• ঢাকা
  • শুক্রবার, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ; ২০ মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
  • সরকারি নিবন্ধন নং ৬৮

Advertise your products here

banner image

বিপিএল ফাইনালে অনিশ্চিত সাকিব


ঢাকানিউজ২৪.কম ; প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১৭ ফেরুয়ারী, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ০৫:০৭ পিএম
বিপিএল ফাইনাল
সাকিব আল হাসান

ডেস্ক রিপোর্টার: একটি ম্যাচ আর বাকি আছে। শুক্রবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় ফরচুন বরিশাল বনাম কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে এবারের বিপিএলের। তবে ফাইনালের আগের দিন বরিশালের জন্য এক দুঃসংবাদই পাওয়া গেল।

ফাইনালের আগেরদিন সাধারণত দুই দলের অধিনায়করা ফটোসেশনে অংশ নেন। মুখোমুখি হন গণমাধ্যমের। তবে বৃহস্পতিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) ফটোসেশনে দেখা মিলল না ফরচুন বরিশাল অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের। তার পরিবর্তে আসেন ভাইস ক্যাপ্টেন নুরুল হাসান সোহান।

সাকিবের না আসার বিষয়ে বরিশালের তরফে দুই রকম কথা শোনা যাচ্ছে। আর তাই গুঞ্জনও ঢালপালা মেলছে। ফ্র্যাঞ্জাইজিটির তরফে বলা হয়, পেটের পীড়ায় ভুগছেন সাকিব। আর তাই ফটোসেশন ও সংবাদ সম্মেলনে আসতে পারেননি। অন্যদিকে, দলটির সহ-অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান জানিয়েছেন,‘সাকিব ভাই আসতে পারেনি। আর তাই আমি এসেছি। সকালে উনি জিমে ছিলেন।’

তবে বরিশাল ফ্র্যাঞ্জাইজি ও দলটির সহ-অধিনায়ক সোহানের প্রত্যাশা, ফাইনালে খেলবেন সাকিব। এদিকে, কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স অধিনায়ক ইমরুল কায়েসেরও আশা ফাইনালের মঞ্চে দুইজনের দেখা হবে।

এবারের বিপিএলে শীর্ষস্থান নিয়ে লড়াইটা হয়েছে কুমিল্লা আর বরিশালের মধ্যেই। কুমিল্লাকে হারিয়েই পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে ওঠে সাকিবেরা। দুই দলেরই এর আগেও শিরোপা জেতার ইতিহাস আছে। অধিনায়ক হিসেবে বিপিএলের শিরোপা জিতেছেন সাকিব-ইমরুল দুজনেই। তাই এই মঞ্চ তাদের নতুন নয়। কীভাবে ফাইনালে স্নায়ু শীতল রাখতে হয়, তা দুই ক্যাপ্টেনই জানে।

ফাইনালের আগে কুমিল্লার জন্যও সুখবর হয়ে এসেছে সুনিল নারিনের ফর্মে ফেরা। বল হাতে জ্বলে উঠতে না পারলেও ব্যাট হাতে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে ঝড় তুলেছিলেন নারিন। বিপিএলের ইতিহাসে দ্রুততম হাফ সেঞ্চুরি করে চট্টগ্রামের বিরুদ্ধে কুমিল্লাকে এনে দিয়েছেন সহজ জয়। মিরপুরের মরা পিচে ব্যাট হাতে ম্যাচে প্রাণের সঞ্চার করেছেন এবার কুমিল্লা তাকিয়ে থাকবে বল হাতে নারিনের স্বরূপে ফেরার। বড় ম্যাচে সব আলো কেড়ে নেওয়াই তো চ্যাম্পিয়নদের কাজ।

ফরচুন বরিশালের কোচ খালেদ মাহমুদ সুজন বলছেন, জিতবে সেই, যার নার্ভ থাকবে শক্ত। তার মতে, ফাইনাল হলো স্নায়ুক্ষয়ী খেলার জায়গা। এখানে সেই জয় পায়, যার স্নায়ু খেলার মাঠে শক্ত থাকে বেশি। খেলার মাঠে ভেঙে পড়লে হারতে হবে ম্যাচ।

দুই দলে তারকার ছড়াছড়ি। কুমিল্লা দলে সুনিল নারিন, ফাফ ডু প্লেসি, মঈন আলীরা থাকলে বরিশালের আছেন গেইল, ব্রাভো, মুজিব। কুমিল্লার তরুণ তুর্কি মাহমুদুল হাসান জয়ের জবাব হতে পারেন বরিশালের মুনিম শাহরিয়ার। তবে বরিশালের রয়েছেন স্পেশাল একজন। সাকিবের জবাব খুঁজে না পেলে কুমিল্লার হতে পারে বড় বিপদ। এই জায়গায় এগিয়েই আছে বরিশাল।

তবে সুজন এসব হিসাব মাথায় রাখছেন না। পরিসংখ্যান, টুর্নামেন্টের হিসাব-নিকাশ আর চালচিত্র দিয়ে এমন ম্যাচ বিচার করা যায় না। সুজনের মতে, ওই নির্দিষ্ট দিনে যে ভালো খেলবে, সেই জিতবে ফাইনাল। সুজনের মতে, ফাইনাল সবসময়ই কঠিন হয়। স্নায়ুচাপ জয় করে যে বেশি ভালো খেলবে, জয়ের সুযোগ তারই বেশি।

ঢাকানিউজ২৪.কম / কেএন

খেলা বিভাগের জনপ্রিয় সংবাদ

banner image
banner image