• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ১১ আগষ্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

আটোয়ারীতে বঙ্গমাতার ৯১তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: রবিবার, ০৮ আগষ্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ০৫:০৩ পিএম;
বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে অর্থ বিতরণ
আটোয়ারীতে দুস্থ নারীদের মাঝে অর্থ বিতরণ

মোঃ ইউসুফ আলী, আটোয়ারী, পঞ্চগড় প্রতিনিধি: পঞ্চগড়ের আটোয়ারীতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিনী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দুস্থ নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন ও নগদ এ্যাকাউন্টে অর্থ বিতরণ করা হয়েছে।

উপজেলা প্রশাসন ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে রবিবার (০৮ আগস্ট) দুপুরে উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভা ও বিতরণ কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু তাহের মোঃ সামসুজ্জামান। শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের স্মৃতিচারণ করে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ তৌহিদুল ইসলাম।

উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমানের সঞ্চালনায় আরো স্মৃতিচারণ মুলক বক্তব্য রাখেন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রেনু একরাম, আটোয়ারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইজার উদ্দীন, উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ আব্দুল্লাহ আল মামুন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা. মোঃ হুমায়ুন কবীর। প্রধান অতিথি বলেন, ১৯৩০ সালের এই দিনে গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়া গ্রামে  শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালরাতে তিনি জাতির পিতার হত্যাকারীদের হাতে নির্মমভাবে মৃত্যুবরণ করেন। ইতিহাসে বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব কেবল একজন রাষ্ট্রনায়কের  সহধর্মিনীই নন, বাঙ্গালীর মুক্তি সংগ্রামের অন্যতম এক নেপথ্য অনুপ্রেরণাদাত্রী। বাঙ্গালী জাতির সুদীর্ঘ স্বাধিকার আন্দোলনের প্রতিটি পদক্ষেপে তিনি বঙ্গবন্ধুকে সক্রিয় সহযোগিতা করেছেন। ছায়ার মতো অনুসরণ করেছেন প্রাণপ্রিয় স্বামী বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে। এই আদর্শ বাস্তবায়নের জন্য অবদান রেখেছেন। জীবনে অনেক ঝুঁকিপুর্ণ কাজ করেছেন, এজন্য অনেক কষ্ট-দুর্ভোগ পোহাতে হয়েছে তাঁকে।

সভাপতি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিনী, মহিয়সী নারী, বাঙ্গালীর সকল লড়াই-সংগ্রাম-আন্দোলনের নেপথ্যের প্রেরণাদাত্রী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব। সভাপতি বিদ্রোহী কবির লেখা কবিতার একটি অংশ নিয়ে বলেন, “ বিশ্বে যা কিছু চির সুন্দর, কল্যাণকর, অর্ধেক তার করিয়াছে নারী, অর্ধেক তার নর”।  ফরিদপুরের টুঙ্গিপাড়ার সন্তান শেখ মুজিব দীর্ঘ আপোষহীন লড়াই-সংগ্রামের ধারাবাহিকতায় ধীরে ধীরে শুধুমাত্র বাঙ্গালী জাতির পিতাই নন, বিশ্ব বরেণ্য রাষ্ট্রনায়কে পরিনত হয়েছিলেন। এর পেছনে গুরুত্বপুর্ণ ভুমিকা পালন করেছিলেন তাঁরই সহধর্মিণী, মহিয়সী নারী বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব।

স্মৃতিচারণে বক্তারা বলেন, বাঙ্গালী জাতির মুক্তি সনদ ছয় দফা ঘোষনার পর বঙ্গবন্ধু যখন বারে বারে পাকিস্তানি শাসকদের হাতে বন্দি জীবন-যাপন করছিলেন, তখন দলের সর্বস্তরের নেতা-কর্মীরা বঙ্গমাতার নিকট ছুটে আসতেন। তিনি তাদেরকে বঙ্গবন্ধুর বিভিন্ন দিক নির্দেশনা বুঝিয়ে দিতেন এবং লড়াই-সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়ার জন্য অনুপ্রেরণা যোগাতেন। এই মহিয়সী নারী ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সাথে সপরিবারে খুনিচক্রের বুলেটের আঘাতে নির্মমভাবে শহীদ হন।  

আলোচনা সভা শেষে জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত অসহায় দু¯থ নারীদের মাঝে সেলাই মেশিন ও মোবাইলের নগদ এ্যাকাউন্টে দুই হাজার টাকা করে প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, বীর মুক্তিযোদ্ধা, আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ, মহিলা সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সহ গণমাধ্যমকর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন।
 

ঢাকানিউজ২৪.কম / মোঃ ইউসুফ আলী

সারাদেশ বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image