• ঢাকা
  • বৃহস্পতিবার, ৩ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ; ১৮ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image
website logo

বৃষ্টিতে চড়া সবজির বাজার


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: শুক্রবার, ০৫ জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ০২:৩৪ পিএম
বৃষ্টিতে
চড়া সবজির বাজার

নিউজ ডেস্ক : প্রায় সব ধরনের সবজির দাম বেড়েছে। বাজারে বেশিরভাগ সবজি কিনতে হচ্ছে ৮০ থেকে ১০০ টাকা কেজি দরে।  কিছু সবজির দাম আবার কেজি প্রতি শতকও ছাড়িয়েছে। গত সপ্তাহের তুলনায় প্রতিটি সবজির দাম ১০ থেকে ৪০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে।

কাঁচা মরিচের দাম আবারও বাড়ছে। বাজারে কাঁচা মরিচের কেজি ২৪০ থেকে ২৮০ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে। যা কয়েকদিন আগেও ছিল ২০০ টাকার মধ্যে। গত সপ্তাহের তুলনায় পেঁয়াজ ও আলুর দাম বেড়েছে।

 রাজধানীর বিভিন্ন বাজারে শুক্রবার (৫ জুলাই) এই চিত্র দেখা গেছে। বিক্রেতারা বলছেন, বৃষ্টির কারণে বাজারে সবজি কম, তাই বেশি দামেই তাদের কিনে আনতে হয়েছে।

বাজারে দেখা গেছে, পেঁপে গত সপ্তাহে বিক্রি হয়েছে কেজিপ্রতি ৫০ টাকা দরে, যা এ সপ্তাহে ৬০ টাকা। একইভাবে লতি ৫০ থেকে ৬০ টাকা থেকে বেড়ে ৭০ থেকে ৮০ টাকা, করলা ৬০ থেকে ৮০ টাকা থেকে বেড়ে ১০০ থেকে ১২০ টাকা ও বরবটি ৬০ থেকে ৭০ টাকা থেকে বেড়ে ১০০ থেকে ১২০ টাকা এবং মানভেদে বাজারে কাঁচা মরিচের কেজি ২৪০ থেকে ২৮০ টাকা বিক্রি হচ্ছে।

সবজির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে দেশি পেঁয়াজ কেজি প্রতি বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১১০ টাকায়। এছাড়া দেশি হাইব্রিড জাতের পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৯০ থেকে ১০০ টাকা দরে। পেঁয়াজের দাম গত সপ্তাহের চেয়ে কেজিতে ১০ টাকার বেশি বেড়েছে। সবজির দাম বাড়ার পেছনে টানা বৃষ্টিকে কারণ হিসেবে দাঁড় করিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। তারা বলছেন, যেসব এলাকা থেকে সবচেয়ে বেশি সবজি আসে সেই এলাকাগুলোতে কয়েকদিন ধরে টানা বৃষ্টি হচ্ছে। এতে সবজির উৎপাদন ব্যাহত হয়েছে। বৃষ্টির কারণে খেতে পানি জমে সবজি নষ্ট হওয়ার উপক্রম হয়েছে। যে কারণে সবজির জোগান কমে দাম বেড়েছে।

চঞ্চল নামে একজন ক্রেতা বলেন, এদেশে সব কিছুরই দাম শুধু বাড়ে, বৃষ্টি, গরম বা শীত বলে কিছু নাই । ফলন ভালো হলেও বাজারে দাম কমে না।

তিনি বলেন, টমেটো কিনতে হচ্ছে ২০০ টাকা কেজি দরে। আলু ৭০ টাকা, বরবটি, করলার দাম ১২০ টাকা কেজি। এ যেন মগের মুল্লুক। এত দামে সবজি কিনে খাওয়া সাধারণ ও মধ্যবিত্তদের জন্য অসাধ্যকর ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

আরো পড়ুন

banner image
banner image