• ঢাকা
  • রবিবার, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ২৭ নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

যাত্রাবাড়ী আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে হয়রানি ছাড়াই মিলে পাসপোর্ট


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শনিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৩:১৩ পিএম
হয়রানি ছাড়া পাসপোর্ট
যাত্রাবাড়ী আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস

মো. এরশাদ হোসেন, কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি: কেরানীগঞ্জ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস যাত্রাবাড়ীতে কোন হয়রানি ও জামেলা ছাড়াই সহজে মিলে পাসপোর্ট।দালাল ছাড়াই নিজের পাসপোর্ট নিজে করে হাসিমুখে বাড়ি ফিরছে সাধারণ মানুষ।দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে ঢাকা-মাওয়া সংযোগ সড়কের পাশে ঝিলমিল আবাসিক প্রকল্পের মনোরম পরিবেশে অবস্থিত পাসপোর্ট সংক্রান্ত যাবতীয় কাজ বেশ জুরেশোরেই শুরু হয়েছে। প্রাথমিক পর্যায়ে কিছু সমস্যা থাকলেও অফিসের কাজকর্ম নিয়ে বিভিন্ন এলাকা থেকে এই অফিসে আসা পাসপোর্ট প্রত্যাশি লোকদের তেমন কোনো অভিযোগ নেই। অনেকেই এই নতুন অফিসের পরিবেশ নিয়ে বেশ সন্তোষ প্রকাশ করেছেন তারা।

১৭ নভেম্বর বৃহস্পতিবার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ ঝিলমিল আবাসিক এলাকায় যাত্রাবাড়ী আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে এমন দৃশ্য দেখা গেছে। এই অফিসে নবাবগঞ্জ, দোহার, দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ, কদমতলী, যাত্রাবাড়ী, ডেমরা, শ্যামপুর, খিলগাঁও, সবুজবাগ, শাজাহানপুর, ওয়ারী, কোতোয়ালী ও সূত্রাপুর এই ১৩টি থানা এলাকার লোকজন পাসপোর্ট করতে সেবা নিচ্ছেন।

জানতে চাইলে শাহজাহান নামে এক সেবা প্রত্যাশী জানান, শুনেছি পাসপোর্ট অফিসে দালাল না ধরলে সহজে কোন পাসপোর্ট পাওয়া যায় না। আমি তো তার ব্যতিক্রম দেখতে পেয়েছি,আমি অনলাইনে ই- পাসপোর্ট আবেদন করার পর বিকাশে টাকা জমা ও ফিঙ্গার প্রদান করে সঠিক সময় পাসপোর্ট ম্যাসেজ পেয়ে অফিসে এসে পাসপোর্ট হাতে পেয়ে অনেক আনন্দ লাগছে। তিনি আরো জানান, আস্তে আস্তে সাধারন মানুষের ভুল স্থান থেকে বেড়িয়ে আসতে শুরু করেছে। সরকার দেশের মানুষের জন্য তথ্য প্রযুক্তি সেবার মানউন্নয়ন করায় আজ আমি তার উদাহরণ।মানুষ না বুঝে অফিসার দের দোষারোপ করে, তথ্য প্রযুক্তি এগানোর সাথে সাথে সেবার মান উন্নত হয়েছে।

কথা হয় এ্যাডভোকেট মোশাররফ হোসেন নামে এক সেবা প্রত্যাশীর সাথে তিনি বলেন,সাধারন মানুষ না বুঝে দালালকে ধরে,দালালরাও বেশি টাকা নেন নিজে কাজ করলে কোন দালাল লাগে না। আমার নিজের কাজ নিজে করেছি সঠিক সময় পাসপোর্ট হাতে পেয়েছি। আর নতুন উপ- পরিচালক মোঃ ইসমাইল হোসেন সবাইকে সেবা দিয়ে বলেদেন সেবা নিতে এসে সমস্যার সম্মুখিন হলে তার স্বরনাপর্ন হতে তার ব্যবহারও অমায়িক।তিনি আরো জানান, আমরা যারা না বুঝে দালালের মাধ্যমে পাসপোর্ট করি আমাদের দালালরা ভোগান্তিতে ফেলে পাসপোর্ট অফিসের সুনাম নষ্ট করে। আবেদন করতে গিয়ে অনেকের নাম ভুল করেন। এ খেসারত নিজেদের কাঁেদ নিতে হয়। এটার সমাধান অফিসকে কাউন্সিলিং এর মাধ্যমে করতে হয়। পাসপোর্ট অফিসে সঠিক ভাবে আবেদন করলে ঠিক সময় পাসপোর্ট পাবেন বলে তিনি মনে করেন।

এ বিষয়ে কথা হয় একজন ভুক্তভোগীর সাথে কথা হলে তিনি জানান, দালাল ধরে আবেদন করার কারনে নিজের নামের জায়গায় পিতার নাম  আর পিতার জায়গায় আমার নাম ভুল করেছে তারা । প্রায় কয়েক মাস আসতে হয়েছে। উপ পরিচালকের পরামর্শে সামনের ধাপ গুলো এগিয়েছি। যাত্রাবাড়ি আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের বিগত বছরগুলির চেয়ে এখন অতিদ্রæত গতিতে কাজ করছে। স্যার ও অনেক ভালো এত বার যাওয়ার পরও বেচারা কাজে বিরক্ত হয়নি।

উপ -পরিচালক মোঃ ইসমাইল হোসেন বলেন, আমার এ যাত্রাবাড়ি আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে পাসপোর্ট আবেদনপত্র জমাসহ এ সংক্রান্ত যে কোন তথ্য বা সেবার জন্য অনুসন্ধান কেন্দ্র (কক্ষ নং ১০৩)আবেদনপত্র জমা কাউন্টার (কক্ষ নং ২০৩)প্রয়োজনে উপ পরিচালকের (কক্ষ নং৫০২)রুমে যে কোন সেবা প্রার্থীদের আসার জন্য অনুরোধ করছি। তিনি আরো বলেন, সেবা প্রার্থীরা সরাসরি যাত্রাবাড়ী আঞ্চলিক পাসপোর্ট সেবা নিবেন। সকল সেবা প্রত্যাশীদের জন্য বসার সু ব্যবস্থা করা হয়েছে।

বয়স্ক,শিশু,শারীরিক প্রতিবন্ধি এবং বীর মুক্তি যোদ্ধাদের দ্রæতসেবা দেওয়ার জন্য আলাদা কাউন্টার ও কক্ষের ব্যবস্থা করেছে। এছাড়া আবেদন কারীর যে কোন সমস্যা সমাধানের জন্য উপ পরিচালকের কক্ষে শুনানীর মাধ্যমে প্রয়োজনিয় ব্যবস্থা ও সমস্যা সমাধান দিতে প্রস্তুত।তিনি যাত্রাবাড়ী আঞ্চলিক পাসপোর্ট কেরানীগঞ্জের আওতায় সেবা প্রত্যাশিদের এ অফিসে

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image