্টর জমির ইরি-বোরো ধান পানির নিচে তলিয়ে যায়। এতে করে কৃষকেরা অনেক ক্ষতির মধ্যে পড়ে। এবারও কৃষকদের উক্ত সমস্যায় জমির ফসলের ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে।

তিনি আরও জানান,খানপুর ইউনিয়নের ১১৮ বছরের মিশন স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী ঐ জোড়াতালী সেতুর উপর দিয়ে জীবনের ঝুকি নিয়ে চলাচল করছেন। যে কোন সময় পানিতে পড়ে বড় ধরনের দুর্ঘটনার সম্ভাবনা রয়েছে। বিরামপুর পার্শ্ববর্তী নবাবগঞ্জ উপজেলা সদর থেকে কয়েকটি গ্রামের বাসিন্দারাও উক্ত বাঁশের সাঁকো দিয়ে চলাচল করে থাকেন । এতে করে প্রতিনিয়ত দূর্ভোগ পোহাতে হয় জনসাধারণের। এ বিষয়ে স্থানীয় জনসাধারণ আরো জানান যে,অনেক রাজনৈতিক নেতা এবং প্রতিনিধিগণ উক্ত ব্রিজ নির্মাণে পরিদর্শন করে থাকলেও তা বাস্তবায়ন হয়নি।

এ বিষয়ে খানপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান চিত্তরঞ্জন পাহাড়ের নিকট জানতে চাইলে তিনি জানান,দিনাজপুর ৬ আসনের সংসদ সদস্য শিবলী সাদিক ও বিরামপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খায়রুল আলম রাজু,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পরিমল কুমার সরকার কয়েকবার পরিদর্শন করেছেন।

কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থার গ্রহণ করবেন বলে জানান। সরজমিনে আরো জানা যায় যে,সেতুটি নির্মাণের জন্য ১৪৫ ফিট গভিরতা সয়েলটেস্ট করা হয়েছে।

এ বিষয়ে এলাকার জনসাধারণ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন। পাশাপাশি জনবহুল চলাচলের জোড়াতালির সেতুটি অতি শীঘ্র সংস্কারের জোর দাবি জানান।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image