• ঢাকা
  • রবিবার, ১০ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ; ২৩ জানুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

গাড়ি ভাঙচুর ও আগুন দিলে ব্যবস্থা: প্রধানমন্ত্রী


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বুধবার, ০১ ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ০১:৩৬ পিএম
গাড়ি ভাঙচুরে ব্যবস্থা
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

ডেস্ক রিপোর্টার: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানিয়েছেন, সড়ক দুর্ঘটনা রোধে এবং হাফ ভাড়ার দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে গাড়ি ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সম্প্রতি সড়ক দুর্ঘটনায় শিক্ষার্থী নিহতের পর গাড়ি ভাঙচুর ও আগুন দেওয়ার ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শিক্ষার্থীদের আইন নিজের হাতে তুলে না নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে তাদের শ্রেণিকক্ষে মনোযোগী হতে বলেন প্রধানমন্ত্রী। একই সঙ্গে চালকদের সঠিকভাবে গাড়ি চালানোরও নির্দেশ দেন তিনি।

বুধবার (১ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় বাংলাদেশ শিশু একাডেমি প্রাঙ্গণে নির্মিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল উদ্বোধন ও ধানমণ্ডিতে জয়িতা টাওয়ার নির্মাণ প্রকল্পের ভিত্তি স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শেখ হাসিনা বলেন, ভবিষ্যতে যারা গাড়ি ভাঙচুর বা অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটাবে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যে গাড়িতে আগুন দেওয়া হবে, সেই গাড়ির কেউ মারা গেলে সব দায় সেই অগ্নিসংযোগকারীর। শিক্ষার্থীদের শ্রেণিকক্ষে ফিরে পাঠে মনোযোগী হতে হবে।

এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা।

জাতির পিতার স্মৃতি সংরক্ষণ এবং নতুন প্রজন্মের কাছে জাতির পিতার অবদান তুলে ধরার লক্ষ্যে বাংলাদেশ শিশু একাডেমি প্রাঙ্গণে নির্মিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের টাইলস ম্যুরাল নির্মাণ করা হয়েছে।

ম্যুরালটির উচ্চতা ১৪ ফুট ৬ ইঞ্চি ও প্রস্থ ১০ ফুট ৬ ইঞ্চি। জাতির পিতার নবনির্মিত ম্যুরালটির মাধ্যমে বর্তমান প্রজন্মের শিশুরা মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ সৃষ্টির ইতিহাস বিষয়ে আরও বেশি জানতে উৎসাহী ও অনুপ্রাণিত হবে।

রাজধানীর ধানমণ্ডির ২৭ নম্বর (পুরাতন) রোডে এক বিঘা জমির ওপর ১৬৮ কোটি ৪০ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে ১২ তলা বিশিষ্ট জয়িতা টাওয়ার। দেশের নারী উদ্যোক্তাদের জয়িতা ব্র্যান্ডের আওতায় নানামুখী ব্যবসা-উদ্যোগে সম্পৃক্ত করার মাধ্যমে নারীর অর্থনৈতিক ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে অত্যাধুনিক ভৌত অবকাঠামো সুবিধাযুক্ত জয়িতা টাওয়ার নির্মাণ করা হচ্ছে।

জয়িতা টাওয়ারে রয়েছে নারী উদ্যোক্তাদের উৎপাদিত পণ্য বিক্রয়, প্রদর্শনী স্থান, প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ও আন্তর্জাতিক মানের সেমিনার কক্ষ। এ ভবনে আরও থাকছে শিশু দিবাযত্ন কেন্দ্র, নারীদের জন্য জিমনেসিয়াম, সুইমিংপুল ও মাল্টিপারপাস হল।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশে নারীর অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে ২০১১ সালের ১৬ নভেম্বর জয়িতা ফাউন্ডেশন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। জয়িতার কার্যক্রম উদ্বোধনকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছিলেন, পর্যায়ক্রমে বিভাগ, জেলা ও উপজেলায়ও জয়িতার কার্যক্রম চালু করা হবে। জয়িতা ফাউন্ডেশন নারী উদ্যোক্তাদের দক্ষতা, সক্ষমতা বৃদ্ধি, কর্মসংস্থান সৃষ্টি, উৎপাদিত পণ্য বিক্রয় ও ব্র্যান্ডিংয়ের জন্য একটি নিবেদিত প্ল্যাটফর্ম।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

জাতীয় বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image